করোনায় মৃত্যু আরো ১, মোট আক্রান্ত ৩৩

আগের সংবাদ

দুর্যোগের মধ্যে গণমাধ্যমকর্মীদের চাকরিচ্যুত দুঃখজনক

পরের সংবাদ

আকাশ পথে স্থবিরতা, বিমান রাখার জায়গা নেই

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত হয়েছে: মার্চ ২৩, ২০২০ , ৪:২৪ অপরাহ্ণ

করোনা ভাইরাসের থাবায় বিপর্যস্ত গোটা বিশ্বব্যবস্থা। উন্নত দেশ আর শহরগুলোতে আজ মৃত্যুর মিছিল। করোনা ভাইরাস পূর্ব পৃথিবী আর বর্তমান বিশ্বের মধ্যে অনেক বেশি পার্থক্য হয়ে দাড়িয়েছে। স্বাভাবিক বিশ্বে প্রতিদিন এ গ্রহে প্রায় ২০ হাজার ফ্লাইট পরিচালিত হতো। শুধুমাত্র ব্যবসায়িক লাভের উদ্দেশ্যেই এতো সংখ্যক বিমান পরিচালিত হতো।

তবে প্রতি ঘণ্টায় একটি বিমান পাকিং করার জন্যও ইউরোপে একটি বিমানকে গুনতে হয় প্রায় ২৮৫ ডলার। এখন অধিকাংশ রুটে বিমান চলাচল বন্ধ। ৭০% ফ্লাইট পরিচালনা বন্ধ করতে হয়েছে ডেল্টা এ্যায়ার লাইনসকে। ফলে তাদের ৬০০ বিমানকে এখন পাকিং এ রাখতে হচ্ছে।

Decommissioned and suspended commercial aircrafts at Pinal Airpark on March 19, 2020.
অরক্ষিত বিমান

অষ্ট্রেলিয়ার কানটা এ্যায়ার লাইনসের ১৫০টি বিমান বসিয়ে রাখতে হচ্ছে। জার্মানির লুফতানসা গ্রুপ তাদের প্রায় ২৩ হাজার ফ্লইট বাতিল করেছে। ইমিরেটস এ্যারায়লাইনস তাদের ১৫৯ টি গন্তব্যের মধ্যে মাত্র ১৩টি রুটে তাদের ফ্লাইট পরিচালনা করবে।

এত সংখ্যক বিমান আর কখনো যাত্রা বাতিল করে অবসরে থাকেনি। এখন বিমানগুলো নিরাপদে পাকিং রাখার স্থানের সংকট দেখা দিয়েছে। তবে এখন সবচেযে বড় চিন্তার বিষয় হয়ে দাড়িয়েয়ে আর কত দিন এসব বিমানকে এভাবে অলস পড়ে থাকতে হবে।

নকি