শ্রীপুরে গণধর্ষণের প্রধান আসামি গ্রেপ্তার

আগের সংবাদ

ডিএসইর নতুন চেয়ারম্যান ইউনুসুর রহমান

পরের সংবাদ

শ্যামলী নাসরিন চৌধুরী

সৌভাগ্য যে আমরা মুজিববর্ষ পেয়েছি

প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২০ , ৯:৩৯ অপরাহ্ণ আপডেট: ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০২০ , ১:২৫ পূর্বাহ্ণ

এবারের গ্রন্থমেলা একেবারে অন্যরকম সাজে সেজেছে। স্টল বিন্যাস থেকে শুরু করে পুরো প্রাঙ্গণ একেবারে সুশৃংখলভাবে সাজানো হয়েছে। এমনকি নিরাপত্তা ব্যবস্থাও দেখেছি বেশ জোরদার করা হয়েছে। ধুলোবালিও কম। আমার কাছে তো এবারের বইমেলাকে ইদানিং কালের সবচেয়ে সেরা মেলা মনে হচ্ছে। গতকাল বইমেলা প্রসঙ্গে ভোরের কাগজের এক প্রশ্নের জবাবে শহীদজায়া শ্যামলী নাসরিন চৌধুরী এ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন।

মুজিববর্ষ উপলক্ষে বইমেলা সেজেছে অন্যরকম সাজে, এবারের বইমেলাও বঙ্গবন্ধুকে উৎসর্গ করা হয়েছে, কেমন লাগছে? এর জবাবে তিনি আরো বলেন, আমাদের খুব সৌভাগ্য যে আমরা মুজিববর্ষ পেয়েছি। তরুণরাও তো এই মুজিব বর্ষকে খুব ভালোভাবে নিয়েছে। আমারও বেশ ভালো লাগছে যে, বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে চারদিকের এ আয়োজন। এতে করে আমাদের ভেতরে যে দুঃখটা ছিল নতুন প্রজন্ম বঙ্গবন্ধুকে চিনল না, জানল না, বইপত্রে নাই। সেই দুঃখটা এবার দূর হবে। আমার বিশ্বাস তারা বঙ্গবন্ধুকে অনেক বেশি করে চিনবে এবার। বিভিন্ন স্কুল কলেজের অনুষ্ঠানে মাধ্যমে ছোট ছোট বাচ্চারা বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে যা লিখছে এবং যা বলছে তাও সত্যি খুবই আশাব্যঞ্জক।

তিনি বলেন, আমরা চাই, প্রত্যেকের মাথার মধ্যে যেন বঙ্গবন্ধু যেন গেঁথে যায়। বঙ্গবন্ধুর আদর্শই তো বাঙালির জন্য সর্বশ্রেষ্ঠ ঘটনা। তিনি আমাদের বাংলাদেশ দিয়েছেন। সেই মানুষটার আদর্শ আর নীতি তো সর্বশ্রেষ্ঠ এবং অতুলনীয়। সেটা যদি আমাদের ছেলেমেয়েরা ভেতরে আত্মস্থ করে তাহলে আমাদের আর পেছনে ফিরে তাকাতে হবে না। দুঃখ থাকবে না। ফেলে আসা মেলার স্মৃতিচারণ করে এই শহীদজায়া বলেন, তখন তো খুব ছোট পরিসরেই মেলা ছিল। এই মেলার সঙ্গে সেই মেলার কোনো তুলনাই হয় না। তবে সেটাও কম ছিল না। আমাদের অন্যরকম একটা আবেগের জায়গা ছিল। যে আসন অনেক বড়ো জায়গাজুড়ে আছে এখনও।

এসএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়