চিফ হুইপের সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ

আগের সংবাদ

বিসিক শিল্পনগরীগুলোতে তৈরি হচ্ছে ওষুধ-পিপিই

পরের সংবাদ

করোনায় অচল ফিফা র‌্যাঙ্কিংও

কাগজ প্রতিবেদক

প্রকাশিত হয়েছে: এপ্রিল ১০, ২০২০ , ৫:৪১ অপরাহ্ণ

ফিফা

বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসের প্রভাবে কোনো পরিবর্তন আসেনি ফিফার র‌্যাঙ্কিংয়ে। প্রানঘাতি এই ভাইরাসে স্থগিত বা বন্ধ রয়েছে বিশ্ব ফুটবল। মাঠে গড়াচ্ছে না কোনো ধরনের টুর্নামেন্ট। অনুষ্ঠিত হচ্ছে না কোনো ম্যাচ। করোনা সঙ্কটের এই প্রভাবটা পড়েছে ফিফার প্রকাশিত নতুন র‌্যাঙ্কিংয়েও। ৯ এপ্রিল ঘোষিত নতুন র‌্যাঙ্কিংয়ে কোনো পরিবর্তন আসেনি। পরিবর্তন হয়নি বাংলাদেশের অবস্থানও, আগের মতোই ১৮৭ নম্বরে রয়েছে জামাল-রানারা। এশিয়ার র‌্যাঙ্কিংয়ে বাংলাদেশ ৩৮তম।

এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে সবার উপরে জাপান। সূর্য উদয়ের দেশটির ফিফা র‌্যাঙ্কিং ২৮। দক্ষিণ এশিয়ায় শীর্ষে রয়েছে ভারত (১০৮)। এরপরে মালদ্বীপ (১৫৫), নেপাল (১৭০), বাংলাদেশ (১৮৭), ভুটান (১৮৯) ও পাকিস্তান (২০০)। ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ে বাংলাদেশের সেরা অবস্থান ছিল ১১০। ১৯৯৬ সালের এপ্রিলে নিজেদের সেরা অবস্থানে ওঠে বাংলাদেশ। আর সর্বনিম্ন র‌্যাঙ্কিং ১৯৭। ২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারিতে নিজেদের ইতিহাসের সর্বনিম্ন স্থানে পৌঁছায় তারা।

সব ধরনের আন্তর্জাতিক খেলাই এখন বন্ধ। বিশ্বকাপ বাছাই ও অন্যান্য বৃহৎ টুর্নামেন্ট স্থগিত হয়ে গেছে। পুরুষদের অলিম্পিক ফুটবল টুর্নামেন্ট, কোপা আমেরিকা ও উয়েফা ইউরো পিছিয়েছে এক বছর। এর আগে গত ২০ ফেব্রুয়ারি প্রকাশিত ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ের সঙ্গে নতুন র‌্যাঙ্কিংয়ের মধ্যে পরিবর্তন হয়েছে মাত্র একটি জায়গায়। ১১ মার্চ অনুষ্ঠিত প্রীতি ম্যাচে জ্যামাইকার কাছে ২-০ গোলে হেরে যাওয়ায় বারমুডা নেমে গেছে ১৬৯তম স্থানে। আর ১৬৯ থেকে ১৬৮তম স্থানে উন্নিত হয়েছে দক্ষিণ সুদানের।

বৈশ্বিক মহামারীর প্রাদুর্ভাব দেখা দেয়ার পরে এখন পর্যন্ত মাঠে গড়িয়েছে মাত্র চারটি ম্যাচ। যার সবকটি আবার ফিফা প্রীতি ফুটবল ম্যাচ। ১১ মার্চ ২-০ গোলে বারমুডাকে হারালেও ৪৮তম স্থানেই রয়ে গেছে জ্যামাইকা। এ ম্যাচে হার মেনে একটি র‌্যাঙ্কিং পয়েন্ট হারিয়েছে বারমুডা। যে কারণে এক ধাপ ওপরে উঠে গেছে দক্ষিণ সুদান। র‌্যাঙ্কিংয়ে এবার পরিবর্তন বলতে এটাই। বারমুডার সঙ্গে যুগ্মভাবে ১৬৮তম স্থানে রয়েছে এখন দক্ষিণ সুদান। অন্য তিন ম্যাচে ২৩ ফেব্রুয়ারি উজবেকিস্তান ১-০ গোলে হেরেছে বেলারুশের বিপক্ষে। এতে উজবেকিস্তান (৮৫তম) তিন পয়েন্ট হারালেও উল্টো তিন পয়েন্ট পেয়েছে বিজয়ী বেলারুশ (৮৭তম)। তবে আগের অবস্থানেই রয়েছে তারা। ২৬ ফেব্রুয়ারি পানামা গোল শূন্য ড্র করে নিকারাগুয়ার (১৫১তম) সঙ্গে। ৫ মার্চ গুয়েতেমালাকে (১৩০তম) ২-০ গোলে হারিয়েছে পানামা (৮১তম)। তবে এই দলগুলোরও অবস্থানের কোনো পরিবর্তন হয়নি।

ওদিকে আগের মতো শীর্ষ তিনে রয়েছে বেলজিয়াম, ফ্রান্স ও ব্রাজিল। তাদের পরেই রয়েছে ইংল্যান্ড, উরুগুয়ে, ক্রোয়েশিয়া, পর্তুগাল, স্পেন, আর্জেন্টিনা ও কলম্বিয়া। পরবর্তী ফিফা র‌্যাঙ্কিং প্রকাশিত হবার হারিখ ১১ জুন ২০২০।

পিআর