রৌমারীতে করোনা উপসর্গে নারীর মৃত্যু

আগের সংবাদ

পোস্তাগোলা ব্রিজে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় নিহত ১

পরের সংবাদ

অসহায় মানুষের পাশে ভাস্কর অলক রায়

প্রকাশিত: জুন ২৬, ২০২০ , ১১:৩২ অপরাহ্ণ আপডেট: জুন ২৬, ২০২০ , ১১:৩৭ অপরাহ্ণ

করোনাভাইরাস সংক্রমণে যখন গোটা বিশ্ব স্তব্ধ, একের পর এক দেশ মৃত্যুপুরী ঠিক সেই মুহূর্তে গরিব অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানো এবং তাদের জন্য কিছু করার ব্রত নিয়ে এগিয়ে এলেন বিশিষ্ট ভাস্কর অলক রায়। বর্তমানে করোনাভাইরাসের এই পরিস্থিতিতে নিজেকে হোম কোয়ারেন্টিন বা লকডাউনে রাখতে পারেননি তিনি। ছুটে চলেছেন এক গ্রাম থেকে অন্য গ্রামে। দেশের এই মহামারিতে গরিব অসহায় মানুষের জন্য কিছু করতে চান খ্যাতিমান এই ভাস্কর।

শুক্রবার (২৬ জুন) সকালে চট্টগ্রামের ফতেয়াবাদ গ্রামের চৌধুরীহাটে (পূর্ব) তারই প্রতিষ্ঠিত ‘ভাস্কর্য কেন্দ্র চট্টগ্রাম’এর আয়োজনে ১৪০ জন কর্মহীন মানুষের মাঝে খাদ্য সহায়তা এবং ২টি অক্সিজের সিলিন্ডার বিতরণ করেন।

শিল্পী অলক রায় ভোরের কাগজকে বলেন, এমন দমবন্ধ হওয়া পরিস্থিতি আমরা দেখিনি আগে। করোনাভাইরাসের কারণে মানুষ দিশেহারা। তাই এই অসহায় দুস্থ খেটে খাওয়া মানুষের জন্য কিছু করতে চাই। বিশ্ব মহামারী করোনাভাইরাসের কারণে আমরা মানব জাতি মহাবিপদে আছি। কিছু খেটে খাওয়া মানুষ লকডাউনে থাকার কারণে কাজও করতে পারছে না এবং তাদের খাওয়ার কষ্ট হচ্ছে। তাই আমি নিজে এবং প্রবাসে থাকা ভাই, ভাইয়ের ছেলের সহায়তা নিয়ে তাদের পাশে দাঁড়ানোর এই সিদ্ধান্ত নিয়েছি। দেড় মাস আগেও দিয়েছি। এখনও দিয়ে যাচ্ছি। কারণ অনেক খেটে খাওয়া মানুষ দুবেলা দুমুঠো খাবারের জন্য কষ্ট পাচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, জীবনে কি পেয়েছি কি পেলাম না, এখন এই দুর্যোগ মুহূর্তে ভাবার সময় নেই। সরকারি ত্রাণসামগ্রী বিতরণ হলেও এখনো সমাজে অনেক মানুষ আছে যারা ওই ত্রাণসামগ্রী থেকে বঞ্চিত রয়েছেন।

তিনি বলেন, সামাজিক দায়বদ্ধতা এবং মানবতার স্বার্থে আমি যখন কাজে নেমেছি। তখন গ্রামের কিছু তরুণও সাড়া দিয়ে আমার পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন এবং সহযোগিতা করছেন। সমাজের সব সামর্থ্যবানের উচিত এই সময়ে দুস্থ মানুষের পাশে এসে দাঁড়ানো।

নকি

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়