চলতি মাসেই দেশে ফের বন্যার আশঙ্কা

আগের সংবাদ

বসে থাকলে চলবে না, সীমিত হলেও কাজ করতে হবে

পরের সংবাদ

নির্মাণে ত্রুটি, সেতু ভেঙে খালে

প্রকাশিত: আগস্ট ৬, ২০২০ , ৫:১৩ অপরাহ্ণ আপডেট: আগস্ট ৬, ২০২০ , ৫:১৪ অপরাহ্ণ

পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলার নীলগঞ্জ ইউনিয়নের পাখিমারা বাজার সংলগ্ন আয়রন সেতুটি ভেঙে খালে পড়ে গেছে। বুধবার (৫ আগস্ট) রাত ১০টার দিকে হঠাৎ বিকট শব্দে সেতুটি ভেঙে পড়ে যায়। এ সময় শহিদ হাওলাদার ও ওহাব হাওলাদার নামে দুইজন পথচারী আহত হয়। নির্মাণে ত্রুটি ও ট্রলি দিয়ে পল্লী বিদ্যুতের খুঁটি পারাপার করায় সেতুর খুঁটিগুলো নড়বড়ে হয়ে ভেঙে গেছে বলে জানা গেছে। আয়রন সেতুটি ভেঙে যাওয়ায় নীলগঞ্জ ইউনিয়নের চারটি গ্রামের কয়েক হাজার মানুষ দুভোর্গে।

ইউনিয়নের কুমিরমারা, মজিদপুর, ফরিদগঞ্জ ও এলেমপুর গ্রাম থেকে কলাপাড়া উপজেলায় ও স্থানীয় পাখিমারা বাজারে যাতায়তের অন্যতম মাধ্যম এ আয়রন সেতুটি। প্রতিদিন প্রায় এক থেকে দেড় হাজার লোক এ আয়রন সেতুটি দিয়ে যাতায়ত করে থাকে।

স্থানীয় বাসিন্দা ও আলোকিত নীলগঞ্জ সংগঠনের মহাপরিচালক মো. নাঈমুর রহমান অভিযোগ করে বলেন, অযত্ন ও অবহেলায় সেতুটি ভাঙার কারণ হতে পারে। সেতু ভাঙার বিষয়টি শোনার পর কলাপাড়া উপজেলা চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা এস. এম রাকিবুল আহসান, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শাহিনা পারভিন সীমা, উপজেলা নির্বাহী প্রকৌশলী মোহর আলী ও নীলগঞ্জ ইউপি চেয়ারম্যান এ্যাড. নাসির মাহমুদ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

এ বিষয়ে নীলগঞ্জ ইউপি চেয়ারম্যান এ্যাড. নাসির মাহমুদ জানান, চাকামইয়া ইউনিয়নের একটি পুরাতন সেতুর মালামাল দিয়ে এ সেতুটি নির্মাণ করায় শুরুতেই এর ভিত্তিগুলো দুর্বল ছিল। তার মধ্যে ভারী যানবাহন ও অতিরিক্ত চাপ পড়ায় হঠাৎ সেতুটি ভেঙে যায়। এ বিষয়ে আমি যথাযথ কর্তৃপক্ষকে অবহিত করেছি।

কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী প্রকৌশলী মোহর আলী জানান, আমরা সেতুটি পরিদর্শনে গিয়েছিলাম। পুরাতন সেতুর মালামাল দিয়ে সেতুটি নির্মাণ ও লবণাক্ততার কারণে সেতুটি অল্প দিনেই ভেঙে পড়েছে বলে প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে। সেতুটির গুরুত্ব বিবেচনা ও মানুষের দূর্ভোগ লাগবে অতি দ্রুত বিকল্প ব্যবস্থা করা হবে ।

কলাপাড়া উপজেলা ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী কর্মকর্তা সহকারী কমিশনার (ভূমি) জগৎবন্ধু মন্ডল বলেন, সেতু ভেঙে পড়ার বিষয়টি আমি শুনেছি। আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি অবহিত করব।

এসআর

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়