কুড়িগ্রামে আমফানের প্রভাব

আগের সংবাদ

গাইবান্ধায় ট্রাক উল্টে প্রাণ হারালো ১৩ জন

পরের সংবাদ

ক্ষতিগ্রস্ত বেড়িবাঁধগুলো দ্রুত মেরামত করা হবে

কাগজ প্রতিবেদক

প্রকাশিত হয়েছে: মে ২১, ২০২০ , ৩:৫৩ অপরাহ্ণ

পানি সম্পদ উপমন্ত্রী এনামুল হক শামীম বলেছেন, ঘূর্ণিঝড় আমফানের প্রভাবে উপকূলীয় এলাকায় ক্ষতিগ্রস্ত বেড়িবাঁধগুলো দ্রুত মেরামত করার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে। মন্ত্রণালয়ের সব কর্মকর্তা-কর্মচারী, পানি উন্নয়ন বোর্ডসহ সংশ্লিষ্ট সবার ছুটি বাতিল করা হয়েছে। বুধবার (২০ মে) রাতেও বিভিন্ন এলাকায় স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের সঙ্গে নিয়ে কাজ করেছেন। ক্ষতিগ্রস্ত বেড়িবাঁধগুলো দ্রুত মেরামত করা হবে। বৃহস্পতিবার (২১ মে) দুপুরে সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে একথা বলেন তিনি।

পানি সম্পদ উপমন্ত্রী এনামুল হক শামীম বলেন, করোনাভাইরাস দুর্যোগ কাটিয়ে ওঠার জন্য আমরা যখন ব্যাপকভাবে কাজ করে যাচ্ছি, তখন আরেকটা দুর্যোগ (আমফান) চলে এসেছে। এটা প্রাকৃতিক দুর্যোগ, এতে কারও হাত নেই। এটা আমরা ঠেকাতে পারব না। যে কারণে অনেক এলাকায় বাঁধ ভেঙে গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। বেড়িবাঁধগুলোও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

এনামুল হক শামীম বলেন, পানি উন্নয়ন বোর্ডের অধীনে ১৬ হাজার ৬ শত কিলোমিটার বাঁধ রয়েছে। এরমধ্যে উপকূল এলাকায় রয়েছে ৫ হাজার ৭৯৭ কিলোমিটার। ডুবন্ত বাধ রয়েছে আড়াই হাজার কিলোমিটার। এসব বাঁধগুলো অনেকটাই পুরানো।

তিনি বলেন, আমরা উপকূলীয় এলাকা বিশেষ করে সাতক্ষীরা, বাগেরহাট, পটুয়াখালী, ভোলা এলাকায় ক্ষতিগ্রস্ত বেড়িবাঁধগুলো তালিকা তৈরি করেছি। এগুলো দ্র্রুত মেরামত করার কাজ শুরু করতে নিদের্শনা দিয়েছি।

এসআর