রেলের গাছ চুরি, কর্মকতার্র রহস্যজনক ভূমিকা

আগের সংবাদ

করোনায় আসছে নতুন মুদ্রানীতি

পরের সংবাদ

পেলের সঙ্গে মেসি-রোনালদোর তুলনা বেমানান

স্পোর্টস ডেস্ক

প্রকাশিত হয়েছে: জুলাই ৭, ২০২০ , ৭:৪১ অপরাহ্ণ

মেসি রোনালদো এ দুটি নাম আসলেই চোখে ভেসে উঠে দুই ফুটবল শিল্পীর কথা। যারা প্রতিনিয়ত তাদের পায়ের তুলি দিয়ে একে চলছেন ফুটবলের সুন্দর সুন্দর চিত্র। তাদের খেলা দেখার জন্য মানুষ সব কাজ ফেলে দিয়ে স্টেডিয়ামে যায় বা টিভি সেটের সামনে বসে পরে। অনেকের মতে তারা দুজন পৃথিবীর সর্বকালের সেরা দুই ফুটবলার। যারা ফুটবলকে এনে দিয়েছেন ভিন্ন এক মাত্রা।

তবে মেসি রোনালদোর এই ফুটবল কারিশমা ব্রাজিলের কিংবদন্তি ফুটবলার পেলের কারিশমার সঙ্গে তুলনা একেবারে বেমানান। এমনই দাবী করেছেন ব্রাজিলের আরেক বিশ্বকাপজয়ী কিংবদন্তি তোস্তাও। ফিফা.কমের সঙ্গে এক আলাপচারিতায় এমন দাবী করেছেন তিনি।

এ ব্যপারে তিনি বলেন, ‘আমার মতে পেলে মেসি রোনালদোর চেয়ে বহুগুণে ভালো ফুটবলার ছিল। পেলের সঙ্গে তাদের কোনো তুলনাই চলে না। পেলে তাদের চেয়ে আরো বেশি পরিপক্ক ছিল। একজন ফরোয়ার্ডের মধ্যে যে সব গুণ থাকা প্রয়োজন তার সবই ছিল পেলের মধ্যে। তার মধ্যে কোনো খুঁত ছিল না।’

তিনি আরো বলেন, ‘মেসি অসাধারণ খেলোয়াড়। কিন্তু পেলে যে ভাবে বল হেড করতো মেসি সেভাবে হেড করে না। পেলে দুই পা দিয়েই শট করতো। কিন্তু মেসি দুই পা দিয়ে শট করে না। পেলে যেভাবে পুরো মাঠ দাপিয়ে বেড়াতো মেসি সেভাবে মাঠ দাপিয়ে বেড়ায় না। ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো হলো একজন বিশেষ খেলোয়াড়। তবে পেলের ফুটবল মাঠে কারিশমা দেখানোর যেরকম সক্ষমতা ছিল রোনালদোর সেই সক্ষমতা নেই। পেলে যেভাবে পাস দিতো সেভাবে রোনালদো পাস দিতে পারে না।’
তোস্তাওর মতে পেলের সঙ্গে যদি রোনালদো বা মেসির খেলার তুলনা করতে হয় তাহলে দুজনের যে সক্ষমতা আছে তা এক করতে হবে। এরপরই পেলের সঙ্গে তুলনা করা যাবে। এ ব্যপারে তিনি বলেন, ‘ মেসি ও রোনালদোর যে সক্ষমতা আছে তা এক করতে হবে। আর এ দুজন মিলিয়ে যে সক্ষমতা হবে তখন পেলের সঙ্গে তুলনা করা যাবে। পেলের সঙ্গে আলাদা করে তাদের কারো কোনো তুলনাই চলে না।’

তোস্তাওর ভাষায় মেসি রোনালদো তো পেলের সমান নয়ই। এমনকি আর্জেন্টাইন গ্রেট ম্যারাডোনারও পেলের সমকক্ষ না। এ ব্যাপারে তিনি বলেন, ‘পেলে শারিরীকভাবে যে রকম ফিট ছিল ম্যারডেনা সেরকম ফিট ছিল না। পেলে সবদিক দিয়ে ফিট ছিল। সে ছিল পরিপূর্ণ একজন ফুটবলার। ফুটবল বিশ্বে তার সমকক্ষ কেউ নেই।’

এমআই