চিত্রনায়ক জায়েদ খানকে ‘অবাঞ্ছিত’ ঘোষণা

আগের সংবাদ

নেতার প্রভাবে এতিমের টাকা আত্মসাৎ অধ্যক্ষের

পরের সংবাদ

করোনায় মাস্কের সাথে অল্প মেকআপের গল্প

লাইফস্টাইল ডেস্ক:

প্রকাশিত হয়েছে: জুলাই ১৫, ২০২০ , ৪:৩০ অপরাহ্ণ

মেকআপ ছাড়া যেন নারীরা নিজেদের কল্পনাই করতে পারেন না। বাহিরে বের হতে একটু মেকআপ না হলে হয়! যারা মেকআপ নেন না, তার ঘরেও মেকআপের দু চারটা আইটেমও নেই একথা বলতে পারবেন না। তবে করোনার এই সময়ে বাইরে বের হওয়া হচ্ছে না। লকডাউন সিথিল হওয়ায় এখন বের হওয়া যায়। তবে মাস্ক পরা বাদ্ধতামূলক। মাস্কের আড়ালে মেকআপের দরকার কী? মেকআপ লেগে মাস্ক যদি নষ্ট হয়? এই সব ভাবনায় অনেকেই মেকআপ কিট সরিয়ে রাখছেন। লিপস্টিক, ফাউন্ডেশন, হাইলাইটার, আইলাইনার— সব কিছুরই এক্সপায়ারি ডেট আছে। কিছু দিন ব্যবহার না করলেই ত্বকের পক্ষে ক্ষতিকর। তাই বাড়িতেই সেগুলোর সদ্ব্যবহার করুন। শখ মিটিয়ে সাজতেও পারেন বা রূপচর্চা ও প্রসাধনীর অন্য কাজে এই সব কসমেটিকস ব্যবহার করতে পারেন। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, মেকআপের এই দুর্দিন স্থায়ী নয়। যত দিন না করোনাকে হারিয়ে বা এড়িয়ে মেকআপ আবার আমাদের জীবনে গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠছে, তত দিন আস্থা রাখুন বেসিক মেকআপে। ম্যাট লুক, স্মোকি আইজ়, নুড লিপসে।

বেশির ভাগ ফাউন্ডেশনেই এসপিএফ ফ্যাক্টর থাকে। বাইরে বের হওয়ার আগে গোলাপজল মিশিয়ে সেটা সারা দেহে সানস্ক্রিনের মতো ব্যবহার করতে পারেন। শরীরের উপেক্ষিত অংশ, যেমন পায়ের পাতা, হাতের কনুইয়ে ময়শ্চারাইজার মিশিয়ে ফাউন্ডেশন লাগান। ওই অংশ কোমল ও উজ্জ্বল দেখাবে।

• বিউটিশিয়ানের কাছে ভ্রু প্লাক করতে অনেকেই ইতস্তত করছেন। আইশ্যাডো বুলিয়ে ভ্রু-র এলোমেলো অংশ আড়াল করা যায়। অবশ্য মাস দেড়েক ভুরু প্লাক না করে এ ভাবে আড়াল করা যায়, তার বেশি নয়।

• মাসকারার স্পুলি ব্রাশ দিয়ে আইব্রো শেপ করার কায়দাটাও বেশ পুরনো। আবার চুলের সামনের অংশে বা ভ্রুতে হঠাৎ পাকা চুল উঁকি দিলে মাসকারা বুলিয়ে তৎক্ষণাৎ ঢেকে ফেলতে পারেন। আইলাইনারও একটা-দুটো রুপোলি রেখা ঢাকতে ওস্তাদ।

• হেয়ার স্প্রে করার পর মাসকারার ওয়ান্ড দিয়ে চুল সেট করা যায়। আগে নরম সাবানে ওয়ান্ড ধুয়ে শুকিয়ে নেবেন।

• আইশ্যাডো আর ব্লাশঅনের গুঁড়ো নেলপলিশে মিশিয়ে দিন। এক্সক্লুসিভ রং আর স্পার্কলের নেলপেন্ট পেয়ে যাবেন।

