জাপানের সাথে দ্বিপাক্ষিয় সম্পর্ক উন্নয়নের আশ্বাস

আগের সংবাদ

মাধ্যমিকে বাধ্যতামূলক হচ্ছে কারিগরি শিক্ষা

পরের সংবাদ

দেশের ১০ ভাগ মানুষ বধিরতায় ভোগে

কাগজ প্রতিবেদক

প্রকাশিত হয়েছে: মার্চ ৩, ২০২০ , ৫:৩৪ অপরাহ্ণ

বধিরতা বড় ধরণের এক জনস্বাস্থ্য সমস্যা। দেশের প্রায় ১০ ভাগ মানুষ প্রতিবন্ধী ধরণের বধিরতায় ভোগেন। বধিরতা হার কমিয়ে আনার জন্য প্রতিরোধেই মূল উপায়। প্রতিরোধের জন্য জনসচেতনা সৃষ্টির বিকল্প নাই।

মঙ্গলবার(৩ মার্চ ) বিশ্ব শ্রবণ দিবস উপলক্ষে আয়োজিত এক সংক্ষিপ্ত সভায় এ তথ্য জানানো হয়। বাংলাদেশ সোসাইটি অব অটোলজী আয়োজিত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) বটতলায় এই সভা অনুষ্ঠিত হয়। এরপর অনুষ্ঠিত হয় জনসচেতনতামূলক র‌্যালি। বিএসএমএমইউ’র উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়–য়া অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন। বিশ^বিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (গবেষণা ও উন্নয়ন) অধ্যাপক ডা. মো. শহীদুল্লাহ সিকদার, বাংলাদেশ সোসাইটি অব অটোলজীর সভাপতি অধ্যাপক ডা. মো. আবুল হাসনাত জোয়ারদার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে বিশ্ব জন্মগত ত্রুটি দিবস উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের এ ব্লক অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত এক অনুষ্ঠানে জানানো হয়, বিশ্বে নবজাতকদের মাঝে জন্মগত ত্রুটির হার ৬ শতাংশ। বিএসএমএমইউ-তে পরিচালিত গবেষণা অনুযায়ী এই হাসপাতালে আসা নবজাতকদের মাঝে এই হার ২০১৯ সালে ছিল ৯ দশমিক ৮ শতাংশ। বিশ্বে প্রতি ৩৩ জন শিশুর মধ্যে ১ জন জন্মগত ত্রুটি নিয়ে জন্মগ্রহন করে। সারা বিশ্বের মধ্যে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় জন্মগত ত্রুটির প্রবণতা সবচেয়ে বেশি। বিশ্বে প্রতি বছর শুধুমাত্র জন্মগত ত্রুটির জন্য জন্মের ২৮ দিনের মধ্যে প্রায় ৩ লক্ষ শিশু মারা যায়।

নকি