বীরশ্রেষ্ঠদের ভাষা শহীদ বানালো ডিএমপি!

আগের সংবাদ

মিরপুর থেকে ১০ হাজার নকল স্ট্যাম্পসহ আটক ২

পরের সংবাদ

পালিত হয়নি শহীদ দিবস

শহীদ মিনার আছে, ফুল দেয়ার নেই কেউ!

প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ২১, ২০২০ , ৭:২২ অপরাহ্ণ আপডেট: ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২০ , ১২:৫৩ পূর্বাহ্ণ

‘আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি, আমি কি ভুলিতে পারি….। সত্যিই দেশপ্রেমিক কেউ ভুলতে পারে না একুশে ফেব্রুয়ারির দিনটি। গোটা জাতিই তার বীর ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করে, শ্রদ্ধার ফুলে ফুলে ভরে উঠে শহীদ মিনারগুলো।

কোথাও আবার শহীদ মিনার না থাকায় দেয়ালে শহীদ মিনারের ছবি এঁকে শ্রদ্ধা নিবেদনের মতো ঘটনাও ঘটেছে। তবে রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারির দিনটির কথা বেমালুম ভুলতে দেখা গেছে টাঙ্গাইলের কালিহাতীর গোপালদিঘি কেপি ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের। সেখানে শহীদ মিনার থাকলেও ভাষা শহীদ ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে কেউ ফুল দিয়ে আসেনি। অযত্ন আর অবহেলায় পড়ে রয়েছে শহীদ বেদী।

শুক্রবার (২১ ফেব্রুয়ারি) সকালে গিয়ে দেখা যায়, বিদ্যালয়ের অফিস কক্ষ তালাবদ্ধ। কোনো শিক্ষক বা শিক্ষার্থীরই দেখা নেই। ময়লা আবর্জনায় অরক্ষিত শহীদ মিনারের বেদিতে কোনো ফুল নেই। দেখানো হয়নি ভাষা শহীদদের প্রতি সম্মান ও শ্রদ্ধা।

বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ছাত্র আশরাফুলসহ একাধিক শিক্ষার্থী জানায়, স্যারেরা তো একুশে ফেব্রুয়ারি সম্পর্কে কিছু জানাননি। তাই আমরা তাই ফুল দিতে যাইনি।

স্থানীয় পাইকড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক হায়দার আলী মোল্লা জানান, মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন করার কথা ছিল। আমি সকালে গিয়ে দেখি কোনো কর্মসূচির আয়োজন নেই।

প্রধান শিক্ষক শাহ আলম বলেন, বিদ্যালয় পরিচালনা পরিষদের নির্বাচন ২২ ফেব্রুয়ারি। নির্বাচনকে সামনে রেখে মারামারি ও মামলা হয়েছে। তাই অনুষ্ঠান পালন করতে পারি নাই।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা রোকেয়া খাতুন বলেন, সকালে জানতে পারি গোপাল দিঘি কেপি ইউনিয়ন উচ্চবিদ্যালয়ে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের কর্মসূচি পালন করা হয়নি। তবে আমি দিবসটি পালন করার নির্দেশ দিয়েছিলাম।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শামিম আরা নিপা বলেন, সাংবাদিকদের মাধ্যমে জানতে পেরেছি। এখন শিক্ষা অফিসারের সঙ্গে কথা বলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেব।

এনএম

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়