করোনাকালীন ১১টি ছোট গল্প

আগের সংবাদ

যুব মৈত্রীর উদ্যোগে ঈদ খাদ্যসামগ্রী বিতরণ

পরের সংবাদ

গণস্বাস্থ্যের কিট: ২৬ মে থেকে পরীক্ষা শুরু

কাগজ প্রতিবেদক

প্রকাশিত হয়েছে: মে ২৩, ২০২০ , ৬:৩৮ অপরাহ্ণ

ঈদের আগে করোনা শনাক্তে নিজস্ব প্রতিষ্ঠানের উদ্ভাবিত কিটের সক্ষমতা যাচাইয়ের ফলাফল পাচ্ছে না গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র। তবে এ নিয়ে আর অপেক্ষাও করতে রাজি নয় প্রতিষ্ঠানটির কর্তৃপক্ষ। তাই ২৬ মে থেকে রাজধানীর ধানমন্ডির গণস্বাস্থ্য নগর হাসপাতাল এবং সাভারের গণস্বাস্থ কেন্দ্রে নিজেদের উদ্ভাবিত কিট দিয়ে সীমিত পরিসরে করোনার পরীক্ষা শুরু করতে যাচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি। লালা ও রক্তের নমুনা থেকে এন্টিজেন্ট ও এন্টিবডি এই দু’টি পরীক্ষাই করবে প্রতিষ্ঠানটি।

শনিবার (২৩ মে) ভোরের কাগজকে এই তথ্য জানিয়েছেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

প্রসঙ্গত; চলতি মাসের ১৩ তারিখ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের হাসপাতাল (বিএসএমএমইউ) কর্তৃপক্ষের কাছে নমুনা কিট এবং ব্যাংকে অর্থ জমা দেয় গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র। ওই দিন ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী আশা প্রকাশ করেছিলেন আগামী সাত দিনের মধ্যেই কিটের সক্ষমতা যাচাইয়ের ফলাফল পাবার। কিন্তু ১১ দিন পেরিয়ে গেলেও পরীক্ষার ফলাফল মিলেনি।

ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী ভোরের কাগজকে বলেন, বিএসএমএমইউতে আমাদের উদ্ভাবিত কিটের সক্ষমতা যাচাইয়ের যে পরীক্ষা চলছে, মনে হয় না তারা ঈদের আগে তার ফলাফল দিতে পারবে। আমরা আর অপেক্ষা করব না। আক্রান্তদের অনেকেই পরীক্ষা করাতে পারছেন না। তাই আমরা সীমিত আকারে জরুরি ভিত্তিতে কয়েকজনের পরীক্ষা করার উদ্যোগ নিয়েছি। ২৬ মে মঙ্গলবার থেকে এই কার্যক্রম শুরু করবো। তবে যে কেউ এসে চাইলেই এই পরীক্ষা করা হবে না। জরুরিভিত্তিতে কয়েকজনের করানো হবে। কারণ আমাদের পর্যাপ্ত ‘র ম্যাটেরিয়াল’ নেই।

অনুমোদন ছাড়াই পরীক্ষা কার্যক্রম শুরু করা কতটা যৌক্তিক হবে এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি ভোরের কাগজকে বলেন, বিএসএমএমইউ আমাদের ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের অনুমোদন দিয়েছে। আমাদের হাসপাতালকেও অনুমোদন দিয়েছে। সেই অনুমোদনের বলেই ২৬ মে থেকে ঢাকা ও সাভার দুই জায়গাতেই পরীক্ষা শুরু করব। তবে তা অবশ্যই সীমিত পরিসরে।

সেবিকা/পিআর