নায়ক-নায়িকাদের ফেসবুক হ্যাক, গ্রেপ্তার দুই

আগের সংবাদ

৩ লাখ ২ হাজার মিটার অবৈধ জালে আগুন

পরের সংবাদ

ফুলকপির ফলনে কৃষকের মুখে হাসি

‌ডুমুরিয়া (খুলনা) প্রতিনিধি

প্রকাশিত হয়েছে: ফেব্রুয়ারি ১৫, ২০২০ , ১২:৪২ অপরাহ্ণ

খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলায় চলতি শীত মৌসুমে ফুলকপির বাম্পার ফলন হয়েছে। অল্প খরচে বেশি লাভ হওয়ায় খুশি কৃষকরা। এখানকার ফুলকপি স্থানীয় চাহিদা মিটিয়ে সরবরাহ হচ্ছে দেশের বিভিন্ন জেলায়। আর সবজি চাষে প্রশিক্ষণ ও প্রযুক্তিগত সহায়তা দিচ্ছে কৃষি বিভাগ।

চলতি মৌসুমে নানা প্রতিকূল আবহাওয়ার মাঝেও খুলনা জেলার ডুমুরিয়া উপজেলা ২শত ৪০ হেক্টর জমিতে রকমারি শীতকালীন সবজির আবাদ করা হয়। এর মধ্যে ১শত ৩০ হেক্টর জমিতে আবাদ করা হয়েছে ফুলকপি। ডুমুরিয়া উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ মোঃ মোসাদ্দেক হোসেনের পরামর্শ ও সার্বিক সহযোগিতা করার কারণে এবার ফুলকপি চাষিদের ব্যাপক লাভ হওয়ায় কৃষকরা মহা খুশি।

খর্নিয়া গ্রামের আবু হানিফ ‌মোড়ল, রাজাপুর গ্রামের আব্দুল মান্নান, ভরাতিয়া গ্রামের তুষার মল্লিক ও রামকৃষ্ণ মল্লিক এর নিকট জানতে চাইলে তারা ভোরের কাগজ লাইভকে জানান, ফুলকপি চাষ এবার ভালো হয়েছে। অনুকূল আবহাওয়া, সময়মতাে বীজ বপন ও সুষম সারের ব্যবহারের ফলে এবার ডুমুরিয়ায় ফুলকপির বাম্পার ফলন হয়েছে।

কৃষকের সাথে কথা বলছেন কৃষিকর্মকর্তারা। ছবি: ভোরের কাগজ।

শীতের শেষ মুহূর্তেও কৃষকরা তাদের উৎপাদিত কপি এখনাে বাজারজাত করতে ব্যস্ত সময় পার করছেন। বাজার দামও পাচ্ছেন ভালাে। এতে হাসি ফুটেছে কৃষকের মুখে। সবচেয়ে বেশি উৎপাদন হয়েছে খুলনা জেলার ডুমুরিয়া উপজেলার খর্নিয়া, ভরাতিয়া ও সাহস রাজাপুর এলাকায়।

কৃষকরা জানান, একটি ফুলকপি উৎপাদন করতে তাদের গড় খরচ হয় ৮ থেকে ১০ টাকা। বাজারে চাহিদা ভালাে থাকায় উৎপাদিত ফুলকপি বিক্রি করে প্রতি পিছ ৩৫ থেকে ৪৫ টাকা। শীতকালীন সবজি ফুলকপি আবাদ করে বেশি লাভ হওয়ায় এখানকার কৃষকরা ফুলকপিসহ শীতকালীন সবজি চাষে ক্রমেই আগ্রহী হয়ে উঠছেন।

খুলনা জেলা কৃষি অফিসার পংকজ কান্তি মজুমদার বলেন, শীতকালীন সবজি ফুলকপি আবাদ করে লাভবান হওয়ায় ডুমুরিয়া অঞ্চলের কৃষকদের ফুলকপি চাষে দিন দিন আগ্রহ বাড়ছে।

এমএইচ