কোয়ারেন্টাইনে যেভাবে কাটছে রোনালদোর সময়

আগের সংবাদ

করোনায় যুক্তরাষ্ট্রে জরুরি অবস্থা জারি

পরের সংবাদ

সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের বায়োপিক

‘কিংবদন্তির উদ্দেশ্যে এক শীষ্যের নিবেদন’

শ্রাবণী হালদার

প্রকাশিত হয়েছে: মার্চ ১৪, ২০২০ , ১০:৩০ পূর্বাহ্ণ

টলিউডের প্রখ্যাত অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের জীবনী নিয়ে সিনেমা বানাচ্ছেন পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়। কলকাতার হরীতকী বাগান লেনের হরীতকী বাগান শুটিং বাড়িতে শুটিং করছিলেন তিনি। ‘অভিযান’ প্রসঙ্গে এ বাড়িতেই ভোরের কাগজের সঙ্গে সরাসরি কথা বললেন পরমব্রত। সাক্ষাৎকার নিয়েছেন শ্রাবণী হালদার

সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের বায়োপিক। এটি টলিউডের জন্য যেমন অন্যরকম এক প্রাপ্তি হবে, তেমনি আপনার ক্যারিয়ারেও নিশ্চয় স্পেশ্যাল এক জার্নি?

পরমব্রত : ক্যারিয়ার ভেবে ঠিক করা না কাজটা। আমাদের জেনারেশনের জন্য বাংলা স্বর্ণযুগের কিংবদন্তি অভিনেতাদের মধ্যে হাতের কাছে একমাত্র সৌমিত্র জেঠুকেই পেয়েছি। আমাদের সে সৌভাগ্যটা হয়েছে। উনি তো শুধু একজন অভিনেতা নন, উনি বহুমুখী শিল্পী। এই যে একজন কিংবদন্তিকে এত কাছ থেকে দেখার ও কাজ করার সুযোগ পেয়েছি, এটার প্রতি এবং একজন শিল্পী হিসেবে তার যে প্রসার, যে ব্যপ্তি তার ওপর একটা শ্রদ্ধার্ঘ্য বলতে পারেন।

সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের জন্মদিনে সিনেমাটির ঘোষণা দিয়েছিলেন। এটা কি এক ফেলুদাকে আরেক ফেলুদার রিটার্ন গিফট?

পরমব্রত : (হা-হা-হা) বরং বলা উচিত হচ্ছে, এক কিংবদন্তির উদ্দেশ্যে এক শীষ্যের নিবেদন, শীষ্যর উপহার। আমি সৌমিত্র জেঠুকে শুধু একজন অভিনেতা হিসেবে দেখি না। মানুষ সৌমিত্রের আরো অনেক দিক আছে। ছবিটা দেখবেন, বুঝতে পারবেন।

পরিচালক হিসেবে হাত পাকিয়েছেন বেশ আগেই। ‘অভিযান’ করার তাগিদটা অনুভব করলেন কবে থেকে?

পরমব্রত : বছরখানেক আগেই প্লানটা প্রথম হয়। আমার নিজেরও সময় পাওয়ার একটা ব্যাপার ছিল। তাছাড়া লিখতেও বেশ সময় লেগেছে।

সিনেমার নাম ‘অভিযান’ কেন? সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের কোন জার্নিগুলো থাকবে এখানে?

পরমব্রত : একদিকে যেমন তার অভিনয় জীবনের জার্নিটা থাকবে তেমনি আবার মানুষ সৌমিত্র, সার্বিকভাবে শিল্পী সৌমিত্র; সবদিকটাই থাকছে।

তার মানে তো উত্তম কুমার, সুচিত্রা সেন, রবি ঘোষ তাদের চরিত্রও থাকছে?

পরমব্রত : অবশ্যই। সৌমিত্রের ক্যারিয়ার দেখাতে হলে তাদের তো রাখতেই হবে।

শুনেছি, ‘অভিযান’র উত্তম-সুচিত্রা হচ্ছেন প্রসেনজিৎ-পাওলি?

পরমব্রত : পাওলি করছেন সুচিত্রা সেন। শুটিংও হয়েছে। তবে প্রসেনজিতের সঙ্গে কথাবার্তা চলছে। এরা প্রত্যেকেই অতিথিশিল্পী হিসেবে কাজ করছেন। আর রবি ঘোষের ভূমিকায় থাকছে রুদ্রনীল ঘোষ।

তরুণ সৌমিত্র হিসেবে যীশুকেই বেছে নেয়ার কারণ কী?

