আনন্দের মহাকাব্যিক পতন

আগের সংবাদ

আবু হেনা রাসেলকে হত্যার হুমকিতে ক্র্যাবের নিন্দা

পরের সংবাদ

লঞ্চ আছে যাত্রী নাই, স্বাস্থ্যবিধিতে ঢিলেমি

প্রকাশিত: জুলাই ২৯, ২০২০ , ৬:২০ অপরাহ্ণ আপডেট: জুলাই ২৯, ২০২০ , ৮:২১ অপরাহ্ণ

ঈদে নৌপথে ঘরমুখো মানুষের চিরচেনা ভীড় নাই দেশের প্রধান নদীবন্দর সদরঘাটে। সাধারণ সময়ের চেয়ে কিছুটা বেশি যাত্রী নিয়ে দক্ষিণাঞ্চলের বিভিন্ন গন্তব্যে বুধবার (২৯ সজুলাই) ছেড়ে যেতে দেখা গেছে লঞ্চগুলোকে। এ নিয়ে হতাশ মালিকপক্ষ।

অন্যদিকে, স্বাস্থ্যবিধি মানা নিয়েও দেখা গেছে ঢিলেঢালা অবস্থা। টার্মিনালের প্রবেশ মুখে জীবাণুনাশক টানেল স্থাপন করা হলেও সেগুলো কাজ করছে না। লঞ্চে ওঠার আগে হাত জীবণুমুক্ত করা বা মাস্ক পড়া নিয়েও রয়েছে ঢিলেমি।

বিকাল ৫টা পর্যন্ত ঢাকা থেকে বিভিন্ন গন্তব্যে ৩৫টি লঞ্চ ছেড়ে যাওয়ার কথা জানান বিআইডব্লিউটিএর ট্রাফিক বিভাগের কর্মকর্তা মাহফুজুর রহমান। তিনি জানান, দিন শেষে সব মিলিয়ে ৮৫টির মতো লঞ্চ ছেড়ে যেতে পারে। আগের দিন গিয়েছিল ৮২টি লঞ্চ, যা অন্যান্য স্বাভাবিক সময়ের মতোই। অথচ আগে ঈদে একশ’ বিশ-পঁচিশটি লঞ্চ চালিয়েও হিমশিম খেতে হতো।

এদিকে করোনা পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে লঞ্চ ছাড়ার কথা থাকলেও তা অনেক ক্ষেত্রেই সঠিকভাবে মানতে দেখা যায়নি। টার্মিনালে ৯টি জীবানুনাশক টানেল স্থাপন করা হলেও সেগুলো চালু ছিল না। পন্টুনে ভেড়ানো বরিশালগামী লঞ্চ সুন্দরবন-১০, সুরভী-৮, এডভেঞ্চারসহ সব লঞ্চেই ওঠার সময় যাত্রীদের হাতে কোনো মতে জীবাণুনাশক স্প্রে করতে দেখা যায়। অনেক যাত্রী এমনিতেই উঠে যাচ্ছিলেন লঞ্চে। মাস্ক পড়তেও দেখা যায়নি অনেককে।

এ প্রসঙ্গে বিআইডব্লিউটিএর যুগ্ম পরিচালক এ কে এম আরিফ উদ্দিন জানান, জীবাণুনাশক টানেল স্থাপন করা হলেও সেগুলো তারা ইচ্ছে করেই বন্ধ রেখেছেন। কারণ, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মতে এগুলোর রাসায়নিক মানব দেহের জন্য ক্ষতিকর। তবে যাত্রীদের হাত জীবাণুমুক্ত করাসহ অন্যান্য বিষয় নিশ্চিত করা হচ্ছে বলে দাবি করেন তিনি।

মালিকদের সংগঠন যাত্রী পরিবহন সংস্থার সচিব সিদ্দিকুর রহমান পাটোয়ারী হতাশা প্রকাশ করে বলেন, এখন তো ঘাটে লঞ্চ আছে, যাত্রী নাই। আগে ঈদে অতিরিক্ত যাত্রী বোঝাই নিয়ে আমাদের বিরুদ্ধে কথা উঠতো। কিন্তু এখন যাত্রীশূণ্য লঞ্চ ঘাট ছেড়ে যাচ্ছে। বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার যাত্রী সংখ্যা কিছুটা বাড়তে পারে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

এমএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়