খালেদার মুক্তির দাবিতে নয়াপল্টনে সমাবেশ

আগের সংবাদ

মহিলা রাগবি প্রতিযোগিতা শুরু

পরের সংবাদ

দোষারোপ না করে বাস্তবতা বুঝুন

কাগজ প্রতিবেদক

প্রকাশিত হয়েছে: ফেব্রুয়ারি ৮, ২০২০ , ৩:৩১ অপরাহ্ণ

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. মঈন খান বলেছেন, অনেকে আমাদেরকে দোষারোপ করছেন, খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য আমরা কিছু করছি না কেন? আসলে বাস্তবতা হলো- আমাদের লক্ষ লক্ষ নেতাকর্মীর নামে মামলা, আমাদের মহাসচিব এর নামে ৮৪টি মামলা রয়েছে। যার অধিকাংশ মামলায় হাস্যকর। উনি নাকি ময়লার গাড়িতে আগুন দিয়েছে । আমরা যখন ক্ষমতায় ছিলাম তখন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের নামে ৮৪টি মামলা দিয়েছিলাম।

শনিবার(৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুরের ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে এক প্রতিবাদ সভায় এ কথা বলেন তিনি। খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে রাজনৈতিক এবং ষড়যন্ত্রমূলক মামলায় দুই বছর কারাবাসের প্রতিবাদে ও মুক্তির দাবীতে প্রতিবাদ সভাটির আয়োজন করেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট।

মঈন খান বলেন, আমরা হিংসার রাজনীতি চাই না শান্তিপূর্ণ আন্দোলনের মাধ্যমে সরকারের পতন চাই আইনের মাধ্যমে খালেদা জিয়ার মুক্তি চাই।

সাবেক এই মন্ত্ৰী বলেন, খালেদা জিয়া যে মামলায় আটক রয়েছেন ,যে মামলায় সাজা দেয়া হয়েছে সেই মামলার কোনো কাগজপত্র খালেদা জিয়ার নয়। যে চেক বইয়ের কথা বলা হয়েছে সেটির একটি ও খালেদা জিয়ার নয়।

তিনি আরো বলেন, খালেদা জিয়া মুক্তি পেতে পারেন। যদি তিনি আইনের আওতায় থেকে পালিয়ে না যান। প্রশ্ন তুলে তিনি বলেন, খালেদা জিয়া কি অতীতে দেশ ছেড়ে পালিয়ে গিয়েছিলেন? ওয়ান-ইলেভেনের সময় কি পালিয়ে গিয়েছিলেন ,তিনি পালিয়ে যাননি।

একই অনুষ্ঠানে জেএসডির সভাপতি আ স ম আবদুর রব বলেন, সরকার যদি শান্তিপূর্ণভাবে বিদায় নিতে চায় তাহলে অবশ্য খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিতে হবে। আর না হয় গণ আন্দোলনের মাধ্যমে গণঅভ্যুত্থানের মাধ্যমে সরকারকে বিদায় নিতে হবে।

ড. কামাল হোসেনের সভাপতিত্বে ও জাহাঙ্গীর আলম মিন্টু সঞ্চালনায় উপস্থিত ছিলেন ফ্রন্টের শীর্ষ নেতারা।

এসআর
বিষয়: