থানা থেকে সেবা নিয়ে মানুষ হাসিমুখে ফিরবে

আগের সংবাদ

খালেদার মুক্তি রাজনৈতিক বিবেচনার সুযোগ নেই

পরের সংবাদ

স্বামীর সঙ্গে ঝগড়া, গলায় ফাঁস দিলেন স্ত্রী

কাগজ প্রতিবেদক

প্রকাশিত হয়েছে: ফেব্রুয়ারি ৮, ২০২০ , ৭:৩৫ অপরাহ্ণ

রাজধানীর ডেমরা হাজীনগর এলাকায় সানজিদা আক্তার শান্তা (২২) নামের এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। পুলিশ বলছে, একমাত্র সন্তানকে খাওয়ানো নিয়ে স্বামীর সঙ্গে ঝগড়া হলে গলায় ফাঁস দেন ওই গৃহবধূ। শনিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) এ ঘটনা ঘটে।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল পুলিশ ক্যাম্পের সহকারী ইনচার্জ এ এস আই আবদুল খান বলেন, বিকেল সোয়া ৫টার দিকে অচেতন অবস্থায় শান্তাকে হাসপাতালের জরুরী বিভাগে নিয়ে আসা হয়। এরপর চিকিৎসকরা ইসিজি পরীক্ষা করে জানান, তার মৃত্যু হয়েছে। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট থানায় জানানো হয়েছে। আর মৃতদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে রাখা হয়েছে।

শান্তার স্বামী আজাদ জানান, আড়াই বছরের এক মাত্র মেয়ে ওয়াসেনাতকে খাবার খাওয়ানো নিয়ে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। পরে তিনি অফিসে চলে যান। দুপুরে স্বামী আজাদকে ফোন দিয়ে শান্তা জানান ফাঁসি দিচ্ছেন তিনি। পরে আজাদ দ্রুত বাসায় পৌঁছালেও বাসার কক্ষের দরজা বন্ধ পান। তখন আরো ভাড়াটিয়ার সহায়তায় দরজা ভেঙে ভিতরে ঢুকে দেখেন ফ্যানের সঙ্গে ওড়না দিয়ে গলায় ফাঁস লাগিয়ে ঝুলছে শান্তা। এরপর তাকে নামিয়ে প্রথমে স্থানীয় ও পরে ঢামেক হাসপাতালে নিয়ে আসলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের ভগ্নিপতি কামরুজ্জামান লিটন জানান, নারায়ণগঞ্জ রুপগঞ্জ উপজেলার মাসুমপুর গ্রামের কাউসার হোসেনের মেয়ে শান্তা। স্বামী সন্তান নিয়ে ডেমরা হাজিনগর ইমরান হোসেনের ৬তলা বাড়ির ৪র্থ তলায় ভাড়া থাকতেন। স্বামী আবুল কালাম আজাদ একটি কোম্পানীতে চাকরি করেন আর শান্তা গৃহিণী ছিল।

এসআর