দোয়ারায় দ্বিতীয় দফায় বন্যা, পানিবন্দি অর্ধলক্ষাধিক পরিবার

আগের সংবাদ

শেরপুরে পাহাড়ি ঢলে দুই উপজেলার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত

পরের সংবাদ

ইংল্যান্ড হারায় মাতামাতি নেই ইংলিশ মিডিয়ায়

কাগজ ডেস্ক

প্রকাশিত হয়েছে: জুলাই ১৩, ২০২০ , ২:১২ অপরাহ্ণ

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে হট ফেবারিট ইংল্যান্ড। ২০ বছরে ইংল্যান্ডের মাটিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজ মাত্র ১টি জয় পেয়েছে । এবারো ইংলিশদের কাছে ধরাশয়ী হবে তারা। তিন ম্যাচের সিরিজ শুরু হওয়ার আগে এসব কথাই শোনা গেছে বিভিন্ন ব্রিটিশ মিডিয়ায়। তবে সিরিজের প্রথম ম্যাচটিতে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই করে ম্যাচটি জিতে নিয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। আর ফলে চুপ হয়ে গেছে ব্রিটিশ মিডিয়াগুলো। ম্যাচ রিপোর্ট দিয়েই দায় সেরেছে তারা। বিখ্যাত সংবাদমাধ্যম ডেইলি মেইল এই ম্যাচ নিয়ে তাদের খবরের শিরোনাম করেছে, ‘ হোঁচট খেল ইংল্যান্ড।

জয় দিয়ে ফিরল ওয়েস্ট ইন্ডিজ।’ তাছাড়া তারা ম্যাচটিতে স্টুয়ার্ট ব্রডকে না নেয়ার ব্যপারটিও উল্লেখ করেছে। তাদের মতে ব্রড থাকলে হয়তো খেলার ফলাফল অন্যরকম হতো। দি সান বলতে গেলে ম্যাচ রিপোর্টটি দিয়েছে দিতে হবে এজন্য। তারা তাদের খবরের শিরোনাম করেছে, ‘সামনে থেকে লড়েছেন বেন স্টোকস। তবে ম্যাচটি হারতে লড়তে হয়েছে ইংল্যান্ডকে।’ তারাও ডেইলি মেইলের মতো ব্রডের কথাটিই উল্লেখ করেছে। স্টুয়ার্ট ব্রডকে প্রথম টেস্টে বসিয়ে রাখা ভুল ছিল বলেও তাদের রিপোর্টে উল্লেখ করেছে। বহুল প্রকাশিত সংবাদমাধ্যমে ডেইলি মিরর তাদের শিরোনামে লিখেছে, ‘প্রথম টেস্ট জিতল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। শেষ দিনে সুযোগ পেয়েও কাজে না লাগানোর ফল ভোগ করেছে ইংল্যান্ড।’ ডেইলি মিরর মূলত তাদের শিরোনামে ইংল্যান্ড দলের সমালোচনাই করেছে। শেষ দিনে এসে ক্যাচ ফেলে দেয়া। রান আউট করার সুযোগ পেয়েও তা কাজে লাগাতে না পারার সমালোচনা করেছে তারা। তাছাড়া এই ম্যাচটি জয়ের জন্য ওয়েস্ট ইন্ডিজকেও কৃতিত্ব দিয়েছে তারা। আরেক বিখ্যাত দৈনিক দি গার্ডিয়ান তাদের শিরোনাম করেছে, ‘ আর্চারের জ্বলে উঠার দিনে শেষ হাসি হাসল ব্ল্যাকউড।’ গার্ডিয়ান তাদের রিপোর্টটি সাজিয়েছে মূলত আরচারের গুণগান গেয়েই।

তারা রিপোর্টটির মাধ্যমে সকলকে আবার মনে করিয়ে দিয়েছে আরচারের শক্তিমত্তার কথা। তবে দলগত পারফরমেন্স ভালো না হওয়ায় ও ব্ল্যাকউড আরচারের চেয়েও বেশি বিচক্ষণতার পরিচয় দেয়ায় ম্যাচটি ওয়েস্ট ইন্ডিজ জিতে নিয়েছে বলেও জানায় তারা। এদিকে বেশিরভাগ মিডিয়াতেই স্টুয়ার্ট ব্রডকে না নেয়ায় বেন স্টোকসের সমালোচনা করা হয়েছে। তবে বেন স্টোকস নিজে ম্যাচ পরবর্তী পুরস্কার বিতরণীতে জানিয়েছে ব্রডকে দলে না নেয়ায় তার কোনো অনুশোচনা নেই।

নকি