৭১ শতাংশ হাসপাতালে নিম্নমানের নিরাপত্তা সামগ্রী

আগের সংবাদ

করোনাকালে অশ্রুবর্ষণের আষাঢ় এলো

পরের সংবাদ

আগ্রহীদের পর্যায়ক্রমে সৌদি থেকে ফেরত আনা হবে

প্রকাশিত: জুন ১৫, ২০২০ , ২:১২ অপরাহ্ণ আপডেট: জুন ১৫, ২০২০ , ৩:৩৯ অপরাহ্ণ

সৌদিআরব থেকে দেশে ফিরতে আগ্রহী বাংলাদেশি শ্রমিকদের পর্যায়ক্রমে দেশে ফেরত আনার বিষয়ে সরকারের সিদ্ধান্তের বিষয়ে সৌদিআরব সম্মতি প্রকাশ করেছে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ. কে. আব্দুল মোমেনের সাথে ফোনে আলাপকালে সৌদিআরবের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফয়সাল বিন ফারহান আল সৌদ (Faisal bin Farhan Al Saud) এ সিদ্ধান্তের বিষয়ে একমত প্রকাশ করেন।

কোয়ারেন্টাইন সুবিধার নিশ্চিত করতে সৌদিআরব থেকে দেশে ফিরতে আগ্রহী প্রবাসী শ্রমিকদের পর্যায়ক্রমে দেশে আনা হবে। তবে সৌদি আরব থেকে বাংলাদেশিদের ফেরত আনার ক্ষেত্রে আটকে পড়া উমরাহজ্জ পালনকারী, সেদেশে অধ্যয়নরত ছাত্র এবং মহিলা গৃহকর্মীদের অগ্রাধিকার দেওয়া হবে।

করোনা পরবর্তী পরিস্থিতিতে সৌদিআরবের কৃষি উৎপাদন বৃদ্ধি ও মৎস্য চাষে বাংলাদেশের কৃষি শ্রমিকদের কাজে লাগাতে অনেুরোধ করলেন ড. মোমেন। করোনা পরবর্তী পরিস্থিতিতে কৃষি উৎপাদনে সৌদিআরবের কোম্পানি সেদেশের বাইরে অন্য দেশেও বাংলাদেশের দক্ষ কৃষি শ্রমিকদের কাজে লাগিয়ে খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পারবে বলে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী উল্লেখ করেন। সৌদিআরবে অন্যখাতে কর্মরত বাংলাদেশি শ্রমিকদের কৃষিখাতে কাজে লাগানোর অনুরোধ করেন ড. মোমেন। তাছাড়া বিপুল সংখ্যক তথ্য প্রযুক্তিতে দক্ষ বাংলাদেশিদের সৌদিআরব কাজে লাগাতে পারবে বলে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী উল্লেখ করেন। বাংলাদেশের কৃষি শ্রমিক এবং তথ্য প্রযুক্তিখাতে দক্ষদের কাজে লাগানোর বিষয়ে ফয়সাল বিন ফারহান আল সৌদ উৎসাহ প্রকাশ করেন।

এসময় সৌদিআরবকে বাংলাদেশ থেকে হালাল মাংস আমদানির আহবান জানান বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী। এ বিষয়ে বাংলাদেশ ও সৌদিআরবের যৌথ প্রকল্প স্থাপন করা যেতে পারে বলে উল্লেখ করেন তিনি। বাংলাদেশ থেকে উন্নত সবজি পিপিই আমদানির সুযোগ আছে বলেও জানান ড. মোমেন।

ওআইসি’র সদস্য দেশগুলোর ওপর করোনা মহামারির প্রভাব মোকাবিলায় করণীয় নির্ধারণ, অর্থনীতি পূনরুদ্ধার ও অর্থনৈতিক স্থিতিশীলতা নিশ্চিতকরণ, জনগণের জীবন ও জীবিকা রক্ষা এবং COVID-19 Response and Recovery Fund গঠনের বিষয়ে আলোচনার জন্য ওআইসি’র পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের একটি বিশেষ ভার্চুয়াল সভা আয়োজনের বিষয়ে সৌদিআরবের সহায়তা চান ড. মোমেন। এ সভা আয়োজনে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণের বিষয়ে আশ্বস্ত করেন সৌদিআরবের পররাষ্ট্রমন্ত্রী। প্রবাসী শ্রমিকরা কর্মহীন হলে তাদের প্রশিক্ষণসহ কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে COVID-19 Response and Recovery Fund অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারবে বলে এসময় বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী উল্লেখ করেন।

মিয়ানমারের জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর দ্রুত স্বদেশে প্রত্যাবর্তনের ক্ষেত্রেও সৌদিআরবের সহযোগিতা চান ড. মোমেন। এ বিষয়ে সৌদি আরবের সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে বলে জানান ফয়সাল বিন ফারহান আল সৌদ। এসময় বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী রোহিঙ্গা বিষয়ে সৌদিআরবের অব্যাহত সাহায্যের জন্য সৌদি সরকারকে ধন্যবাদ জানান।

তাছাড়া সৌদিআরবে করোনা আক্রান্ত বাংলাদেশিদের চিকিৎসাসহ প্রবাসী বাংলাদেশিদের সার্বিক সহযোগিতার জন্যও সৌদি সরকারকে ধন্যবাদ দিলেন ড. মোমেন।

এসএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়