করোনাযুদ্ধে জীবন দিলেন আরও এক পুলিশযোদ্ধা

আগের সংবাদ

আকাশে চাঁদ উঠলে সবাই দেখতে পারবে

পরের সংবাদ

দরিদ্রদের পাশে থেকে ঈদ করবেন বাম নেতারা

এন রায় রাজা

প্রকাশিত হয়েছে: মে ২৩, ২০২০ , ১:৩১ অপরাহ্ণ

করোনা ভাইরাস সংক্রমনের কারণে এবারে একত্রিত হয়ে ঈদের নামাজ বা জামাত হবে না। সেকারণে ঘরে বসেই ঈদের নামাজ আদায় করার সাথে সাথে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের দরিদ্র ও দুঃস্থ মানুষের মধ্যে ভাল মানের খাবার ও স্বাস্থ্য সামগ্রি বিতরন করে ঈদ উৎযাপন করতে চান বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশের বামপন্থী দলগুলোর শীর্ষ নেতারা। ভোরের কাগজের সঙ্গে আলাপকালে এসব কথা জানান তারা।

বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)’র সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম বলেন, করোনা ভাইরাসের সংক্রমন ঠেকাতে এবারের ঈদ আসলে অন্য রকম ভাবে পালন করতে হবে। মূলত মসজিদে গিয়ে নামাজ আদায় না করে ঘরে বসেই নামাজ আদায় করতে হবে। তবে হৈহুল্লোর করার চেয়ে এবারে দেশের বেশ কয়েকটি নিদ্দিষ্ঠ জেলায় সিপিবির পক্ষ থেকে অসহায় ও দুস্থ মানুষের মধ্যে খাবার বিতরণ করার পরিকল্পণা নেয়া হয়েছে। যাতে এ অসহায় মানুষগুলো কিছুটা হলেও ঈদের দিনে একটু ভাল খাবার খেতে পারে। তাছাড়া দেশের বিভিন্ন স্থাণে ত্রাণ কার্যক্রম চলছে, সেটাও অব্যাহত থাকবে। সেই সাথে বিভিন্ন হাসপাতালে ও ডাক্তারদের মধ্যে পিপিই, মাক্স, হ্যা- গ্ললভস, হ্যা- সেনিটাইজারসহ বিভিন্ন উপকরণ বিতরন করা হবে বলেও জানান তিনি। তবে ঈদের দিনে ভিডিও কল ও ফোনালাপের মাধ্যমে দলীয় ও পরিচিত নেতা কর্মীদের সঙ্গে কুশল বিনিময়ও করবেন সিপিবির সভাপতি।

বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল বাসদের সাধারণ সম্পাদক খালেকুজ্জামান বলেন, এবারে বিশ্বব্যাপী করোনার প্রকোপের কারণে স্বাস্থ্য বিধি মনে ঘরে বসে নামাজ আদায় করতে হবে। তিনি বলেন, জটলা জটিলতার মধ্যে গতানুগতিক ঈদ পালন করার কোন মানে হয়না। ঈদের দিনে গরীব ও অসহায় মানুষের মধ্যে বরিশাল ও নারায়নগঞ্জে কান্ট্রি কিচেনের মাধ্যমে ভাল মানের খাবার বিতরন করা হবে। যাতে করে এসব দরিদ্র মানুষেরা ঈদের দিনে ভাল খাবার অন্তত খেতে পারে। তবে ভিডিও ও ফোনে দলীয় নেতা কর্মীদের সঙ্গে কুশল বিনিময়ও করবেন বলে জানান তিনি।

বাম গণতান্ত্রিক জোটের সমন্বয়ক ফিরোজ রশীদ বলেন, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা হু’র নির্দেশনা অনুযায়ী এবারে সকলে একত্রিত হয়ে নামাজ আদায় সম্ভব হবে না। ঘরে নামাজ আদায় করার সাথে সাথে ঈদের দিনে নেতা কর্মীদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে শুভেচ্ছা বিনিময়ের ঈচ্ছে প্রকাশ করেন তিনি। অসহায়, দুস্থ ও দরিদ্রদের মধ্যে প্যাকেট খাবার দেবারও পরিকল্পণার কথা জানান ফিরোজ রশীদ।

আবার বিপ্লবী ওয়াকার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হকও করোনার কারণে ঘরে বসেই ঈদ পালন করবেন বলে জানান। তিনি বলেন, সেই সাথে দলীয় নেতা কর্মীদের সঙ্গে ফোনে শুভেচ্ছা বিনিময় করা হবে। তবে দরিদ্রদের মধ্যে কিছু সাহায্য বা খাবার দেবারও পরিকল্পণা করা হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

নকি