এবার করোনা সুরক্ষায় রোবটের ব্যবহার

আগের সংবাদ

করোনাযুদ্ধে জীবন দিলেন আরো এক পুলিশ সদস্য

পরের সংবাদ

পরিবারেই যৌন হেনস্থার শিকার নওয়াজের ভাইজি!

বিনোদন ডেস্ক

প্রকাশিত হয়েছে: জুন ৪, ২০২০ , ৭:২১ অপরাহ্ণ

নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকির ভাই মিনাজের বিরুদ্ধে তার ভাইজির যৌন হেনস্থার অভিযোগ নিয়ে জোর শোরগোল শুরু হয়েছে। যদিও নওয়াজের দাদা সামাস দাবি করেছেন, ইচ্ছে করে তাদের বিরুদ্ধে মিথ্যে অভিযোগ করা হচ্ছে। ঠিক সময়ে সত্যি সবার সামনে আসবে বলেও দাবি করেন সামাস।

নওয়াজের দাদার ওই দাবির পর ফের বিস্ফোরক দাবি অভিনেতার ভাইজির। স্পটবয়ের খবর অনুযায়ী, দিল্লিতে মিনাজের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ দায়েরের খবর প্রকাশ পেতেই তাকে ফোন করেন নওয়াজ। তিনি এমন কেন করছেন বলেও ভাইজিকে প্রশ্ন করেন নওয়াজ। শুধু তাই নয়, তার যদি কোনও প্রয়োজন থাকে, তাহলে তাকে নির্দিধায় জানাতে পারেন বলেও নাকি ভাইজিকে আর্থিক সাহায্যের প্রস্তাব দেন বলিউড অভিনেতা। শুধু তাই নয়, মিনাজ তার যৌন হেনস্থা করেছেন বলে তিনি যখন জ্যেঠু নওয়াজের কাছে অভিযোগ করেন, তখন ভাইয়ের পক্ষ নিয়ে চুপ করে থাকেন অভিনেতা। এবার অভিযোগ দায়ের হতেই বিপাকে পড়ে নওয়াজ তাকে ফোন করে কথা বলেন বলেও দাবি করেন অভিনেতার ভাইজি।

তিনি আরও দাবি করেন, ৯ বছর বয়সে মিনাজ যখন তার যৌন হেনস্থা করেন প্রথমে বোঝেননি তিনি। এরপর ১৩ বছর বয়সে ফের মিনাজ তার সঙ্গে সেই একইরকমের ব্যবহার করতে শুরু করেন। ওই সময় বাড়ির অন্যদের বিষয়টি জানালেও, তারা কেউ গুরুত্ব দেননি। এরপরই জ্যেঠু অর্থাত নওয়াজকে ফোন করে তিনি সব কথা বলেন। কিন্তু নওয়াজও ছোট ভাই মিনাজের পক্ষ নিয়ে তার কোনও অভিযোগ শুনতে চাননি। শুধু তাই নয়, কাকা হয়ে কেন মিনাজ তার সঙ্গে এমন ব্যবহার করবেন বলেও পালটা প্রশ্ন তোলেন নওয়াজ।

শুধু তাই নয়, নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকির পরিবারের মতের বিরুদ্ধে গিয়ে তিনি পালিয়ে বিয়ে করেছেন বলে ওই পরিবারের তরফে তার শ্বশুর, শাশুড়ি, স্বামীর বিরুদ্ধে একের পর এক মিথ্যে অভিযোগ দায়ের করা হচ্ছে। মিথ্যে মামলায় তার শ্বশুরবাড়ির লোকদের ফাঁসানোর চেষ্টা করা হচ্ছে বলেও নওয়াজের ভাইজি দাবি করেন।

এসবের পাশাপাশি তিনি আরও বলেন, তার বড়মা অর্থাত আলিয়া সিদ্দিকি বিচ্ছেদের মামলা দায়ের করেছেন, তা জানেন তিনি। ওই পরিবারের মেয়েরা অনেক কিছু সহ্য করেও চুপ করে থাকেন, শুধুমাত্র তাদের সন্তানদের মুখের দিকে তাকিয়ে। এমনও দাবি করেন নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকির ভাইজি। তথ্য: জিনিউজ।

পিআর