করোনায় অন্নসংস্থানের রাস্তা বন্ধ হয়ে গেছে

আগের সংবাদ
সালাহর মাস্ক পড়ে ডাকাতির চেষ্টা

ফুটবল তারকার মাস্ক পরে ডাকাতির চেষ্টা

পরের সংবাদ

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ডের গোপন লেনদেন

কাগজ প্রতিবেদক

প্রকাশিত হয়েছে: মে ২১, ২০২০ , ১:২৪ অপরাহ্ণ

মাইকের হোল্ডিং

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ডের কিছু সন্দেহজনক আর্থিক লেনদেন নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের কিংবদন্তি পেসার মাইকের হোল্ডিং। কার ফস্টার প্যানেলের কথা একটি অতি গোপনীয় অডিট রিপোর্ট হাতে পেয়েছেন হোল্ডিং। সেটির ওপর ভিত্তি করেই নানান প্রশ্ন তুলেছেন তিনি।

সেই অডিট রিপোর্ট মোতাবেক, ২০১৮ সালের ৮ আগস্ট এক স্পন্সরের কাছ থেকে ১ লাখ ৩৪ হাজার ২০০ ডলার পেয়েছিল ক্যারিবীয় ক্রিকেট বোর্ড। এছাড়া ডমিনিকা ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকেও দেয়া হয়েছে সমপরিমাণ অর্থ। এই টাকাগুলোর বৈধতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন হোল্ডিং। এক ইউটিউব সাক্ষাৎকারে তিনি প্রশ্ন তুলেছেন, ‘এত বড় অঙ্কের টাকা গ্রহণের সময় এর স্বচ্ছতা নিশ্চিতকরণে কোন প্রক্রিয়া অনুসরণ করা হয়েছে? টাকাগুলো যে বৈধ এবং এখানে কোন মানি লন্ডারিং হয়নি- তার নিশ্চয়তা কী?’

শুধু তাই নয়, ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ড ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) অনুদান হিসেবে দেয়া ৫ লাখ ডলারও উধাও করে ফেলেছে বলে অভিযোগ করেছেন হোল্ডিং। কেননা বিসিসিআই সেই অর্থ দিয়েছিল সাবেক খেলোয়াড়দের সহায়তা করতে। কিন্তু তা পায়নি কোন সাবেক খেলোয়াড়।

হোল্ডিং বলেন, ‘আমি পরবর্তী অনুষ্ঠানে আরেকটি বিষয় সম্পর্কে বিস্তারিত কথা বলব। ২০১৪ সালে সাবেক খেলোয়াড়দের সাহায্যের জন্য ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ডকে ৫ লাখ ডলার দিয়েছিল বিসিসিআই। আমি একজন সাবেক খেলোয়াড়, আমি বলছি না যে আমার সেই টাকা লাগবে।’ ‘তবে আমি এমন অনেক খেলোয়াড়কে চিনি, যারা এই ৫ লাখ ডলারের একটি পয়সার দেখাও পায়নি। কাউকে কিছুই দেয়া হয়নি। আমি এ বিষয়ে নিশ্চিত। কারণ যদি আদৌ খেলোয়াড়দের সাহায্য করা হতো, তাহলে এটা নিয়ে অনেক উচ্চবাচ্য করা হতো। আমার প্রশ্ন হলো ভারতের দেয়া সেই অনুদানের টাকাগুলো কোথায়?’

এমআই