শিল্প মন্ত্রণালয়ের কাজে নতুন গতি এসেছে: শিল্পমন্ত্রী

আগের সংবাদ
জে-১১ বিমান

ভারত সীমান্তে চীনের যুদ্ধ বিমান, বড় প্রস্তুতি!

পরের সংবাদ

গাইবান্ধা জেলা হাসপাতালে পিবিআই কন্সটেবলের তাণ্ডব

গাইবান্ধা প্রতিনিধি

প্রকাশিত হয়েছে: মে ২৭, ২০২০ , ৬:৫৪ অপরাহ্ণ

পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) এর চিকিৎসাধীন এক কন্সটেবল গাইবান্ধা জেলা হাসপাতালে মেডিসিন ওয়ার্ড, নার্স ডিউটি রুম, জরুরী বিভাগসহ হাসপাতাল চত্বরে থাকা ৫টি এ্যাম্বুলেন্স ভাংচুর করেছে। এই ঘটনায় গাইবান্ধা সদর থানায় লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে।

জানা গেছে, দিনাজপুর জেলার ঘোড়াঘাট থানার জামালপুর ইউনিয়নের আলিম উদ্দীনের ছেলে সাইফুল ইসলাম পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) ঢাকা মেট্রো দক্ষিণে কন্সটেবল পদে কর্মরত। তিনি ঈদের আগে ছুটিতে বাড়ি আসে। ঈদের পরের দিন মঙ্গলবার (২৬ মে) তার শ্বশুরবাড়ি গাইবান্ধার সাঘাটা উপজেলার বোনারপাড়া বেড়াতে আসেন। ওই দিন সাইফুল ইসলাম শশুরবাড়ীর লোকজনকে মারধর করে এবং ঘড়ের জিনিস পত্র ভাংচুর করে।

পরে শ্বশুরবাড়ীর লোকজন অস্বাভাবিক আচরণ করায় সাইফুলকে গাইবান্ধা জেলা হাসপাতালে ভর্তি করে। ডাক্তার সাইফুলকে ঘুমের ইনজেকশন দিয়ে অজ্ঞান করে রাখে। আজ ভোর রাতে জ্ঞান ফিরলে সাইফুল সিগারেট চায়। কিন্তু সিগারেট না পাওয়ায় সাইফুল মেডিসিন ওয়ার্ডে স্যালাইনের স্ট্যান্ড দিয়ে ভাংচুর শুরু করে। সেখানে থাকা অন্যান্য রোগীরা পালিয়ে রক্ষা পায়। পরে সাইফুল হাসপাতালের নার্স ডিউটি রুম ও জরুরী বিভাগে ভাংচুর চালায়। এক পর্যায়ে সে হাসপাতাল চত্বরে থাকা ৫টি এ্যাম্বুলেন্সেও ভাংচুর করে।

জেলা হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার(আরএমও) মোঃ হারুন অর রশিদ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, কন্সটেবল সাইফুলের বিরুদ্ধে হাসপাতালে ভাংচুর এবং সরকারি কাজে বাধা দেওয়ায় গাইবান্ধা সদর থানায় লিখিত অভিযোগ দেওয়া হয়েছে। এছাড়া বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য পদক্ষেপ নয়ো হয়েছে। তিনি আরও বলেন, তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়েছে।

গাইবান্ধা সদর থানার ওসি খান মোঃ শাহরিয়ার বলেন, হাসপাতাল থেকে থানায় লিখিতভাবে ঘটনাটি জানানো হলে তা সাধারণ ডায়েরি হিসেবে লিপিবদ্ধ করা হয়েছে।

ডিসি