সিঙ্গাপুর-কুয়ালালামপুরে বিমানের ফ্লাইট স্থগিত

আগের সংবাদ

সীমান্তের পরিস্থিতি যুক্তরাষ্ট্র-রাশিয়া-ফ্রান্সকে জানাল ভারত

পরের সংবাদ

বার্সেলোনায় আর থাকছেন না মেসি!

কাগজ ডেস্ক

প্রকাশিত হয়েছে: জুলাই ৪, ২০২০ , ১১:০৩ পূর্বাহ্ণ

একটা কথা প্রায়ই শোনা যায় মেসি ও বার্সেলোনার মধ্যে সম্পর্কটা প্রেমিক ও প্রেমিকার মতো। যে প্রেমিক তার প্রেমিকাকে অনেক ভালোবাসে। ফলে তাদের সম্পর্কটা দিনকে দিন গভীর থেকে গভীরতম হয়েছে। তবে এবার প্রেমিক মেসির প্রেমিকা বার্সার সঙ্গে সম্পর্কটিতে যেন ফাটল ধরতে যাচ্ছে। জানা গেছে, তাদের মধ্যে ছোটখাটো মনোমালিন্য শুরু হয়ে গেছে। আর এর জের ধরে মেসি চাইছেন আগামী মৌসুম শেষে বার্সাকে গুববাই জানিয়ে দিতে।

এমনই খবর জানিয়েছে, স্পেনিশ রেডিও সাদেনা। রেডিও,র খবরে বলা হয়, মেসি বার্সায় ২০২৩ সাল পর্যন্ত থাকার যে ইচ্ছা প্রকাশ করেছিলেন সেটি থেকে তিনি সরে এসেছেন। তিনি তার মত পরিবর্তন করেছেন।

আগামী মৌসুমেই বার্সার সঙ্গে মেসির চুক্তি শেষ হচ্ছে মেসির। ২০০৪ সাল থেকে অদ্যবদি পর্যন্ত তিনি বার্সেলোনার জার্সি গায়েই মাঠ মাতিয়ে যাচ্ছেন। ২০১৭ সালে তার সঙ্গে সর্বশেষবার চুক্তি স্বাক্ষর করে বার্সা। আর সেই চুক্তির মেয়াদ শেষ হতে যাচ্ছে আগামী মৌসুমে। রেডিও সাদেনা জানিয়েছে, মেসি ও তার বাবা গত কয়েকদিন ধরেই আবার নতুন চুক্তির ব্যাপারে কথাবার্তা চালিয়ে যাচ্ছিল। তবে মেসিই হঠাৎ আবার বেঁকে বসেছেন।

বার্সেলোনার বর্তমান যে নির্বাচিত কমিটি রয়েছে তার সঙ্গে মেসির সম্পর্কটা গত কয়েকমাস যাবতই ভালো যাচ্ছে না। গত জানুয়ারিতে তো তৎকালীন কোচ ভালভার্দের চাকুরিচ্যুত হওয়ার পেছনে মেসিকেই সরাসরি দায়ী করা হয়েছিল।

বলা হয়েছিল, তিনি কোচের কথা শুনতেন না। পরোয়া করতেন না। তবে সেসব অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দিয়েছিলেন মেসি। তাছাড়া বার্সার বর্তমান সভাপতি জোসেফ মারিয়ার বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছিল যে তিনি ক্লাবের সেরা কয়েকজন খেলোয়াড়ের বদনাম রটানোর জন্য লোক ঠিক করেছিলেন। ফলে সভাপতির সঙ্গেও মেসির শীতল সম্পর্ক চলছে। বার্সার প্রতি মেসির নাখোশ হওয়ার আরেকটি অন্যতম কারণ হলো বর্তমান স্কোয়াড। অধিনায়ক মেসি যেভাবে চাইছেন ঠিক সেরকম খেলোয়াড় এনে দিতে পারছে না বার্সা। যেমন মেসি খুব করে চাইছেন নেইমার আবার বার্সায় ফিরে আসুক। কিন্তু এটির ব্যপারে বার্সা খুব বেশি তৎপরতা দেখায়নি।

তবে যেহেতু আগামী মৌসুম পর্যন্ত সময় আছে। ফলে মেসি যদি ইচ্ছে করেন তাহলে তিনি তার সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করতেও পারেন। আর এ জন্য এখন অপেক্ষা করতে হবে। একটা সময় সময়ই সব কিছু বলে দেবে।

এসআর