কান উৎসব ভবনে গৃহহীনদের আশ্রয়

আগের সংবাদ

জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

পরের সংবাদ

গেলেন হেঁটে, ফিরলেন হুইল চেয়ারে!

কাগজ প্রতিবেদক

প্রকাশিত হয়েছে: মার্চ ২৫, ২০২০ , ৭:০১ অপরাহ্ণ

দীর্ঘ দুই বছরের অধিক সময় কারাগারে বন্দি পর অবশেষে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতাল থেকে মুক্তি পেয়ে বাসায় ফিরলেন বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। খালেদার মুক্তিতে সোস্যাল মিডিয়ায় মন্তব্যের ঝড় উঠেছে। নাজমুস সাকিব নামে একজন বিএনপি কর্মী তার ফেসবুকে লেখেছেন, সরকার খালেদা জিয়ার সাথে অন্যায় আচারণ করেছে। তিনি যখন কারাগারে গেলেন তখন হেঁটে গিয়েছেন কিন্তু তাঁকে ফিরতে হলো হুইল চেয়ারে।

বুধবার (২৫ মার্চ) বিকেল সোয়া ৫টার দিকে তাকে বহনকারী গাড়ি গুলশানের ৭৯ নম্বর রোডের ১১ নম্বর বাসভবনে পৌঁছেন। এসময় খালেদার বাসভবনের সামনে জড়ো হওয়া নেতাকর্মীরা স্লোগান দিতে দেখা যায়।

এর আগে বিকেল ৪টার পর কারান্তরীণ খালেদাকে মুক্তি দেয়া হলে তিনি বিএসএমএইউ প্রাঙ্গণে রাখা গাড়িতে ওঠেন। সেখান থেকে খালেদাকে বহনকারী গাড়ি ‘ফিরোজা’র উদ্দেশ্যে রওনা হয়। খালেদার সঙ্গে তার গৃহকর্মী ফাতেমাও বের হন। তবে ফাতেমা অন্য গাড়িতে করে বাসায় ফেরেন। গতকাল মঙ্গলবার (২৪ মার্চ) সরকারের পক্ষ থেকে খালেদার মুক্তির সিদ্ধান্ত জানানো হলে তার বাসভবন ‘ফিরোজা’ পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করা হয়।

তবে খালেদা জিয়ার মুক্তির বিষয়ে সোস্যাল মিডিয়ায় মাহমুদুল হাসান নামে একজন লেখেছেন, “জেলে এবং হাসপাতালে প্রপার চিকিৎসা না দিয়ে মোটামুটি তাঁকে মৃত্যুর দ্বারপ্রান্তে নিয়ে অথবা চীরতরে অচল করে এখন সরকার মানবতা দেখাচ্ছে! কারণ, এখন উনি করোনা আক্রান্ত হয়ে অথবা অসুস্থতার কারণে মারা গেলে কেউ সরকারকে দায়ী করতে পারবে না। সত্যিই কুটবুদ্ধিতে আওয়ামী লীগের জুড়িমেলা ভার।”

এসএইচ