মোহাম্মদ নাসিমের রোগ মুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিল

আগের সংবাদ

সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাহারা খাতুন হাসপাতালে ভর্তি

পরের সংবাদ

করোনা সন্দেহে মা-কে হাসপাতালের গেটে ফেলে গেছে সন্তান

কাগজ প্রতিবেদক

প্রকাশিত হয়েছে: জুন ৬, ২০২০ , ৬:৪৮ অপরাহ্ণ

করোনা আক্রান্ত সন্দেহে গর্ভধারিণী মা-কে হাসপাতালের গেটের সামনে ফেলে গেছে এক সন্তান। খবর পেয়ে পুলিশ তাকে হাসপাতালের করোনে ইউনিটে ভর্তি করেছে।

শনিবার (৬ জুন) বিকেল ৩টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটের নতুন ভবন ৭০২ নম্বর ওয়ার্ডে তাকে ভর্তি করানো হয়।

ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ক্যাম্পের সহকারী ইনচার্জ আব্দুল খান জানান, দুপুরে খবর পাই এক নারী হাসপাতালের নতুন ভবনের সামনে পড়ে আছে। তাকে তার ছেলেরা ফেলে গেছে করোনা সন্দেহে। পরে নতুন ভবনের সামনে থেকে তাকে উদ্ধার করা হয়। তার প্রচুর শ্বাসকষ্ট হচ্ছিলো। তাকে করোনা ইউনিট নতুন ভবনের ৭০২ নম্বর ওয়ার্ডের ১০ নম্বর বেডে ভর্তি করা হয়।

তিনি জানান, ওই নারীর নাম মনোয়ারা বেগম (৫০) ওরফে মনিরা। তার স্বামীর নাম শাহজাহান মিয়া। বাড়ি ময়মনসিংহ হালুয়াঘাট উপজেলার জয়রামপুর গ্রামে। পরিবার নিয়ে মিরপুর কমার্স কলেজের পাশে একটি বস্তির সালামের বাড়িতে থাকতেন।

ওই নারীর বরাত দিয়ে পুলিশ কর্মকর্তা জানান, ওই নারীর শ্বাসকষ্ট হচ্ছিলো। এজন্য তার বাড়িওয়ালা সালাম তাকে বাড়ি থেকে অন্যত্র নিয়ে যেতে বলে। এরপর ছেলে মোজাম্মেল সরকার ও বাড়িওয়ালা সালাম তাকে দুইদিন আগে ঢাকা মেডিকেলের নতুন ভবনের সামনে ফেলে যায়। এরপর আর কোনো খোঁজ নেননি। তবে সে ৩দিন যাবৎ এখানে ঝড়বৃষ্টিতে ভিজে পড়ে আছে বলে জানিয়েছে আশপাশের এ্যাম্বুলেন্স চালকরা।

চিকিৎসকের বরাত দিয়ে ক্যাম্প ইনচার্জ আব্দুল খান জানান, ওই নারীর অবস্থা বেশি ভালো নয় বলে জানিয়েছেন তারা।

ঢামেক হাসপাতাল নতুন ভবনের ওয়ার্ড মাস্টার আবুল হোসেন জানান, ওই নারীকে ভর্তি করা হয়েছে। তার শ্বাসকষ্ট হচ্ছে। এখন তার কিছু টেস্ট করা হচ্ছে এবং করোনা টেস্টও করানো হবে।

এমএইচ