১০ বছরে বিসিএসে ৩০ হাজার নিয়োগ: জনপ্রশাসন মন্ত্রী

আগের সংবাদ

১৬ লাখ জেলেরা বিমা সুবিধা পাবেন

পরের সংবাদ

সরে দাঁড়ালেন তরফদার রুহুল আমিন

কাগজ প্রতিবেদক

প্রকাশিত হয়েছে: ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০২০ , ৬:৫০ অপরাহ্ণ

আগামী এপ্রিলে বাফুফে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা। রবিবার সন্ধ্যা থেকে চার দিকে গুঞ্জন উঠে আসন্ন বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশ (বাফুফে) নির্বাচনে সভাপতি পদে নির্বাচন না করার ঘোষণা দিয়েছেন তরফদার মো. রুহুল আমিন। দুই বছরের বেশি সময় ধরে বাফুফে নির্বাচনের মাঠ চষে বেড়িয়েছেন তিনি।

বাংলাদেশ ফুটবল অঙ্গনের নানা অনিয়ম নিয়ে ছিলেন সোচ্চার। প্রকাশ্যেই কাজী সালাউদ্দিনকে চ্যালেঞ্জ জানিয়েছিলেন। কিন্তু হঠাৎ করেই সেই সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছেন তরফদার মো. রুহুল আমিন। গতকাল সন্ধ্যায় বাফুফের বর্তমান সভাপতি কাজী মোহাম্মদ সালাউদ্দিনকে ফোন করেই আচমকাই সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন তিনি। সেই ঘোষণার পর থেকে ক্রীড়াঙ্গনের নানা কথা উঠতে থাকে। আজ আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলন করে বাফুফের নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর কারণ জানান জেলা ও বিভাগীয় ফুটবল সংগঠক পরিষদের চেয়ারম্যান এবং ফুটবল ক্লাব সমিতির চেয়ারম্যান তরফদার রুহুল আমিন। তিনি বলেন, বাফুফের নির্বাচনকে কেন্দ্র করে চরম অস্থিরতা তৈরি হয়েছে। কাজী সালাউদ্দিনের পক্ষের লোকজন আর আমার পক্ষের লোকজনও নানা ধরনের কথাবার্তা বলছেন। এ অবস্থায় মনে হচ্ছে সভাপতি পদে আমার নির্বাচন করাটা ফুটবলের জন্য শুভ হবে না। আমি সভাপতি পদে নির্বাচন করব না, এটা আমার ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত।’

তরফদার রুহুল আমিন আরো বলেন,নির্বাচন সবার গণতান্ত্রিক অধিকার। আমার সংগঠনের কেউ করলেও করতে পারে। আমি সভাপতি পদে নির্বাচন না করলেও নির্বাচনী মাঠ ছাড়ছি না। কারা কোন পদে নির্বাচন করবে সেটা পরবর্তীতে ঠিক করব আমরা।’
প্রশ্ন ছিল, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে বর্তমান মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন পুনরায় আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পাননি, এটার কোনো প্রভাব এখানে পড়েছে কি না? জবাবে রুহল আমিন বলেছেন, না, ওটা রাজনৈতিক বিষয়, এটা ক্রীড়াঙ্গনের বিষয়। দুটোর মধ্যে কোনো যোগসাদৃশ্য নেই। এটা সম্পূর্ণই আমার ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত।’
সংবাদ সম্মেলনে বাফুফের বর্তমান কমিটির সহ-সভাপতি মহিউদ্দিন মহিসহ জেলা ও বিভাগীয় ফুটবলের সংগঠক ও কমকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

নকি