অপরাধী সরকারি কর্মকর্তা হলেও ছাড় নয়

আগের সংবাদ

ঈদের আগে-পরে বন্ধ হচ্ছে ট্রেন

পরের সংবাদ

প্লাবিত নতুন নতুন এলাকা

নেত্রকোনায় লক্ষাধিক মানুষ পানিবন্দি

প্রকাশিত: জুলাই ১৫, ২০২০ , ৪:০০ অপরাহ্ণ আপডেট: জুলাই ১৫, ২০২০ , ৮:০৬ অপরাহ্ণ

টানা বৃষ্টি ও ভারতের উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলের কারণে নেত্রকোনার সব নদ নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় জেলার নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত হচ্ছে। জেলার ৬ উপজেলায় পানিবন্দি হয়ে আছে প্রায় লক্ষাধিক মানুষ। খাবার ও বিশুদ্ধ পানি অভাবে মানবেতর জীবন যাপন করছেন তারা। জেলার কলমাকান্দা ও খালিয়াজুড়ি উপজেলার বন্যাদূর্গতদের বাড়িঘর তলিয়ে যাওয়ায় বেশ কিছু পরিবার আশ্রয় নিয়েছে সরকারি বন্যা আশ্রয় কেন্দ্রে।

জেলার ৬ উপজেলার বন্যা পরিস্থিতি পুনরায় ব্যাপক অবনতি হয়েছে। উপজেলাগুলো হলো- দূর্গাপুর, কলমাকান্দা, বারহাট্টা, মদন ও খালিয়াজুড়ি। এদিকে বৃষ্টি অব্যাহত থাকার কারণে নতুন করে প্লাবিত হয়েছে নেত্রকোনার সদর উপজেলার কালিয়ারা গাবরাগাতি ইউনিয়নের সবকটি গ্রাম। এ ছাড়া প্লাবিত হয়েছে খালিয়াজুড়ি উপজেলার বেশ কিছু এলাকা। জেলার প্রধান প্রধান নদ-নদীর পানি বিপদ সীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। ফলে পানি বন্দি হয়ে আছে জেলার ৬ উপজেলার ৩০ ইউনিয়নের প্রায় লক্ষাধিক মানুষ।

পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় তলিয়ে গেছে বেশিরভাগ গ্রামীণ সড়ক, ফলে গ্রামাঞ্চলের যোগাযোগ ব্যবস্থা একেবারে ভেঙে পড়েছে। বয়স্ক ও শিশুদের নিয়ে চরম উৎকন্ঠার মধ্যে রয়েছে পানিবন্দি পরিবারগুলো।

বন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে অসংখ্য পুকুর ভেসে গেছে বিপুল পরিমাণ মাছ। বন্যার পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় আমন ধানের বীজতলা নষ্ট হয়ে গেছে। সাধারণ মানুষ কলার ভেলা তৈরি করে প্রয়োজনীয় কাজ সেরে নেয়ার চেষ্টা করছেন।

দূর্গাপুর, কলমাকান্দা, মদন উপজেলার গুচ্ছ গ্রাম ও খালিয়াজুড়ি এলাকায় বন্যাদূর্গতদের মাঝে উপজেলা প্রশাসন থেকে শুকনো খাবারের প্যাকেট বিতরণ করা হয়েছে।

এসআর

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়