আমির-আসিফদের ফাঁসি চান মিয়াঁদাদ

আগের সংবাদ

বড় অংকের অনুদান দিচ্ছে মরগান-স্টোকসরা

পরের সংবাদ

লকডাউনের দিনগুলি কীভাবে কাটাবেন? পর্ব-২

কাগজ প্রতিবেদক

প্রকাশিত হয়েছে: এপ্রিল ৪, ২০২০ , ৪:৪২ অপরাহ্ণ

করোনায় স্থবির গোটা দেশ। বাসায় থাকা ছাড়া যেন কারো কাজ নেই। বাসায় শুয়ে-বসে আর কতো থাকা যায়। মানুষ আর কেউ সময়ের দিকে খেয়াল রাখছে না। কারো জানার দরকারও নেই যে আজ কি বার? জেনে কি করবে? সবকিছুই তো লকডাউন।

এর ফলে বাড়ছে মানসিক দুশ্চিন্তা। এই পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে কীভাবে দিন কাটাবেন সে বিষয়ে আজকের আয়োজন- ‘লকডাউনের দিনগুলি কীভাবে কাটাবেন?’ আজ থাকছে দ্বিতীয় পর্ব-

* দৈনন্দিন রুটিনে বাধা জীবনযাপন করতে গিয়ে অনেকেরই শরীরের প্রতি তেমনে একটা যত্ন নেয়া হয়ে ওঠে না। এখন যদি আপনার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ বা ‘ওয়ার্ক ফ্রম হোম’ সুবিধার কারণে বাসায় থাকার সুযোগ মেলে, তাহলে সেই সময়টা কাজে লাগানোর চেষ্টা করুন। সময়মতো ঘুমাতে যাওয়া, ঠিকমতো খাওয়াদাওয়া করা, এবং অবশ্যই ঘরেই বিভিন্ন রকম শরীরচর্চার চেষ্টা করুন। সুস্থ দেহ আপনাকে সুস্থ মনের দিকে ধাবিত করবে।

* কেবলমাত্র শুয়ে-বসে ঘরে সময়টা না কাটিয়ে বিভিন্ন রকম সৃজনশীল কাজকর্মের মাধ্যমে সময়টা কাটানোর চেষ্টা করুন। সেটা বই পড়া থেকে শুরু করে আপনার পছন্দের যেকোনো কিছুই হতে পারে। এ ধরনের সৃজনশীল কাজগুলো আপনাকে মানসিকভাবে সতেজ ও ফুরফুরে রাখবে নিশ্চিতভাবেই।

* শিক্ষার্থীরা এই সময়টায় শুধু সিনেমা-সিরিয়াল না দেখে বা গল্প-উপন্যাসের বই না পড়ে চাইলে বিভিন্ন রকম স্কিল ডেভেলপমেন্টের দিকে নজর দিতে পারে। অনলাইনে আজকাল দেশী-বিদেশী অনেক প্লাটফর্মেই সফট স্কিল ডেভেলপমেন্টের ব্যবস্থা রয়েছে, যার মাধ্যমে ঘরে বসেই বিশ্বমানের শিক্ষকদের সংস্পর্শে বিভিন্ন স্কিল ডেভেলপমেন্ট করা সম্ভব। এই কাজটা করতে পারেন বিভিন্ন পেশাজীবীও। যেহেতু দৈনন্দিন যাতায়াতের সময়টা বেঁচে যাচ্ছে, তাই সে সময়টাই তারা এখানে কাজে লাগাতে পারেন। এ ধরনের ‘সেলফ ইনভেস্টমেন্ট’ শিক্ষার্থী-পেশাজীবী উভয় শ্রেণীর জন্যই বেশ কাজের জিনিস।

* আপনি হয়তো অনেক কিছুর পরিকল্পনাই করতে পারেন। কিন্তু সেগুলো আবার খুব দ্রুত সেরে ফেলতে যাবেন না যেন। যেহেতু এই সময়ে ঘর থেকে বাইরে না বেরোতেই পরামর্শ দেয়া হচ্ছে, তাই ঘরে বসে কাজগুলো দ্রুত সেরে ফেললে পরবর্তী দিনগুলোতে অলস সময় কাটাতে কাটাতে বিরক্তি এসে যাওয়া অস্বাভাবিক না। তাই এদিকেও নজর দিতে হবে যেন দ্রুত বার্নআউট না হয়ে যায়।

* সবার শেষে, চারদিকে নেতিবাচক খবরের ভিড়ে খুঁজে বের করতে ইতিবাচক বিষয়গুলোকে। খুঁজে দেখতে চেষ্টা করুন বিশ্বজুড়ে বিভিন্ন মানুষের আত্মত্যাগকে যারা এত খারাপ পরিস্থিতির ভেতরেও নিজেদের জীবন বাজি রেখে নভেল করোনাভাইরাস মোকাবেলায় কাজ করে যাচ্ছেন। এই ভাল খবরগুলো আপনাকে আশার বাণী শোনাবে, জানাবে নতুন সূর্যের আগমনী বার্তার কথা।

 

পিআর