গাইবান্ধায় বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি

আগের সংবাদ

বরগুনায় অস্ত্র-ইয়াবাসহ আটক ১

পরের সংবাদ

করোনার চিকিৎসাসেবা

সরাসরি যুক্ত স্বাস্থ্যকর্মীরা পাচ্ছেন বিশেষ সম্মানী

সেবিকা দেবনাথ:

প্রকাশিত হয়েছে: আগস্ট ৫, ২০২০ , ১২:১৬ অপরাহ্ণ

বঞ্চিত মেডিকেল টেকনোলজিস্ট ও সিএইচসিপিরা

করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসাসেবায় সরাসরি যুক্ত চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীদের এককালীন বিশেষ সম্মানী দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। তাদের এককালীন দুই মাসের মূল বেতনের সমপরিমাণ অর্থ দেয়া হবে। এ বিষয়ে গত সোমবার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সিনিয়র সহকারী সচিব সুশীল কুমার পাল স্বাক্ষরিত এক পরিপত্রও জারি হয়।

এই ঘোষণার পরই মেডিকেল টেকনোলজিস্ট ও কমিউনিটি হেলথ কেয়ার প্রোভাইডারদের (সিএইচসিপি) মধ্যে দেখা দিয়েছে অসন্তোষ। বাংলাদেশ মেডিকেল টেকনোলজিস্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি আলমাস আলী খান এবং হেলথ কেয়ার প্রোভাইডার এসোসিয়েশনের কেন্দ্রীয় এডহক কমিটির আহ্বায়ক মো. জাহিদুল ইসলাম ভোরের কাগজকে জানান, সংশ্লিষ্ট বিভাগ থেকে তাদের আশ্বাস দেয়া হলেও এ নিয়ে তাদের মধ্যে ধোঁয়াশা তৈরি হয়েছে। তাই তাদের অনিশ্চয়তা কাটছে না। বিষয়টি নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালকসহ সংশ্লিষ্ট বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করবেন তারা।

আলমাস আলী খান বলেন, বর্তমান পরিস্থিতিতে মেডিকেল টেকনোলজিস্টরা ঝুঁকি নিয়ে অমানুষিক পরিশ্রম করছেন। কিন্তু ৩ আগস্ট স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সেবা বিভাগ থেকে যে পরিপত্র জারি হয়েছে তাতে বলা হয়েছে, করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা সেবায় সরাসরি যেসব চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীরা নিয়োজিত তারাই এই সুবিধা পাবেন। এর মধ্যে আমরা কোথায়?

মো. জাহিদুল ইসলাম বলেন, জীবনের ঝুঁকি নিয়ে করোনার এই দুর্যোগে স্থানীয় জনগণকে চিকিৎসাসেবা দিয়ে যাচ্ছেন সিএইচসিপিরা। সরাসরি করোনা আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসাসেবায় জড়িত না থাকলেও বিভিন্ন উপজেলায় সিএইচসিপিদের মাধ্যমে করোনা পরীক্ষার নমুনা সংগ্রহ করিয়েছেন স্থানীয় উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তারা। সিএইচসিপিরা জানান, কোভিড-১৯ মোকাবিলায় যখন সারাদেশের চিকিৎসা ব্যবস্থা ভেঙে পড়েছিল, তখন প্রান্তিক সেবায় ঝুঁকি নিয়ে সিএইচসিপিরা কাজ করে গেছেন। মৃদু ও উপসর্গহীন করোনা আক্রান্তরা কমিউনিটি ক্লিনিকে এলেও তাদের বিমুখ করেননি তারা। রেফার্ড করেছেন উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্র কিংবা সংশ্লিষ্ট সেবা কেন্দ্রে। এরপরও আমরা বৈষম্যের শিকার। প্রণোদনা থেকেও বঞ্চিত।

এ বিষয়ে কমিউনিটি বেইজ হেলথ কেয়ারের (সিবিএইচসি) লাইন ডিরেক্টর ডা. সহদেব চন্দ্র রাজবংশী ভোরের কাগজকে বলেন, করোনার এ সময় সিএইচসিপিরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করছেন। অনেকে নমুনা সংগ্রহও করেছেন। তাদের বিষয়টি নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালকসহ আমাদের ফোরামে আলোচনা করব। আমরা চেষ্টা করব।

এমআই