নিজের স্ত্রীকে মেরেছি, কার কী বলার আছে!

আগের সংবাদ

করোনায় স্বাস্থ্যকর্মীরা অতিরিক্ত ২ মাসের বেতন পাচ্ছেন

পরের সংবাদ

ক্যারিবিয়ানদের পেসে ৯ উইকেট হারিয়ে কাঁপছে ইংল্যান্ড

খেলা ডেস্ক

প্রকাশিত হয়েছে: জুলাই ৯, ২০২০ , ৯:৫৭ অপরাহ্ণ

ওয়েস্ট ইন্ডিজ দল মানেই চার-ছক্কার ফুলঝুড়ি আর গতির ঝড়। ৩ ম্যাচ টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচের দ্বিতীয় দিন উইন্ডিজ দলের গতির কাছে কেঁপেছে ইংলিশরা। এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত আজ দ্বিতীয় দিন পর্যন্ত ৬২.৪ ওভারে ১৮৭ রান তুলতেই ৯ উইকেট হারিয়ে বসেছে তারা। এই ৯ উইকেটের মধ্যে ৩ উইকেট তুলে নিয়েছেন শেনন গ্যাব্রিয়েল। অধিনায়ক জেসন হোল্ডার ৩৮ রান দিয়ে তুলে নেন ৬ উইকেট। ইংল্যান্ডের হয়ে একপ্রান্ত আগলে ৯৭ বলে ৪৩ রান করেন অধিনায়ক বেন স্টোকস। অন্যপ্রান্তে ৪৭ বল খেলে ৩৫রান করেন উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান জস বাটলার।

এদিকে বৃষ্টি বাগড়ায় ম্যাচটির প্রথমদিন খেলা হয় মাত্র ১৭ ওভার ৪ বল। এদিন এই ১৭ ওভার ৪ বল খেলে মাত্র ৩৫ রান করতে সমর্থ হন দুই ইংলিশ ব্যাটসম্যান ররি বার্নস ও জো ডেনলি। এদিন দলের রানের খাতা খোলার আগেই শেনন গ্যাব্রিয়েলের বলে বোল্ড আউট হয়ে সাজঘরে ফিরে যান ডন সিবলি। তবে প্রথম দিন থেকেই উইন্ডিজ পেসারদের গতির কাছে কাঁপছিল ররি বার্নস ও জো ডেনলি। তবে তবুও কোনো মতে তারা প্রথম দিন পার করে দেন। কিন্তু দ্বিতীয় দিনের খেলা শুরু হওয়ার মাত্র ৬ ওভার পরই নিজেদের দ্বিতীয় উইকেট হারিয়ে বসে তারা।

দ্বিতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে দলীয় ৪৮ রান ও ব্যক্তিগত ১৮ রান করে সাজঘরের পথ ধরেন জো ডেনলি। এই উইকেটটিও তুলে নেন শেনন গ্যাব্রিয়েল। দিনের প্রায় শুরুতেই উইকেট হারিয়ে আরো চাপে পড়ে ইংলিশরা। সেই চাপ আরো ঘনীভ‚ত হয় তাদের তৃতীয় উইকেটের পতনের মধ্য দিয়ে। দলের রানের খাতায় আর ৩ রান যোগ হতেই বিদায় নেন ওপেনার ররি বার্নস। এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলে তার উইকেটটিও তুলে নেন গ্যাব্রিয়েল। তিনি চাইছিলেন ধীরে ধীরে খেলে ক্রিজে থিতু হতে। কিন্তু ৮৫ বল খেলে ৩০ রানের পর আর টিকতে পারেননি তিনি। মাত্র ৫১ রানের মধ্যে ৩ উইকেট হারিয়ে ফেলা ইংল্যান্ড এবার ধীরে খেলার নীতিতে আগাতে থাকে। তবে ধীরে খেলার পরও দলের রানের খাতায় আর মাত্র ২০ রান যোগ হতে চতুর্থ উইকেটটি খোয়ায় তারা। এবার ইংলিশদের ডেরায় আঘাত হানেন ক্যারিবিয়ান অধিনায়ক জেসন হোল্ডার। তিনি চতুর্থ ব্যাটসম্যান হিসেব জেক ক্রোলিকে এলবিডবিøউর ফাঁদে ফেলে সাজঘরে পাঠিয়ে দেন। ররি বার্নস যখন আউট হন তখন চলছিল ম্যাচের ২৫তম ওভার। আর বাকি ২০ রান তুলতে ইংল্যান্ড খরচ করে প্রায় ৫০টি বল।

এরপর মধ্যাহ্ন বিরতির আগে ফের আঘাত হানেন অধিনায়ক হোল্ডার। তিনি পঞ্চম ব্যাটসম্যান হিসেবে ওলি পোপকে দলীয় ৮৭ ও ব্যক্তিগত ১২ রানের মাথায় ক্যাচের শিকার বানিয়ে সাজঘরে পাঠিয়ে দেন। ইংল্যান্ড দ্রæত ৫টি উইকেট হারানোর পর একসঙ্গে মিলিত হন দুই অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান বেন স্টোকস ও জস বাটলার। তারাও অন্যদের মতো ধীরে সুস্থে ও দেখে শুনে খেলতে থাকেন। যখন দলের রানের খাতায় ১০৬ রান যোগ করে ও ৪৩ ওভার শেষ হয় তখন দেয়া হয় মধ্যাহ্ন বিরতি। এর পর ৮১ রান তুলতেই আরো ৪ উইকেট হারিয়ে বসে স্বাগতিকরা। ১৪.৩ ওভারে ৬২ রানে ৩ ইউকেট দখল করেন শেনন গ্যাব্রিয়েল।

এমএইচ