বাসায় ফিরলেন খালেদা জিয়া (লাইভ ভিডিও)

আগের সংবাদ

স্বাধীনতা দিবসে সিসিমপুরের বিশেষ পর্ব

পরের সংবাদ

চোখ মুখ শুকিয়ে গেছে খালেদা জিয়ার

প্রকাশিত: মার্চ ২৫, ২০২০ , ৫:৪৯ অপরাহ্ণ আপডেট: মার্চ ২৫, ২০২০ , ৫:৫০ অপরাহ্ণ

দুর্নীতির মামলায় ২ বছর এক মাস ১৭ দিন কারবন্দি থাকার পর বুধবার দুপুরে সরকারের নির্বাহী আদেশে মুক্তি পান বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। বেলা ৪টা ২০ মিনিটে হুইল চেয়ারে করে বিএসএমএমইউ হাসপাতালের ৬তলা কেবিন ব্লক থেকে নিয়ে আসা হয় তাকে। এরপর হাসপাতালে থেকে ঢাকা মেট্রো-ভ ১১-০৬৯২ নম্বর গাড়ি করে তাকে গুলশানের ফিরোজা বাসভবনে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে।

হাসপাতাল থেকে বের হয়ার সময় হাল্কা গোলাপি রংয়ের শাড়িতে খালেদা জিয়াকে মাথা ঢেকে পুরোনো সেই চশমায় দেখা যায়। তবে কারাগারে যাওয়ার আগের তুলনায় তিনি অনেক শুকিয়ে গেছেন তিনি। মুখে মাস্ক ছিলো ।

দীর্ঘদিন পর নেত্রীর মুক্তির খবরে হাসপাতালে ভিড় জমায় হাজারো নেতাকর্মী। হাসপাতালে বারান্দা দাঁড়িয়ে অনেকে অপেক্ষা করে খালেদা জিয়াকে এক নজর দেখতে।

মুক্তির পর বাসার পথে খালেদা জিয়া

করোনাভাইরাস সচেতনতার কথা বলে পুলিশ সদস্যরা বারবার সতর্ক করলেও কোনোভাবে নেতাকর্মীদের ভিড় কমাতে না পারেননি তারা। অবশেষে বিএনপি মহাসচিব মাইক হতে নেতাকর্মীদের নির্দেশ দেন ভিড় কমাতে যদি এতে কোনো কাজ হয়নি। অবশেষে খালেদা জিয়া গাড়িতে উঠার সময় গাড়ির চারপাশ গিরে নেতাকর্মীরা খালেদা, খালেদা, জিয়া, জিয়া শ্লোগান দিতে থাকেন।

নেতাকর্মীরা বলছেন, ২ বছর পর নেত্রীর মুক্তি আমাদের জন্য খুব আবেগের। আমরা একনজর উনাকে দেখতে এসেছি।

বাসায় ফিরার পর আত্বীয়-স্বজনরা খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন। সেখানে তার মতামত জানবেন। তিনি যে সিদ্ধান্ত দেবেন, সেটাই চূড়ান্ত হবে জানান পরিবারের সদস্যরা।

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সাজা ছয় মাসের জন্য স্থগিত রেখে তাঁকে মুক্তি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় সরকার। মঙ্গলবার জরুরি সংবাদ সম্মেলনে সরকারের এ সিদ্ধান্তের কথা জানান আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

প্রসঙ্গত, জিয়া অরফানেজ ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় ১৭ বছরের কারাদণ্ড নিয়ে ২০১৮ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে কারাগারে খালেদা জিয়া। সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী এখন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে ৩৬টি মামলা রয়েছে। দুটি বাদে সব মামলায় তিনি জামিনে আছেন।

এসআর

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়