শেষ দেখাটাও হচ্ছে না, লিবিয়াতেই দাফন

আগের সংবাদ
তাহসান-মিথিলা

তাহসান-মিথিলার মেয়ের প্রথম অভিনয় (ভিডিও)

পরের সংবাদ

বিশেষ সাক্ষাৎকার

সুন্দর এসে আবার ফিরে যাবে

প্রকাশিত: মে ৩০, ২০২০ , ১:৩৬ অপরাহ্ণ আপডেট: মে ৩০, ২০২০ , ১:৩৯ অপরাহ্ণ

ধ্রুব এষ
প্রচ্ছদ শিল্পী

প্রচ্ছদ শিল্পের জগতে তাকে বলা হয় সুররিয়ালিজমের প্রবর্তক। যে যেভাবে বলুক না কেন, ধ্রুব এষ গত তিন দশকে তার নিত্যনতুন, বহুমাত্রিক প্রচ্ছদ দিয়ে সত্যি সত্যিই একটি ঘোরের সৃষ্টি করেছেন। এ পর্যন্ত প্রায় তিরিশ হাজার প্রচ্ছদ এঁকেছেন এই শিল্পী। সম্ভবত তার চেয়ে বেশি প্রচ্ছদ আর কেউ আঁকেননি। শুধু কি ছয় বাই নয় ইঞ্চির প্রচ্ছদ তৈরি করেন ধ্রুব এষ! না। গল্প, ছড়া, সায়েন্স ফিকশন, অতিপ্রাকৃত উপন্যাস, রহস্য গল্প, রূপকথা- লেখনীর জাদুতে সাহিত্যমোদীদেরও মোহাবিষ্ট করেছেন তিনি। কেমন কাটছে এই শিল্পী ও সাহিত্যিকের করোনাকাল?

ভোরের কাগজের এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আঁকা আঁকি একেবারেই বন্ধ। এখন বই পড়ছি আর সিনেমা দেখছি। আমি প্রতিদিন প্রচুর সিনেমা দেখি। রাজ্যের সিনেমা আমার কালেকশনে। বইয়ের মধ্যে এই মুহূর্তে জীবনানন্দবিষয়ক নানা বই পড়ছি।

করোনা সময়টায় আপনার চেনা পৃথিবীটা বদলে গিয়েছে বলে মনে হচ্ছে কী? এর জবাবে ধ্রুব এষ বলেন, নাহ্। বরং মনে হয়, আমার চেনা পৃথিবীটাই ফেরত এসেছে। আমি তো এই পৃথিবী চিনতাম না। আমি তো মফস্বলে সবুজ-টবুজ দেখেই বড় হয়েছি। মফস্বলের গ্রাম তো সবার এইরকম। হুবহু সবুজ তো আর ফিরেনি। ফিরবেও না কোনোদিন। কিন্তু আংশিকভাবে ফিরেছে বলে মনে করছি। ঘর থেকে বেরুলেই দেখি প্রাণ ভরা। এত সবুজ! এত সবুজ! গতকাল বৃহস্পতিবার দুই বন্ধু মিলে সারাদিন রমনা পার্কে ছিলাম। কত বছর পর এমন বুক ভরানো সবুজ দেখলাম! সবুজ মানে শুধু সবুজ রং বোঝায় না, সবুজ মানে আরো অনেক কিছু। যত সবুজ ছিল সবই ফিরে এসেছে মনে হয়েছে। এর মধ্যে পাখির ডাকও শুনেছি। তাই এই মুহূর্তে বিশ্ব কবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের একটা কথা বারবার মনে পড়ছে- ‘সুন্দরও এসে ফিরে যায়’। এই যে সুন্দর ফিরে এসেছে, এই সুন্দরকেও আমরা ধরে রাখতে পারব না। সুন্দর এসে আবার ফিরে যাবে।

করোনার ধাক্কা বাংলাদেশ সামলে নিতে পারবে বলে মনে হয়? জবাবে এই শিল্পী বলেন, আমরা তো সবসময়ই ঘুরে দাঁড়াতে পারিই। আমি বিশ্বাস করি, এবারো ঘুরে দাঁড়াতে পারব। তবে লকডাউন অনেকে মানছে না। এটা ব্যক্তি মানুষের ব্যাপার। অবশ্য আমি মানছি। আমি আশা করব, নিজে বাঁচতে এবং দেশকে বাঁচাতে কষ্ট হলেও লোকজন লকডাউন মানুক। নইলে নিজে বিপদে পড়ার পাশাপাশি আরেকজনকেও বিপদে ফেলাও হচ্ছে।

এমআই

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়