বন্যা পরিস্থিতি অপরিবর্তিত

আগের সংবাদ

পলাশে মিনিবাস চাপায় শিশু শিক্ষার্থী নিহত

পরের সংবাদ

১০ দিনের রিমান্ডে খুলনায় নেয়া হয়েছে সাহেদকে

কাগজ প্রতিবেদক

প্রকাশিত হয়েছে: জুলাই ২৭, ২০২০ , ৯:০৯ অপরাহ্ণ

সাতক্ষীরায় দায়ের হওয়া অস্ত্র আইনের মামলায় রিজেন্ট গ্রুপ ও রিজেন্ট হাসপাতাল লিমিটেডের চেয়ারম্যান সাহেদ করিমকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১০ দিনের রিমান্ডে খুলনায় আনা হয়েছে। সোমবার (২৭ জুলাই) বিকেল ৬টার দিকে সাহেদকে বহনকারী গাড়ি খুলনা র‌্যাব-৬ কার্যালয়ে পৌঁছায়।

এর আগে গত রবিবার (২৬ জুলাই) আদালতের বিচারক সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট রাজিব কুমার রায় শুনানি শেষে সাহেদকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১০ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

করোনা পরীক্ষার ভুয়া রিপোর্ট প্রস্তুতকারী রিজেন্ট হাসপাতালের মালিক মো. সাহেদ করিম আত্মগোপন করেছিলেন। এরপর ১৫ জুলাই সাতক্ষীরার দেবহাটা উপজেলার কমলপুর গ্রামের ইছামতি খালে নৌকায় ভারতে পালানোর সময় র‌্যাবের হাতে গ্রেপ্তার হন সাহেদ। এ সময় তার কাছ থেকে অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় তার বিরুদ্ধে সাতক্ষীরায় অস্ত্র আইনে মামলা করে র‌্যাব।

উল্লেখ্য,  করোনা পরীক্ষার ভুয়া রিপোর্ট, অর্থ আত্মসাৎসহ নানা প্রতারণার অভিযোগ রিজেন্ট গ্রুপ ও রিজেন্ট হাসপাতাল লিমিটেডের চেয়ারম্যান সাহেদ করিমের ‍বিরুদ্ধে।

করোনায় আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসার নামে প্রতারণা এবং ‘করোনা উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে আসা এবং বাড়িতে থাকা রোগীদের করোনার নমুনা সংগ্রহ করে ভুয়া রিপোর্ট দেয়ার অভিযোগে ৬ জুলাই র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারোয়ার আলমের প্রথমে উত্তরার ১১ নম্বর সেক্টরের ১৭ নম্বর সড়কে অবস্থিত রিজেন্ট হাসপাতালে অভিযান চালায়। সেখান থেকে ৮ জনকে আটকের পর র‍্যাবের দলটি মিরপুরে রিজেন্টের অন্য শাখায় অভিযান পরিচালনা করে।

পরদিন উত্তরা পশ্চিম থানায় র‌্যাব বাদী হয়ে সাহেদ করিমকে এক নম্বর আসামি করে মামলা করে। এরপর থেকে সাহেদ পলাতক ছিলেন। সাহেদকে গ্রেপ্তারে দেশের বিভিন্ন সীমান্ত নজরদারিতে রাখে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। এর আগে মৌলভীবাজার সীমান্তেও ছিল কড়া নজরদারি।

এমএইচ