এনটিভির অনুষ্ঠানপ্রধান মোস্তফা কামাল আর নেই

আগের সংবাদ

স্বরাষ্ট্র ও আইনমন্ত্রীর কাছে বিশিষ্টজনের স্বারকলিপি

পরের সংবাদ

ভাড়া বৃদ্ধির প্রতিবাদে ২ জুন সারাদেশে বিক্ষোভ

কাগজ প্রতিবেদক

প্রকাশিত হয়েছে: মে ৩১, ২০২০ , ৪:৫২ অপরাহ্ণ

বাসের অস্বাভাবিক ভাড়া বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত অযৌক্তিক, অবিলম্বে এই গণবিরোধী সিদ্ধান্ত বাতিলের দাবি জানিয়েছে বাম গণতান্ত্রিক জোট। যদি ভাড়া বাড়ানোর সিদ্ধান্ত সরকার বাতিল না করে তা হলে ২ জুন সারাদেশে বিক্ষোভ করবে বলে হুসিয়ারী দিয়েছেন জোটের নেতারা।

রবিবার (৩১ মে) সকাল সাড়ে এগারটায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আয়োজিত শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে অনুষ্ঠিত মানববন্ধন-বিক্ষোভ কর্মসূচিতে এ দাবি জানান জোটের নেতারা।

এসময় বিক্ষোভ কর্মসূচিতে সভাপতিত্ব করেন বাম গণতান্ত্রিক জোটের সমন্বয়ক ও বাসদ নেতা বজলুর রশীদ ফিরোজ। সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- সিপিবি’র অন্যতম সম্পাদক রুহিন হোসেন প্রিন্স, বাসদ (মার্কসবাদী) নেতা মানস নন্দী, গণতান্ত্রিক বিপ্লবী পার্টির সাধারণ সম্পাদক মোশরেফা মিশু, বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির পলিটব্যুরোর সদস্য আকবর খান, বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক আন্দোলনের আহ্বায়ক হামিদুল হক।

সমাবেশে আরো উপস্থিত ছিলেন- বাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য রাজেকুজ্জামান রতন, সিপিবির সহকারী সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ জহির চন্দন, সিপিবি প্রেসিডিয়াম সদস্য আব্দুল্লাহ আল কাফি রতন।

সমাবেশে নেতৃবৃন্দ বলেন, সম্পূর্ণ অযৌক্তি ও অন্যায়ভাবে একতরফা মালিকদের স্বার্থ রক্ষায় বাসের ভাড়া ৮০ ভাগ বৃদ্ধি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। যা কর্মহীন ও বেকার হয়ে পড়াসহ করোনায় বিপর্যস্ত সাধারণ মানুষের জন্য মড়ার উপর খাড়ার ঘা হিসেবে বাড়তি চাপ তৈরি করবে। তারা বলেন, বাসের ভাড়া পূর্বেই যা বৃদ্ধি করা হয়েছিল সেটাই ছিল অযৌক্তিক। সেই সময়ও জনগণ তা মানে নি। নতুন করে বাস ভাড়া বৃদ্ধির এই সিদ্ধান্ত বাতিলের দাবি জানান নেতৃবৃন্দ।

নেতৃবৃন্দ বলেন, আন্তর্জাতিক বাজারে জ্বালানি তেলের দাম এক তৃতীয়াংশে নেমে আসার পরও আমাদের দেশে তেলের দাম কমানো হয়নি। ফলে জ্বালানির দাম কমালে ভাড়া বৃদ্ধির প্রয়োজন হবে না। নেতৃবৃন্দ বাসের ভাড়া বৃদ্ধি না করে বিভিন্ন সড়কে সরকারি টোল আদায় বন্ধ, পেট্রোল ও ডিজেলের দাম কমানোর দাবি করেন। তারপরও যদি মনে করেন বাস মালিকদের ক্ষতি হবে তাহলে পোষাক খাতসহ অন্যখাতে যেমন প্রণোদনা দেয়া হয়েছে তেমন প্রণোদনা বা ভর্তুকী সরকারের পক্ষ থেকে দেয়া হোক। কোন মতেই জনগণের উপর মূল্যবৃদ্ধির বোঝা চাপানো যাবে না।

এমএইচ