সন্দেহের তীর সাঙ্গাকারা-মাহেলার দিকে

আগের সংবাদ

বাজেটের পরিসংখ্যানে আরো মনোযোগী হওয়া প্রয়োজন

পরের সংবাদ

ভেজাল স্যানিটাইজারে সয়লাব বাজার

প্রকাশিত: জুন ২০, ২০২০ , ৮:১৫ অপরাহ্ণ আপডেট: জুন ২১, ২০২০ , ১২:১১ পূর্বাহ্ণ

কোভিড-১৯ ভাইরাস থেকে সুরক্ষিত থাকতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পরামর্শানুযায়ী একটি নির্দিষ্ট দুরত্ব বজায় রাখাসহ মাস্ক ব্যবহার ও হাত পরিষ্কার রাখছে মানুষ। তবে এ সুযোগেই কিছু অসাধু ব্যক্তি ভেজাল, মাণহীন ও নকল জীবাণুনাশক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার বাজারজাত করে সাধারণ নাগরীকদের স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে ফেলছে।

হ্যন্ড স্যানিটাইজার। ছবি: ভোরের কাগজ।

শনিবার (২০ জুন) রাজধানীর বেশ কয়েকটি ওষুধের দোকান ও ফুটপাতে অভিযান চালিয়ে এমন দৃশ্য দেখা যাওয়ায় অর্ধ লক্ষাধিক টাকা জরিমাণা করা হয়। অভিযানের নেতৃত্বে থাকা ঢাকা জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাহনাজ হোসেন ফারিবা ভোরের কাগজকে এসব তথ্য জানান।

হ্যন্ড স্যানিটাইজার। ছবি: ভোরের কাগজ।

মাহনাজ বলেন, শনিবার বেলা ১১টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তরের দুজন তত্ত্বাবধায়ক ও ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) রমনা অঞ্চলের সহকারী কমিশনার শেখ মোহাম্মদ শামীমের সহায়তায় অভিযান চালানো হয়। সে সময় রাজধানীর শাহবাগ, আজিজ সুপার মার্কেট ও তোপখানা রোড এলাকার মেসার্স শাহরীন ড্রাগস, মেসার্স মুক্তি ড্রাগ স্টোর, মেসার্স ওয়ার্ল্ড ফার্মা, মেসার্স সেবা মেডিসিন কর্ণার, মেসার্স মেডিকোর্স ফার্মেসী ও মেসার্স ভুঁইয়া ফার্মেসিতে অভিযানে গিয়ে দেখা যায় স্যাবলন, ভাইটা কেয়ার ও গ্রীণ টাচ ইন্সটেন্ট হ্যান্ড স্যানিটাইজারসহ নানা মানহীন করোনা সুরক্ষা সামগ্রী বিক্রি করা হচ্ছে।

হ্যন্ড স্যানিটাইজার। ছবি: ভোরের কাগজ।

তিনি বলেন, এসব পন্যের বিষয়ে তারা প্রয়োজনীয় কাগজ দেখাতে পারেনি। এছাড়াও ওইসব এলাকার ফুপাতের দোকানগুলোতেও এমন দৃশ্য দেখা যায়। তাই মোট ৮টি মামলায় ৫১ হাজার টাকা জরিমাণা করাসহ ভবিষ্যতের জন্য সাবধান করা হয়।

হ্যন্ড স্যানিটাইজার। ছবি: ভোরের কাগজ।

সাধারণ নাগরীকদের এসব কেনার ক্ষেত্রে সচেতন হওয়ার অনুরোধ জানিয়ে তিনি আরো বলেন, এসব ব্যবহারের ফলে সুরক্ষা থাকার চেয়ে আরো স্বাস্থ্য ঝুঁকি তৈরী হচ্ছে। তাই কেনার আগে স্যানিটাইজার দেখে নিন। বোতল বা টিউবের গায়ে এমএফজি লাইসেন্স, এমএ নং পরীক্ষা করে কিনুন। ডিএমপি রমনা অঞ্চলের সহকারী কমিশনার শেখ মোহাম্মদ শামীম বলেন, ভেজালকারীদের ছাড় নেই। আমাদের এ অভিযান ভবিষ্যতেও অব্যাহত থাকবে।

এমএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়