কুড়িগ্রামে ফের পানিবন্দি লক্ষাধিক মানুষ

আগের সংবাদ

টানা বৃষ্টিতে আদিতমারীতে ৫ হাজার পরিবারের মানবেতর জীবন

পরের সংবাদ

ফুটবলারদের আশ্বস্ত করলেন বাফুফে সভাপতি

কাগজ প্রতিবেদক

প্রকাশিত হয়েছে: জুলাই ১২, ২০২০ , ৮:৩৬ অপরাহ্ণ

বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের ইংলিশ কোচ জেমি ডে নতুন মেয়াদে যোগ দেয়ার আগেই ফুটবলারদের ফিটনেস ক্যাম্প করাতে চায় বাফুফে। মধ্য আগস্টে জেমি ডে এসে এক সপ্তাহ আইসোলেশনে থেকে ক্যাম্প শুরু করবেন। তবে বাফুফে সভাপতি কাজী মো. সালাউদ্দিন চাইছেন আগস্টের আগেই অনুশীলন প্রক্রিয়া শুরু করতে। কারণ করোনায় দীর্ঘদিন ফুটবলের বাইরে থাকায় খেলোয়াড়দের ফিটনেস ধরে রাখা কঠিন হয়ে পড়েছে। তাই ক্যাম্প শুরুর আগে তিনি একজন ট্রেনার দিয়ে খেলোয়াড়দের ফিটনেস ট্রেনিং করাতে চান।

জাতীয় দল এবং বিভিন্ন ক্লাবের ফুটবলারের সঙ্গে গত শনিবার মতবিনিময় সভা করেন বাফুফে সভাপতি কাজী মো. সালাউদ্দিন। মামুনুল ইসলাম, আশরাফুল ইসলাম রানা, তপু বর্মণ, ওয়ালি ফয়সালসহ জাতীয় দলের সিনিয়র ফুটবলারকে নিয়ে মতবিনিময় সভায় আরো ছিলেন বাফুফের ২ সহসভাপতি কাজী নাবিল আহমেদ ও তাবিথ আউয়াল।

সেখানে সভাপতি বিশ্বকাপ ও এশিয়ান কাপ বাছাইয়ের বাকি ৪ ম্যাচকে গুরুত্ব দিয়েছেন। সভাপতি চাচ্ছেন কোচ আসার আগে একজন ট্রেনার দিয়ে খেলোয়াড়দের ফিটনেস ক্যাম্প করাতে। সেটা নিয়েই সভা করবে ন্যাশনাল টিমস কমিটি।

সভাপতির সঙ্গে মতবিনিময় সভায় বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের ১৩ ক্লাবের মধ্যে ১২ ক্লাবের ২৭ ফুটবলার উপস্থিত ছিলেন। সেখানে খেলোয়াড়দের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘৮ অক্টোবর আমাদের ম্যাচ শুরু হবে। দেশের মানুষ তোমাদের দিকে তাকিয়ে আছে। কী করতে হবে তোমরা সেটা ভালো করেই বুঝতে পেরেছ। তোমাদের ফিটনেস লেভেল বাড়ানোর জন্য দরকার হলে এ মাসেই একজন ট্রেনার এনে কাজ শুরু করে দেব। আমি এ নিয়ে কথা বলব ন্যাশনাল টিমস কমিটির সঙ্গে।’

ফুটবলারদের পক্ষে বক্তব্য রাখছেন আশরাফুল ইসলাম রানা ও মামুনুল ইসলাম।

বৈঠক শেষে নিজেদের দাবি-দাওয়া নিয়ে অভিজ্ঞ মিডফিল্ডার মামুনুল ইসলাম মামুন বলেন, ‘আমি আবাহনী ক্লাবে খেলি। ক্লাবের কর্তাদের সঙ্গে আমার যোগাযোগ আছে। পাওনা নিয়ে তাদের সঙ্গে কথাও হচ্ছে। কিন্তু এখন মৌসুম কবে শুরু হবে সেটা তো আমরা জানি না। এখন পাইওনিয়ার থেকে শুরু হবে প্রিমিয়ার লিগ কবে নাগাদ শুরু হবে, আমাদের চুক্তিসহ আরো কয়েকটি দাবি-দাওয়া নিয়ে বাফুফের সর্বোচ্চ পর্যায়ের ব্যক্তিদের সঙ্গে আমরা বসেছি। আমাদের দাবি-দাওয়াগুলো লিখে একটা চিঠি জমা দিয়েছি। যদি ওনারা সমাধান না করতে পারেন, তাহলে আমরা খেলোয়াড়রা চিন্তা করব যে, আমরা কী করতে পারি।’ খেলোয়াড়দের দাবি-দাওয়া নিয়ে বাফুফে সভাপতি সালাউদ্দিন বলেন, ‘আমরা খেলোয়াড়দের দাবি-দাওয়া শুনেছি। ক্লাবগুলোর কাছে তাদের বকেয়া নিয়ে আমরা বসব। তাদের পাওনা নিয়ে আমরাও উদ্বিগ্ন। আশা করি, খুব দ্রæতই এটার একটা সুরাহা করতে পারব।’

