সেলফিসাইডের ঝুঁকি!

আগের সংবাদ

প্রাথমিক থেকে মাধ্যমিক স্কুল

পরের সংবাদ

২য় দূষিত শহর ঢাকা

বিশ্বে বায়ু দূষণে শীর্ষে বাংলাদেশ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত হয়েছে: ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০২০ , ৯:১৮ অপরাহ্ণ

বায়ুদূষণ নিয়ে কাজ করা সংস্থা আইকিউ এ্যায়ার ভিজ্যুয়াল ২০১৯ সালের প্রকাশিত রিপোর্টে বাংলাদেশকে বিশ্বের সবচেয়ে দূষিত দেশ হিসেবে তালিকাভুক্ত করা হয়েছে। আর শহর হিসেবে ঢাকা রয়েছে বিশ্বের ২য় নিকৃষ্ট বায়ুর শহরের তালিকায়। বিশ্বের সকল শহরের রিয়েল টাইম বায়ুর মান প্রকাশ করে থাকে সংস্থাটি। পিএম ২.৫ মানের ওপর ভিত্তি করে তালিকাটি প্রকাশ করা হয়েছে।

র‌্যাংকিং তালিকায় ৮৩.৩ পয়েন্ট নিয়ে সবার প্রথমে অর্থাৎ সবচেয়ে দূষিত দেশ হিসেবে স্থান করে নিয়েছে বাংলাদেশ। অন্যদিকে ৬৫.৮ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার ২য় স্থানে রয়েছে পাকিস্তান। তৃতীয় মঙ্গোলিয়া এবং ৪র্থ স্থানে রয়েছে আফগানিস্তান। আর তালিকার ৫ নম্বরে রয়েছে প্রতিবেশি ভারতের নাম।

দূষিত দেশ হিসেবে পঞ্চম অবস্থানে থাকলেও দূষিত বায়ুর শহরের তালিকায় সবার উপরে রয়েছে দিল্লি। তৃতীয় মঙ্গোলিয়ার উলাবাতার আর চতুর্থ শহর আফগানিস্তানের কাবুল। পাঁচ নম্বরে রয়েছে ইন্দোনেশিয়ার জাকার্তা।

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালের তালিকাতেও বাংলাদেশের স্থান ছিল সবার শীর্ষে। পাকিস্তান দ্বিতীয় অবস্থানে থাকলেও ভারতের অবস্থান ছিল ৩ নম্বরে। অঞ্চল হিসেবে দক্ষিণ এশিয়ার শহরগুলো সবচেয়ে বেশি বায়ু দূষণের শিকার। এ অঞ্চলের ৬৫৫ শহরের মধ্যে মাত্র ৬টি শহরের বায়ু মান সম্মত অবস্থানে রয়েছে। ২০১৯ সালের সবচেয়ে দূষিত ৩০ শহরের ২১টি শহরের অবস্থান ভারতে।  আর বাকি শহরগুলো অবস্থানও এশিয়ায়।

২০১৫ সাল থেকে সংস্থাটি সারাবিশ্বের বায়ুর রিয়েল টাইম মান নির্ধারণের সেবা দিয়ে আসছে। বিশ্বের ৯০% মানুষ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নির্ধারিত মানসম্মত সীমার নিচে অর্থাৎ দূষিত বায়ু গ্রহণ করে থাকলেও এ সম্পর্কে মানুষের কাছে তেমন কোন তথ্য নেই বলে রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়।

বর্তমান বিশ্বের জন্য সবচেয়ে বড় হুমকি নিরাপদ বায়ুর নিশ্চয়তা। বিশ্বে প্রতিবছর প্রায় ৭০ লাখ মানুষ এর প্রভাবে মৃত্যুবরণ করে থাকে। কম উন্নত দেশগুলোতে পাঁচ বছরের কম বয়সি ৯৮% শিশু দূষিত বায়ুর মধ্যে বেড়ে ওঠে। ফলে বিশ্বে শিশু মৃত্যুর প্রধান কারণ এখন বায়ু দূষণ। এর প্রভাবে প্রতি বছর ৬ লাখ শিশু মারা যায় বলে জানায় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

বায়ু দূষণের প্রকাশিত তালিকা

 

নকি