বাসায় থেকে কাজ করার সুযোগ দিল বিসিসিআই

আগের সংবাদ

হলিউডে সানির রাজমহল

পরের সংবাদ

ফ্রেঞ্চ ওপেন পেছাল

কাগজ প্রতিবেদক

প্রকাশিত হয়েছে: মার্চ ১৯, ২০২০ , ১১:০৫ পূর্বাহ্ণ

সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে করোনা ভাইরাস। প্রাণঘাতী এ ভাইরাসের ভয়াল থাবায় লণ্ডভণ্ড হয়ে গেছে বিশ্ব ক্রীড়া ইভেন্টগুলো। এক বাক্যে বলা যায়, করোনা ভাইরাস ক্রীড়াঙ্গনে বেশ জোরেশোরেই আঘাত হেনেছে। এমনকি এ ভাইরাসের আতঙ্কে এবার পাল্টে গেল টেনিসের দিনপঞ্জিও। বছরের দ্বিতীয় গ্র্যান্ড স্লাম ফ্রেঞ্চ ওপেন চার মাস পিছিয়ে দেয়া হয়েছে।

করোনা ভাইরাসের আতঙ্কে ইউরোপিয়ান ফুটবলে নেমে এসেছে অন্ধকার। কদিন আগে বন্ধ হয়েছে ভারত-দক্ষিণ আফ্রিকা, নিউজিল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট সিরিজ। স্থগিত হয়েছে উয়েফা ইউরো এবং কোপা আমেরিকা। আর এবার সর্বশেষ এই তালিকায় নাম লেখালো ফ্রেঞ্চ ওপেন। অবশেষে করোনা ভাইরাসের সঙ্গে যুদ্ধে হার মানতে হলো ফ্রেঞ্চ ওপেনকেও।

এবারের রোলাঁ গারোঁর ইভেন্টটি ২৪ মে শুরু হওয়ার কথা ছিল। ফ্রান্সের টেনিস ফেডারেশন এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ২০ এপ্রিল পর্যন্ত সব ধরনের পেশাদার টেনিস বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। আর নতুন সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ফ্রেঞ্চ ওপেন শুরু হবে আগামী ২০ সেপ্টেম্বর থেকে ৪ অক্টোবরের মাঝে। ফ্রেঞ্চ টেনিস ফেডারেশন আরো জানিয়েছে, সবার সুস্বাস্থ্য ও নিরাপদ থাকাকে সুনিশ্চিত করতেই এই পদক্ষেপ গ্রহণ করেছি আমরা। তবে ফ্রেঞ্চ টেনিস ফেডারেশনের নতুন সময়সূচি নিয়ে বেশ সমালোচনাও শুরু হয়েছে। তাদের নির্ধারিত নতুন সময়সূচিতে বছরের দ্বিতীয় গ্র্যান্ড স্লাম এখন বছরের শেষ গ্র্যান্ড স্লাম ইউএস ওপেনের সপ্তাহখানেক পরে আয়োজিত হতে যাচ্ছে। যা বাকি টুর্নামেন্টগুলোর সময়সূচির সঙ্গেও সাংঘর্ষিক হয়ে যাচ্ছে।

আর ফ্রেঞ্চ টেনিস ফেডারেশনের এমন সময়সূচি ঘোষণার পর বেশ খেপেছেন তরুণ কানাডিয়ান টেনিস তারকা ভ্যাসেক পসপিসিল। টুইটারে এক বার্তায় ভ্যাসেক বলেন, এটি একটি পাগলামি, সময় পাল্টে ইউএস ওপেনের ঠিক এক সপ্তাহ পরে টুর্নামেন্ট আয়োজনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে রোলাঁ গাঁরো। কিন্তু কোনো খেলোয়াড়, এটিপির সঙ্গে তারা কোনো প্রকার যোগাযোগই করেনি! এই খেলায় আমাদের কথা বলার সুযোগ থাকে না। তাই এখনই সময়।

এমএইচ