সন্তানের সাথে গড়ে তুলুন বন্ধুত্ব

লকডাউনে চাপ নয়, সন্তানকে বন্ধু বানান

আগের সংবাদ
সরকারি নির্দেশনা মেনে জামাত

শর্ত মেনে মসজিদেই ঈদের জামাত

পরের সংবাদ

শাহরুখের নায়িকা প্রিয়া গিল দর্শকমনে বিস্মৃত

কাগজ প্রতিবেদক

প্রকাশিত হয়েছে: মে ২৪, ২০২০ , ২:৩২ অপরাহ্ণ

শুরুটা ছিল চমক লাগানো। কিন্তু তারপরও ক্যারিয়ারে স্থায়িত্ব ছিল মাত্র চার থেকে পাঁচ বছর। শাহরুখের অতীত নায়িকা প্রিয়া গিল দর্শকমনে বিস্মৃত। পাঞ্জাবের মেয়ে প্রিয়া কলেজজীবন থেকেই অংশ নেন সৌন্দর্য প্রতিযোগিতায়। বিভিন্ন মঞ্চ থেকে মিলেছে সেরার স্বীকৃতিও। এরপর তিনি মিস ইন্ডিয়ায় প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন বলে ঠিক করেন। ১৯৯৫ সালে ২০ বছর বয়সি এই প্রতিযোগিতায় তৃতীয় পুরুষ্কার জিতে নেন।

মিস ইন্ডিয়ায় অংশ নেয়ার আগেই প্রিয়ার বাগদান হয়ে গিয়েছিল। তাঁর বাবা ছিলেন সেনাবাহিনীতে। প্রিয়ার বিয়েও ঠিক হয়েছিল সেনাবাহিনীর এক পাইলটের সঙ্গে। কিন্তু এক মর্মান্তিক বিমান-দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয় সেই পাইলটের।

ঘটনার জেরে শোকে ভেঙে পড়েন প্রিয়া। সে সময় তাঁকে নতুন কোনো কাজে ব্যস্ত রাখতে বাড়ি থেকেই পরামর্শ দেয়া হয়। সে সময় বলিউডে এক ঝাঁক নতুন নায়িকা উঠেও আসছিলেন। সুস্মিতা সেন, রানি মুখোপাধ্যায়ও সেই বছর থেকেই হিন্দি ছবিতে কাজ শুরু করেন। পরের বছর ইন্ডাস্ট্রিতে পা রাখেন ঐশ্বর্যা রাই। সে সময় নতুন মুখ খুঁজছিল অমিতাভ বচ্চনের প্রযোজনা সংস্থা এবিসিএল। নবাগত আরশাদ ওয়ারসি, চন্দ্রচূড় সিংহ এবং প্রিয়া অভিনীত ‘তেরে মেরে সপনে’ ছবির চিত্রনাট্য লিখেছিলেন টিগমাংশু ধুলিয়া।

‘জোশ’ ছবিতে শাহরুখের সঙ্গে প্রিয়া গিল

এই ছবি বক্স অফিসে সফল হয়নি। কিন্তু ইন্ডাস্ট্রিতে পরিচিতি পান প্রিয়া। তাঁর কাছে কাজের সুযোগ আসতে থাকে। তবে কোনো ছবিই বক্স অফিসে সফল হচ্ছিল না। শেষ অবধি তিনি পরিচিতি পান ‘সির্ফ তুম’ ছবিতে। এই ছবিতে প্রিয়ার সারল্যে ভরা নিষ্পাপ মুখ পছন্দ হয়েছিল দর্শকদের। সঞ্জয় কপূর, সুস্মিতা সেন অভিনীত এই ছবি বক্স অফিসে সফল হয়। কিন্তু তারপরও ইন্ডাস্ট্রিতে প্রিয়ার ভাগ্য সুপ্রসন্ন হয়নি।

হতাশ প্রিয়া ভাবছিলেন ইন্ডাস্ট্রি থেকে বিদায় নেবেন। কিন্তু সে সময়েই আসা একটি অফার তাঁর সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করে। প্রিয়া সুযোগ পান শাহরুখ খানের সঙ্গে ‘জোশ’ ছবিতে কাজ করার। মনসুর খান ‘জোশ’ ছবির জন্য প্রথমে শাহরুখ ও আমির দু’জনকে ভেবেছিলেন। কিন্তু আমির শেষ অবধি ছবি থেকে সরে দাঁড়ান। তাঁর জায়গায় সুযোগ পান চন্দ্রচূড় সিংহ। আমির কাজ না করায় সরে দাঁড়ান রানি মুখোপাধ্যায়ও। তাঁর বদলে ছবিতে কাজ করেন প্রিয়া গিল। কিন্তু কোনো ভাবেই বলিউডে প্রথম সারিতে আসতে পারেননি প্রিয়া। বছরে একটি মাত্র ছবি, সেখানেও পার্শ্বনায়িকার ভূমিকায়। ফলে বাধ্য হয়ে বলিউডের বাইরে পঞ্জাবি ও দক্ষিণী ছবিতেও কাজ করেন তিনি।

সিনেমার দৃশ্যে প্রিয়া গিল

কয়েক বছরেও ছবি পরিবর্তিত না হওয়ায় প্রিয়া অভিনয় ছেড়ে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেন। এরপর ইন্ডাস্ট্রি থেকে প্রায় উধাও হয়ে যান তিনি। অভিনয় তো বটেই, তাঁকে দেথা যায়নি কোনো অনুষ্ঠানেও।

মাঝে মাঝে তাঁকে এক লঙ্গরখানায় দেখা গিয়েছিল। প্রিয়া চোখে পড়েছেন ভারতীয় সেনাবাহিনীর অনুষ্ঠানেও। কিন্তু এর বাইরে তাঁকে দেখাই যায়নি। সোশ্যাল মিডিয়াতেও তাঁর কোনো অফিশিয়াল প্রোফাইল নেই। ২০১৬ সালে তাঁকে দুবাইয়ে দেখেছিলেন এক ভক্ত। প্রিয়ার সঙ্গে ছবি তুলে তিনি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ারও করেন। পরে বছর প্রিয়াকে দেখা যায় প্যারিসে একটি ব্যাগের দোকানে। সেখানেও এক অনুরাগী তাঁকে চিনে ফেলেন।

প্রামাণ্য তথ্য না থাকলেও কোনো কোনো সূত্রের দাবি, প্রিয়া বিয়ে করে ডেনমার্কে আছেন। তবে অভিনেত্রী নিজের জীবন নিয়ে কোনো তথ্যই প্রকাশ্যে আনতে রাজি নন। স্বেচ্ছায় যবনিকা ফেলেছেন ব্যক্তিগত পরিসরের সামনে।

এসআর