এত প্রাণহানির দায়ভার কে নেবে?

আগের সংবাদ

সব নদীর পানি এখনো বিপদসীমার উপরে

পরের সংবাদ

আইসোলেশন সেন্টার গড়ে তোলা নিয়েও রাজনীতি

কাগজ প্রতিবেদক

প্রকাশিত হয়েছে: জুন ৩০, ২০২০ , ১০:৩৬ পূর্বাহ্ণ

করোনা রোগীর চাপ সামলাতে চট্টগ্রামে বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক ব্যক্তি, প্রতিষ্ঠান ও ব্যবসায়ীদের উদ্যোগে নয়টি আইসোলেশন সেন্টার গড়ে উঠেছে। এসব সেন্টারে ১৩২০টি শয্যা রয়েছে। তবে এসব আইসোলেশন সেন্টার নিয়েও শুরু হয়েছে রাজনৈতিক নেতাদের মারপ্যাঁচের খেলা।

আইসোলেশন সেন্টার নিয়ে অনাকাঙ্ক্ষিত রাজনৈতিক ঘটনা নানা আলোচনা, সমালোচনা ও প্রশ্নের জন্ম দিয়েছে। নগর আওয়ামী লীগসহ চট্টগ্রামে বিএমএর কিছু নেতার রেষারেষির ছায়া পড়েছে আইসোলেশন সেন্টারের ওপর। চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের একটি আইসোলেশন সেন্টারে নিয়োগ দেয়া কয়েকজন তরুণ চিকিৎসককে চাকরিচ্যুত করা, একটি আইসোলেশন সেন্টারের উদ্যোক্তা মো. সাজ্জাতের সঙ্গে ফোনালাপে নগর ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক নুরুল আজম রনিকে বিএমএ চট্টগ্রামের সাধারণ সম্পাদক ডা. ফয়সল ইকবালের প্রাণনাশের হুমকির বিষয়টি সমালোচনা ও অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্বের সৃষ্টি করেছে। চিকিৎসকরা বলছেন, আইসোলেশন সেন্টার স্থাপন জনকল্যাণমুখী উদ্যোগ। তবে এতে রাজনীতি ঢুকে গেলে চিকিৎসাসেবা ব্যাহত হবে। বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের উপপরিচালক এবং জেনারেল হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত তত্ত্বাবধায়ক ডা. শফিকুল ইসলাম বলেন, ‘আইসোলেশন সেন্টার গড়ে তোলা অবশ্যই ভালো উদ্যোগ। স্থানীয়ভাবে মাইল্ড এবং সিভিয়ার রোগীদের আইসোলেশন সেন্টারে চিকিৎসার পর ক্রিটিক্যাল রোগীদের আমাদের এখানে পাঠালে আমরা বিশেষায়িত সেবা দিতে পারব। এ প্রসঙ্গে পেশাজীবী সমন্বয় পরিষদ চট্টগ্রাম সভাপতি ডা. এ কিউ এম সিরাজুল ইসলাম বলেন, অনেকেই সামাজিক দায়বদ্ধতা নিয়ে আইসোলেশন সেন্টার তৈরি করছেন। তবে আইসোলেশন সেন্টারের সঙ্গে রাজনীতি মিশানো উচিত নয়। ভালো কাজের প্রতি সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিতে হবে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, চসিকের উদ্যোগে হালিশহরে সিটি কনভেনশন হলে ২৫০ শয্যা, হালিশহর ওয়াপদা মোড়ে প্রিন্স অব চিটাগাং কমিউনিটি সেন্টারে ১০০ শয্যা, বাকলিয়া ওয়েডিং পার্ক কমিউনিটি সেন্টারে ৭০ শয্যা, বাকলিয়া কুইন্স কমিউনিটি সেন্টারে ১০০ শয্যা, ‘বন্দর-পতেঙ্গা-ইপিজেড হাসপাতাল’ নামে পতেঙ্গা উচ্চ বিদ্যালয়ে ৫০ শয্যা, মেরিন সিটি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ৫০০ শয্যা, পতেঙ্গা বাটারফ্লাই পার্কের পাশে ১০০ শয্যা এবং বহদ্দার এক কিলোমিটার এলাকায় যমুনা কমিউনিটি সেন্টারে ১০০ শয্যা এবং হালিশহর বি-ব্লকে ১২ শয্যার আইসিইউসহ ৭০ শয্যার আইসোলেশন সেন্টার প্রস্তুত হচ্ছে।

ডিসি