নকল মাস্ক সরবরাহের দায়ে শারমিনের বিরুদ্ধে মামলা

আগের সংবাদ

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে গুজব ছড়ালে ব্যবস্থা

পরের সংবাদ

জগৎতারার সৎকারে এগিয়ে আসলেন মুসলমানরা

প্রকাশিত: জুলাই ২৪, ২০২০ , ৫:২৯ অপরাহ্ণ আপডেট: জুলাই ২৪, ২০২০ , ৫:৩০ অপরাহ্ণ

যশোরের কেশবপুরে জগৎতারা নন্দন নামে এক হিন্দু নারী বার্ধক্যজনিত কারণে শুক্রবার ভোর ৪ টার দিকে মারা যায়। করোনায় ঐ নারীর মৃত্যু হয়েছে এমন সন্দেহে হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন তার সৎকারে এগিয়ে আসেনি। স্থানীয় চেয়ারম্যান অধ্যাপক আলাউদ্দিনের নের্তৃত্বে মুসলমানরা ঐ নারীর সৎকার করেছেন।

জানা গেছে, কেশবপুর উপজেলার মূলগ্রাম গ্রামের রামপদ নন্দনের স্ত্রী জগৎতারা নন্দন (৮৫) করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে হয়েছে এমন সন্দেহে হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন সৎকারে কোনোভাবে এগিয়ে আসতে রাজি হয়নি। ফলে বাধ্য হয়ে স্থানীয় চেয়ারম্যান অধ্যাপক আলাউদ্দিন, মাহাবুর, হাসান, জাকির, তৌহিদ, কনক দত্তসহ কয়েকজন মিলে শুক্রবার দুপুরের ঐ নারীর সৎকার করে।

এ ব্যাপারে চেয়ারম্যান অধ্যাপক আলাউদ্দিন জানান, বার্ধক্যজনিত কারণে ঐ নারী মারা গেলেও করোনায় মৃত্যু হয়েছে এমন সন্দেহে হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন সৎকারে এগিয়ে আসেনি। বিষয়টি প্রশাসনকে জানিয়ে মেম্বার নিমাই চন্দ্র দাস, মাহাবুর, হাসান, জাকির, তৌহিদ, কনক দত্তসহ স্থানীয় লোকজন নিয়ে ঐ নারীর সৎকার করা হয়েছে।

গত ১৫ জুলাই ঐ নারীর ছেলে শীতল নন্দন মারা যায়। সে সময়ও করোনায় মৃত্যু হয়েছে সন্দেহে শীতলের সৎকারে হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন অনীহা দেখায়। পরে শীতলের করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট নেগেটিভ পাওয়া যায়।

এসআর

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়