মার্কিন দূতাবাস চালু করল বাংলা ভাষায় ওয়েবসাইট

আগের সংবাদ

ফের ভাইরাল সারার বিকিনি ছবি

পরের সংবাদ

এপনিকের দাপ্তরিক ভাষা এখন বাংলা

কাগজ প্রতিবেদক

প্রকাশিত হয়েছে: ফেব্রুয়ারি ২১, ২০২০ , ৪:০৯ অপরাহ্ণ

এশিয়া প্যাসিফিক নেটওয়ার্ক ইনফরমেশন সেন্টারের (এপনিক) দাপ্তারিক ভাষা হিসেবে যুক্ত হয়েছে বাংলা। শুক্রবার (২১ ফেব্রুয়ারি) আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে বাংলাভাষার প্রতি সম্মান জানিয়ে এপনিক এ সিদ্ধান্ত নেয়। সংগঠনটির ৪৯তম সম্মেলনের সমাপনী দিনে বার্ষিক সাধারণ সভায় এ ঘোষণা আসে।

এপনিকের যোগাযোগ ব্যবস্থাপক সিয়েনা পেরি বলেন, কর্তৃপক্ষ বাংলা ভাষা অন্তর্ভুক্তির প্রস্তাব পেয়ে তাৎক্ষণিক সিদ্ধান্ত নিয়েছে। শিগগিরই এটা অন্তর্ভুক্ত করা হবে।

মঙ্গলবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্ন শহরে বসে এপনিকের সম্মেলন। পাশাপাশি শুরু হয় এশিয়া প্যাসিফিক ইন্টারনেট কনফারেন্স অন অপারেশনাল টেকনোলজি- ২০২০ (অ্যাপ্রিকট)। সম্মেলনের শেষ দিন (২১ ফেব্রুয়ারি) অনুষ্ঠিত হয় এপনিকের বার্ষিক সাধারণ সভা। এদিন সংগঠনটির পরবর্তী কমিটিও ঘোষণা করা হয়।

বার্ষিক সাধারণ সভায় পঞ্চম বার্ষিকী পরিকল্পনার বিষয়ে অবহিত করা হয়। ২০২৩ সাল পর্যন্ত এই পরিকল্পনায় রয়েছে, সদস্য সংখ্যা, নিবন্ধিত পণ্য ও সেবাবৃদ্ধি, উন্নয়ন, তথ্য ও সক্ষমতা বৃদ্ধি। এছাড়া সভায় বিগত দিনের প্রতিবেদন ও হিসাব-নিকাশ উপস্থাপন করা হয়। সম্মেলনে অনুষ্ঠিত বিভিন্ন অধিবেশন, কর্মশালা, নেটওয়ার্কিং সেশন ও বৈঠকের সদস্যদের সামনে পেশ করা হয়।

এপনিকে বাংলা ভাষা অন্তর্ভুক্তির বিষয়ে জানতে চাইলে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিব মো. নূর উর রহমান বলেন, এটা খুবই আনন্দের কথা। বিশ্বে ৩২ কোটি মানুষের ভাষা বাংলা। বাংলাদেশ প্রতিনিধিত্ব করে সেই ভাষার। এ ভাষা তো অবশ্যই এপনিকে থাকা উচিত।

এপনিকের ৫০তম সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে বাংলাদেশে। আর ২০২২ সালের এপনিক অনুষ্ঠিত হবে জাপানে।

এসআর