কিস্তির টাকার অশান্তিতে গৃহবধূর আত্মহত্যা চেষ্টা

আগের সংবাদ

করোনা জয়ে ১৬শ ফুট বিশাল টেবিলে ডিনার পার্টি!

পরের সংবাদ

নয়া প্রেমিকের সঙ্গে পরিমনির ডেট

লাইভ বিনোদন ডেস্ক

প্রকাশিত হয়েছে: জুলাই ১, ২০২০ , ১১:৫৪ অপরাহ্ণ

ড্রাইভিং এ বসে আছে পরিমনি।

অভিনেত্রী পরিমনি বিভিন্ন কারণে প্রায় সময়ই আলোচনায় আসেন মিডিয়া অঙ্গনে। ছবি মুক্তির আগেই মিডিয়ায় নানা ধরনের খবরের জন্ম দিয়ে আলোচিত-সমালোচিত হয়েছেন তিনি। প্রেম, বিয়ে ও বিভিন্ন জনকে তার সঙ্গে জড়িয়ে ট্রল হতো প্রায়ই। এবার অন্যভাবে সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হলেন এই অভিনেত্রী। আর সেটি হলো বিএমডব্লউ গাড়ি এর সঙ্গে ডেটিং করে।

সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকে বিএমডব্লউ এর সঙ্গে ছবি দিয়ে তিনি লেখেন, ‘নয়া প্রেমিক, ফার্স্ট ডেট।’ সঙ্গে সঙ্গে ভাইরাল হয়ে যায় ছবিগুলো। ভরে যায় লাইক, কমেন্টে। অপরদিকে তার গাড়ির সামনে পোজ দেখে অনেকে তার গাড়ির ড্রাইভার হওয়ারও আগ্রহ প্রকাশ করেছে।

বিএমডব্লউ এর সঙ্গে ভাব জমাচ্ছে পরিমনি।

এদিকে গাড়িটি নিয়ে চলছে আলোচনা। আসলেই কি পরিমনি এটি কিনেছেন? কিনলে এত টাকা তিনি কোথায় পেলেন। আবার কেউ কেউ ভাবছেন যদি না কিনেন তাহলে কে উপহার দিতে পারে কোটি টাকার গাড়ি।

এরআগে পরিমনি বিএমডব্লউ গাড়ি নিয়ে ২০১৬ সালের মে মাসে আলোচনায় আসছিলেন পরিমনি। সে সময়ে তিনি তার ফেসবুকে গাড়ির ছবি নিজস্ব ফেসবুকে পোস্ট করেন। উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে তিনি ক্যাপশনে লেখেন, ‘ইয়াহু! আমার নতুন বিএমডব্লিউ। আমি ভালোবাসি কালো-কালো-কালো।’

অভিনয়ের দৃশ্যে পরিমনি।

শামসুন্নাহার স্মৃতি, তিনি আজ পরীমনি নামে পরিচিত। ২৪ অক্টোবর ১৯৯২ সালে সাতক্ষীরায় জন্ম গ্রহণ করেন। বড় হয়েছেন পিরোজপুরে নানা শামসুল হক গাজীর কাছে। এসএসসি পর্যন্ত বরিশালেই পড়াশোনা করেছেন। সেখান থেকেই তিনি তাঁর মাধ্যমিক এবং উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা শেষ করেন। সাতক্ষীরা সরকারি কলেজে বাংলা বিভাগের ছাত্রী ছিলেন। ২০১১ সালে ঢাকায় চলে আসেন এবং বাফায় নাচ শেখেন।

গাড়িটির পেছনের দিক।

২০১৫ সালে ভালোবাসা সীমাহীন চলচ্চিত্রের মাধ্যমে তার বড় পর্দায় অভিষেক হয়। এরপর রানা প্লাজা ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হয়ে তিনি আলোচনায় আসেন। তার অভিনীত উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্র হল প্রণয়ধর্মী আরো ভালোবাসবো তোমায়, লোককাহিনী নির্ভর মহুয়া সুন্দরী, এবং অ্যাকশনধর্মী রক্ত। মুক্তির আগেই ২৩টি চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য চুক্তিবদ্ধ হয়ে রীতিমত হৈ চৈ ফেলে দিয়েছিলেন পরী মনি।

পরিমনি
এমএইচ