ভারতে করোনা হাসপাতালে আগুন, নিহত ৮

আগের সংবাদ

টেকনাফ থানার ওসি প্রদীপ গ্রেপ্তার

পরের সংবাদ

সরিষাবাড়ীতে মেয়র রোকনের বিরুদ্ধে আ.লীগের মানববন্ধন

মোস্তাক আহমেদ মনির, সরিষাবাড়ী (জামালপুর)

প্রকাশিত হয়েছে: আগস্ট ৬, ২০২০ , ২:১১ অপরাহ্ণ

জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে স্থানীয় সংসদ সদস্য ও তথ্য প্রতিমন্ত্রী আলহাজ ডা. মুরাদ হাসান এমপিকে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে মানহানিকর, কুরুচিপূর্ণ, অপপ্রচার, মিথ্যাচার ও অসত্য বক্তব্য প্রদানের প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে উপজেলা ও পোগলদিঘা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ। বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার পোগলদিঘা ইউনিয়নের তারাকান্দি যমুনা সার কারখানা চত্তরে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনের বক্তব্য রাখেন তারাকান্দি ট্রাক ও ট্যাঙ্ক লড়ি মালিক সমিতির সভাপতি মোজাম্মেল হক মুকুল, উপজেলা যুবলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি ফরিদ আহম্মেদ, রইচ উদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক আজমত আলী, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের সাংগঠনিক সম্পাদক এমএ জলিল রতন, যুবলীগ নেতা গোলাম মোস্তফা বাবু, সিবিএর সাধারন সম্পাদক শফিকুল ইসলাম খোকন, ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক ইকবাল হাসান লতিফ প্রমুখ।

জানা যায়, সরিষাবাড়ী পৌরসভার মেয়র রুকুনুজ্জামান রোকন তাঁর ব্যক্তিগত ফেসবুক আইডি থেকে গত মঙ্গলবার রাত ৮টা ২৭ মিনিটে স্থানীয় সংসদ সদস্য ও তথ্য প্রতিমন্ত্রী আলহাজ ডা. মুরাদ হাসান এমপির বিরুদ্ধে আক্রমনাত্মক, মিথ্যা, অসম্মান জনক, ভীতি প্রদর্শন, তথ্য উপাত্ত প্রকাশ করে। এ ঘটনায় বুধবার উপজেলা যুবলীগের সদস্য ছামিউল হক বাদী হয়ে সরিষাবাড়ী থানায় মেয়র রুকুনুজ্জামান রোকনের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের করেন।

মাবনবন্ধন চলাকালে বক্তারা বলেন, রাজাকার সন্তান রোকন ফেসবুক লাইভে এসে তথ্য প্রতিমন্ত্রী আলহাজ ডা. মুরাদ হাসান এমপিকে নিয়ে মানহানিকর, কুরুচিপূর্ণ, বক্তব্য প্রদানের তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাই। পৌর মেয়র রোকন মেয়র নির্বাচিত হয়ে দায়িত্ব গ্রহণের পর থেকে পৌরসভার অর্থ আত্মসাত ও ক্ষমতার অপব্যবহার করছেন। এ ছাড়া তিনি ভুয়া দরপত্র, ভুয়া কোটেশন এবং কাউন্সিলরদের নামে ভুয়া বিল ভাউচার তৈরি করে টাকা আত্মসাত করেছেন। এসব কর্মকান্ডের কারনে আওয়ামী লীগ থেকে তাকে বহিস্কার করা হয়। তাছাড়া তার বিরুদ্ধে আইসিটি আইনে ও গরীবের চাল চুরির অপরাধ সহ একাধিক মামলা দায়ের করা হয়েছে। প্রশাসনের কাছে আমাদের অনুরোধ তাকে দ্রুত গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনা হোক ।

পিআর