করোনা ভাইরাসের কারণে বিশ^কাপ ও এশিয়ান কাপ ফুটবলের বাছাইপর্বের বাকি ম্যাচগুলো হতে পারেনি। নতুন সূচি অনুযায়ী, আগামী ৮ অক্টোবর থেকে তা শুরু হতে যাচ্ছে। বাংলাদেশ ওই দিনই আফগানিস্তানের মুখোমুখি হবে। এছাড়া গ্রæপের বাকি ৩টি ম্যাচের সূচি এমন : ১৩ অক্টোবর কাতার, ১২ নভেম্বর ভারত এবং ১৭ নভেম্বর ওমান ম্যাচ। ৪টি ম্যাচের জন্য বাফুফে প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে।

কাজী নাবিল আহমেদ জানান, আগাম প্রস্তুতির কথা জানিয়ে বলেন, ‘আমরা বিশেষ পরিস্থিতির মধ্যে আছি। সেটা হলো করোনা ভাইরাস। সব জায়গায় ছড়িয়ে পড়েছে। বাংলাদেশও এর বাইরে নয়। তোমরা সাবধানতা অবলম্বন করবে নিজের ও পরিবারের স্বার্থে। খেলা শুরু করার আগে তোমাদের স্বাস্থ্যের নিরাপত্তার কথা চিন্তা করতে হচ্ছে। অন্তত আগামী ২ সপ্তাহ নিজেরা আরো সাবধান থাকবে। যেখানে ট্রেনিং হবে সেখানে কোচিং স্টাফ ও সংশ্লিষ্ট ছাড়া কেউ যেতে পারবে না। সব ধরনের নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা থাকবে।’

আরেক সহসভাপতি তাবিথ আউয়াল বলেন, ঈদের পর ক্যাম্প শুরু হবে, ‘আগস্টের ২/৩ তারিখ থেকে আইসোলোশন ক্যাম্প শুরু করতে যাচ্ছি। ঢাকার বাইরে বিবেচনায় আছে। ২টি রিসোর্ট দেখা হচ্ছে। আমরা ২ মাসের মধ্যে ২টি ফ্রেন্ডলি ম্যাচ খেলতে চাই।’

মাঠে ফিটনেস ধরে রাখাটা জরুরি উল্লেখ করে সভাপতি সালাউদ্দিন বলেন, ‘৮ অক্টোবর বাছাই পর্ব খেলতে হবে। সেটা ডু অর ডাই ম্যাচ। কোচ কবে আসবে না আসবে সেটা গুরুত্বপূর্ণ নয়। গুরুত্বপূর্ণ হলো তুমি যদি ফিজিক্যালি ফিট না থাকো তাহলে খেলতে পারবে না। ফুটবলটা ৮০ ভাগ ফিজিক্যাল। ২০ ভাগ মনের খেলা। বল কিন্তু ৩-৪ মিনিটের বেশি পাওয়া যাবে না। আমার কথা হলো ফিটনেস ধরে রাখতে হবে। মাঠে আমরা খেলতে পারব না। আমি চাই তোমরা জিতে এসো।’ এর আগে কোচ জেমি ডে বলেছিলেন, ৬ সপ্তাহের ক্যাম্প হলেই চলবে। যদি এ মাসেই ফুটবলারদের ট্রেনারের হাতে তুলে দেয়া হয় তাহলে বেশ লম্বাই হবে ক্যাম্প। ১৬ জুলাই (বৃহস্পতিবার) ন্যাশনাল টিমস কমিটি সভায় বসে ট্রেনার নিয়োগ ও কবে নাগাদ ক্যাম্প শুরু করা যায় সেবিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করব।

এমএইচ