পরমব্রত : চেহারার সাদৃশ্য তো মানুষের সঙ্গে মানুষের ওভাবে হয় না। কিন্তু একটা স্ট্রাকচারের জায়গা থেকে মোটামুটি একটা মিল বা দু’তিনটা যে অপশন ছিল তা সবমিলিয়ে যীশুর মধ্যে ওয়াকআউট করে গেছে।

‘অভিযান’র কাজটা নিশ্চয় এ বছরই শেষ হয়ে যাবে। রিজিল ডেট নিয়ে ভেবেছেন কিছু?

পরমব্রত : হ্যাঁ, এ বছরই কাজ শেষ হবে। সামনের বছরই রিলিজ দেবো।

তার মানে, সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের জন্মদিনে?

পরমব্রত : ( মৃদু হেসে) জানি না, এখনো কিছু জানি না। তবে দেখা যাক!

বায়োপিকের প্রসঙ্গে যেহেতু কথা হচ্ছে, নিশ্চয় শুনেছেন, দুই বাংলার উদ্যোগে বিখ্যাত নির্মাতা শ্যাম বেনেগাল ‘বঙ্গবন্ধুর বায়োপিক’ বানাচ্ছেন। যেখানে টলিউডের অনেক শিল্পীই অভিনয় করবেন। বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে দুই বাংলার এই উদ্যোগকে একজন শিল্পী হিসেবে কীভাবে দেখছেন?

পরমব্রত : আমি অনেক দিনই ভেবেছি, বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে ছবি হচ্ছে না কেন। ফাইনালি যে হচ্ছে, এটা অত্যন্ত আনন্দের খবর। বড় আকারের ছবি হতে চলেছে বলে শুনছি। সাফল্য কামনা করি। আমি আশা করব, যারা যারা কাজ করবেন, যে দেশেরই অভিনেতা হোক না কেন, বা যারা বানাচ্ছেন তারা বঙ্গবন্ধুর রাজনীতি, তার ইতিহাস, তার আদর্শ এই বিষয়গুলো মাথায় রেখে কাজ করবেন।

আপনার অভিনীত যৌথ প্রযোজনার সিনেমা ‘হলুদ বনি’ ভারতে মুক্তির আগেই গত সপ্তাহে বাংলাদেশের দুটি হলে মুক্তি পেয়েছে। বাংলাদেশে কেমন সাড়া ফেলবে বলে মনে হয়?

পরমব্রত : বেশ কিছু দিন আগে করা ছবিটা। ততটা মনে নেই ছবিটা প্রসঙ্গে। তত স্মৃতিও নেই। দেখলে বুঝতে পারব। এখন দেখা যাক, দর্শক কীভাবে নেন।

‘অভিযান’ ছাড়া এ সময়ে ব্যস্ততা আর কী নিয়ে?

পরমব্রত : শেষ করলাম রাজ চক্রবর্তীর ‘হাবজি গাবজি’ ছবির কাজ। ‘অভিযান’র শুটিং শেষ করে চলে যাব অরিন্দম শীলের ‘খেলা যখন ছিল’ ছবিটি করতে। ‘বোমকেশ’ আছে, যেটি দুর্গাপূজায় মুক্তি পাবে। ১৭ এপ্রিল মুক্তি পেতে চলেছে ‘অন্তর্ধান’ নামে একটি ছবি। কাজ করব শায়ন্তন ঘোষালের নতুন ছবিতেও।

করোনা ভাইরাস ইফেক্ট কিন্তু আমাদের ঢাকাই সিনেমা ইন্ডাস্ট্রিতে পড়েছে। শুটিং বন্ধ, সিনামা রিলিজ পিছিয়েছে। আপনারা তো দিব্যি শুটিং করে যাচ্ছেন!

পরমব্রত : আমি শুট করছি কিন্তু করোনা ইফেক্ট আমার ওপরও পড়েছে। লন্ডনে আমার একটা ছবির শুটিং ক্যান্সেল হয়েছে। অনেক মাস পিছিয়ে গেল। ছোট ছোট ইফেক্ট এদেশেও পড়েছে।

বাংলাদেশে নতুন কোনো সিনেমায় কাজের ব্যাপারে কি আলাপ হয়েছে?

পরমব্রত : (জোর দিয়ে) আমি সম্প্রতি একটি ছবির কাজ শেষ করে এলাম। ক’দিন আগেই তো দেশে ফিরেছি। শবনম ফেরদৌসীর ‘আজব কারখানা’ এটি। আমার কাছে এটি উল্লেখযোগ্য একটি কাজ। কাজটি নিয়ে আশাবাদী।

নকি