করোনায় কণিকার প্লাজমা ব্যবহার করা হবে না

আগের সংবাদ

দেশে মারা যেতে পারে ২৮ হাজার শিশু

পরের সংবাদ

কোথায়, কেমন আছেন নায়িকা শিমলা?

কাগজ প্রতিবেদক

প্রকাশিত হয়েছে: মে ১৩, ২০২০ , ১০:৪০ অপরাহ্ণ

সময়ের জনপ্রিয় অভিনেত্রী সামসুন নাহার সিমলা। তিনি ১৯৯৯ সালে প্রথম অভিনীত ম্যাডাম ফুলি ছবির মাধ্যমে শুরুতেই জনপ্রিয়তা পান সবার কাছে। হয়ে ওঠেন ম্যাডাম ফুলি নামেই পরিচিত। এই ছবিটির মাধ্যমেই অর্জন করেন নেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। এর পর একের পর এক সাফল্য অর্জন করেন শিমলা। কিন্তু হঠাৎ করেই যেন তার খোঁজ নেই মিডিয়া অঙ্গনে।

অনেক চেষ্টার পর মুম্বাইয়ে খোঁজ মিলল তার। শিমলা জানান, ‘লকডাউন শুরুর আগেই তিনি মুম্বাই এসছেন। দুই বছরের বেশি সময় ধরে মুম্বাইয়ের মীরা রোডের একটি বাড়িতে আছেন। তবে সেখানে একাকীই সময় কাটাচ্ছেন তিনি। বলিউডে কাজ করার স্বপ্ন নিয়েই শিমলা যান ভারতের মুম্বাইয়ে। এরই মধ্যে ‘সফর’ নামের একটি ছবিতেও অভিনয় করেছেন।

সংগীতশিল্পী বাপ্পী লাহিড়ীর মাধ্যমে তাঁর এই বলিউড যোগাযোগ তৈরি হয়। তারপর যেসব সুযোগ পাচ্ছেন, কাজে লাগানোর চেষ্টা করছেন। লকডাউন শুরুর আগে গোবিন্দর সঙ্গে একটি মিউজিক ভিডিওতে কাজ করার কথা ছিল। অনেক দিন ধরে নাচের মহড়াও করছিলেন তিনি।

শিমলা আরো জানান, ‘মুম্বাই বেশ ব্যয়বহুল শহর। আমি এখানে সাদামাটাভাবেই থাকছি। কষ্ট করছি। যদি সফলতা পাই, তখন ভিন্নভাবে চিন্তাভাবনা করব।’

এর আগে শিমলা মা-কে নিয়ে তিনি মগবাজার ডাক্তার গলিতে থাকতেন। পরে সেই বাসা ছেড়ে দিলে তার মা চলে যান ঝিনাইদহের শৈলকূপায় নিজেদের বাড়িতে। ছয় ভাই, পাঁচ বোনের মধ্যে শিমলা সবার ছোট। কোনোমতে এসএসসি পাস করে ইন্টারে ভর্তি হলেও সিনেমার নেশায় তার আর পড়াশোনা হয়নি।

অভিনয়জীবনের শুরুতে শিমলা একসঙ্গে তিনটি ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হন। ‘ম্যাডাম ফুলি’ ছাড়া বাকি দুটো ছবি হচ্ছে ‘পাগলা ঘণ্টা’, ‘ভেজা বেড়াল’। কয়েক বছর ধরে ৩৫টির মতো ছবিতে অভিনয় করেছেন। বেশ কয়েক বছর ধরে দেশের সিনেমায়ও অনিয়মিত। সর্বশেষ মুক্তি পাওয়া সিনেমা ‘নেকাব্বরের মহাপ্রয়াণ’। আর শুটিং করেছেন ‘নাইওর’ ছবির।

গেল বছরের ফেব্রুয়ারিতে শিমলা বিমান ছিনতাইয়ের মতো একটি ঘটনাকে কেন্দ্র করে আলোচনায় আসেন। এ বিষয়ে শিমলা জানান, ‘ওটার আইনি সমাধান হয়েছে। এসব নিয়ে আমি আর ভাবতে চাই না।’

শিমলা ১৯৮২ সালের ৪ ডিসেম্বর (বিবাহের কাবিননামা অনুসারে) ঝিনাইদহ জেলার শৈলকূপা উপজেলায় জন্মগ্রহণ করেন। ২০০৯ সালে তিনি সৈয়দ অহিদুজ্জামান ডায়মন্ড পরিচালিত গঙ্গাযাত্রা চলচ্চিত্রে ফেরদৌস আহমেদ ও সাদিকা পারভিন পপির সাথে পার্শ্বচরিত্রে অভিনয় করেন। এই ছবিতে অভিনয়ের জন্য তিনি শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেত্রীর জন্য বাচসাস পুরস্কার লাভ করেন। তার অভিনীত অন্যান্য চলচ্চিত্র হল রূপগাওয়াল, নেকাব্বরের মহাপ্রয়াণ। ২০১৩ সালের জুনে তিনি কলকাতার ‘সমাধি’ চলচ্চিত্রে গোবিন্দের বিপরীতে অভিনয় করেন।

সিমলা ২০১৮ সালের ৩ মার্চ নারায়ণগঞ্জের পলাশ আহমেদ নামে এক যুবকের সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন এবং একই বছরের ৬ নভেম্বরে ১০ মাসের মধ্যে তাদের বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটে।