আশার আলো দেখছে দুনিয়া

আগের সংবাদ

জেলাতে ত্রাণ বিতরণের মনিটরিংয়ে দায়িত্বে ৬৪ সচিব

পরের সংবাদ

করোনা আক্রান্ত শিক্ষার্থীর পাশে দাঁড়ালেন কলেজের অধ্যক্ষ

কাগজ প্রতিবেদক

প্রকাশিত হয়েছে: এপ্রিল ২০, ২০২০ , ৬:৪৫ অপরাহ্ণ

করোনায় আক্রান্ত শিক্ষার্থীকে চিকিৎসাসহ সার্বিক ভাবে সহোযোগিতায় করার আশ্বাস দিয়েছেন কবি নজরুল সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক আই কে সেলিম উল্লাহ খোন্দকার। তিনি বলেন, মেয়েটির বাবা নেই। পুরান ঢাকায় মাকে নিয়ে থাকে। সে টিউশনি করে সংসার চালায়। অধ্যক্ষ হিসেবে আশ্বস্ত করেছি, কলেজ পরিবার চিকিৎসাসহ সববিষয়ে তার পাশে থাকবে। অর্থ বা অন্য কোন সাপোর্ট দরকার হলে জানাতে বলেছি। আমরা সার্বিক ভাবে তাকে সাহয্য করবো।

মুঠোফোনে অধ্যক্ষ আই কে সেলিম উল্লাহ খোন্দকার বলেন, আমরা সার্বক্ষণিক তার খোঁজখবর নিচ্ছি।সে করোনায় আক্রান্ত হয়ে কুয়েত মৈত্রী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। সে এবার মাস্টার্স পাশ করেছে। মেয়েটি মার্চের শুরু থেকেই টিউশনি বন্ধ করে দেয়। তারপরিবারের কেউ বাসা হতে বের হয়নি। এমাসের প্রথম সপ্তাহে সে একজনকে রক্ত দেয়ার জন্য হাসপাতালে গিয়েছিল। সেখান থেকেই আক্রান্ত হয় বলে ধারণা তার। টেস্টে পজিটিভ হলে গতকাল কুয়েত মৈত্রী হাসপাতালে ভর্তি হয়। গতকাল তার খুব কষ্ট হচ্ছিলো। এখন ভালো। আমি তার সাথে কথা বলেছি।সে জানিয়েছে হাসপাতালে খাওয়া দাওয়া চিকিৎসাসহ সকল ব্যবস্থাপনা খুব ভালো।

করোনায় আক্রান্ত ঐ শিক্ষার্থী জানান,আমরা তিন বোন এক ভাই পারিবারিকভাবে আমাদের আর্থিক অবস্থা বেশি ভালো না।তাই আমি টিউশন করে চলতাম। কিন্তু দেশের এমন পরিস্থিতিতে আমার সব টিউশন বন্ধ। এখন আমার কাছে যা টাকা আছে হইতো দুই থেকে তিন দিন চলতে পারবো কিন্তু এরপর কি হবে বুঝতে পারিছি না। তবে আমার শ্রদ্ধাভাজন স্যার কবি নজরুল কলেজের অধ্যক্ষ আইকে সেলিম উল্লাহ খোন্দকার আমাকে সার্বিকভাবে সহযোগিতা করার আশ্বাস দিয়েছে। কোন কিছুর প্রয়োজন হলে আমি স্যারকে জানাবো।এসময় তার পাশে দাঁড়ানোর জন্য তিনি কলেজের অধ্যক্ষ ও কলেজ পরিবারে সবাইকে ধন্যবাদ জানান।

উল্লেখ্য, রাজধানীর কবি নজরুল সরকারি কলেজের ২০১১-১২ সেশনের এক শিক্ষার্থী করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার (১৬ এপ্রিল) ঐ শিক্ষার্থী আইইডিসিআরের হটলাইনে ফোন দিলে তাকে আইইডিসিআর নিয়ে যায়৷ পরে শনিবার পরীক্ষা শেষে তাকে করোনা ভাইরাস পজিটিভ বলে নিশ্চিত করা হয়।

এসএইচ