• বিউটি বামের মধ্যে ন্যাচারাল অ্যান্টিসেপটিক থাকে। পায়ের শক্ত অংশে তা লাগাতে পারেন। করোনার কারণে ধুয়ে আর স্যানিটাইজার মেখে হাত রুক্ষ হয়ে যাচ্ছে? প্রতি বার হাত ধুয়ে লোশন ছাড়াও বিউটি বাম লাগাতে পারেন।

• দৃষ্টিকটু রোমও কনসিলার দিয়ে ঢেকে নিতে পারেন।

চাই একটু উদ্যোগ
প্রসাধনীর উপকরণে চোখ বুলিয়ে নিন। সেগুলো অন্য কাজে ব্যবহার করা যায় কি? যেমন, কমপ্যাক্টে সামুদ্রিক খনিজ থাকে। এটিকে সানস্ক্রিন আর ময়শ্চারাইজারের সঙ্গে ব্লেন্ড করে নিলে নো মেকআপ লুকের জন্য বি বি ক্রিম পেয়ে যাবেন। নামী ব্র্যান্ডগুলোর কাছে অপ্রয়োজনীয় কসমেটিকস জমা দেওয়া যায়। তারা সেটা ‘রিসাইকল’ করে নতুন প্রসাধনী তৈরি করে নেয়। আর পরের কসমেটিকস কেনার সময়ে তার উপরে ছাড়ও পাবেন। এখন ব্র্যান্ডগুলি মাস্কফ্রেন্ডলি মেকআপ, আগের প্রসাধনী সংরক্ষণের কায়দাকানুন নিয়ে পরীক্ষা করছে। ফলে তারা পুরনো মেকআপ জমা নিচ্ছে কি না খোঁজ নিতে পারেন।

কী হবে বেসিক মেকআপ
প্রথমেই ত্বক দাগছোপহীন ঝকঝকে করে ফেলতে হবে। কীভাবে? দৈনিক ক্লেনজিং, টোনিং, ময়শ্চারাইজিং এবং সাপ্তাহিক স্টিম ও স্ক্রাবের রুটিন মেনে চলুন। যেহেতু অনেকটা সময় মাস্ক পরতে হচ্ছে, তাই অ্যান্টিসেপটিক দেওয়া ময়শ্চারাইজার বেছে নিন। তার উপরে স্টিক-ফাউন্ডেশন লাগান। এটি মাস্কে লাগবে না। নুড বা লাইট শেডের ম্যাট লিপস্টিক লাগান। তার উপরে টিন্টেড লিপ বাম। হাইলাইটার ব্যবহার করলে নাকটা শার্প দেখাবে।

করোনা-জমানায় চোখের মেকআপই ইন। তাই চোখের অংশে দাগ এবং ডার্ক সার্কল থাকলে চলবে না। চোখ ড্রামাটাইজ করতে উপরে ও নীচে আলাদা রঙের আইপেনসিল ব্যবহার করতে পারেন। চোখের তলায় গোল্ড আইশ্যাডো লাগালে চোখ বড় দেখায়। মাল্টিপল স্ট্রোকসে ভুরু আঁকুন, সুন্দর দেখাবে। চোখে মেকআপ অ্যাপ্লাই করার আগে সাবধান থাকবেন। হাত সাবান দিয়ে ধুয়ে নেবেন। বাড়ি ফিরে সব মেকআপ ভাল করে তুলবেন। ব্যবহারের আগে ও পরে মেকআপ ব্রাশগুলো ধুয়ে নেবেন। কোনো প্রসাধনী সঙ্গে নিয়ে বেরোবেন না। মেকআপের প্রচলিত রীতি বদলে দিয়েছে করোনা। হোক না! আমরাও সাজগোজের নতুন উপায় খুঁজে নেব। মাস্কের আড়ালে ঠিকই শ্রীমণ্ডিত থাকবে নারীর সৌন্দর্য।

এমআই