ক্ষুদে প্রজন্মের মুখোমুখি সাবের হোসেন চৌধুরী

আগের সংবাদ

পাথরঘাটায় র‍্যাফেল ড্র বিক্রির গাড়ি থানায় দিলো স্থানীয়রা!

পরের সংবাদ

সাত মণ শাপলাপাতা মাছ! মাইকিং করে বিক্রি

প্রকাশিত: জানুয়ারি ২৫, ২০২০ , ৭:৩৭ অপরাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ২৫, ২০২০ , ১০:২৫ অপরাহ্ণ

এবার সাতমণ ওজনের বিশাল আকৃতির শাপলাপাতা মাছ ধরা পড়লো বরগুনার পাথরঘাটার জেলেদের জালে। মাছটি বাজারে বিক্রির জন্য রীতিমতো করা হলো মাইকিংও। শুক্রবার (২৪ জানুয়ারি) সরকারি ছুটির দিনে দেশের বৃহত্তম মৎস্য অবতরণ কেন্দ্র পাথরঘাটার বিএফডিসি ঘাটে মাছটি নিয়ে আসেন জেলেরা। উৎসুক জনতার ভিড়ে তখন পা ফেলার মতো জায়গা ছিল না সেখানে। বিকেল তিনটার দিকে শাপলাপাতা মাছটি আনা হলে যেন উপচে পড়া ভিড় লেগে যায়।

এর আগে একই দিন ভোরে বলেশ্বর নদের পদ্মা এলাকায় জেলেদের গোফ্ জালে (চরপাটা জালে) এ বিশাল দেহের মাছটি ধরা পড়ে। পরে মৎস্য অবতরণ কেন্দ্রে বিক্রির জন্য নিয়ে এলে সেখানকার রাজু নামের এক আড়তদার ৬৩ হাজার টাকায় মাছটি কিনে নেন।

রাজু সাংবদিকদের জানান, সকালে মাছটি বিক্রির জন্য মৎস্য ঘাটে নিয়ে এলে জেলেদের কাছ থেকে ৬৩ হাজার টাকায় কিনে নিই। বিকেলে মাছটি কেটে প্রতি কেজি ৩৫০ টাকা দরে বিক্রি করার জন্য বাজারে মাইকিং করি। এরপর থেকে বলা যায় সবাই ভিড় করে মাছটি কেনা ও দেখার জন্য।

বরফ দিয়ে রাখা হয়েছে শাপলাপাতা মাছটি। ছবি: প্রতিনিধি।

পাথরঘাটার ৬নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা সুভাষ মিস্ত্রি বলেন, শাপলাপাতা মাছটির যে কলিজা রয়েছে সেটার ওজনই তো প্রায় ২৫ কেজির মতো। সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগের বনরক্ষী আব্দুস ছালাম মুন্সী বলেন, আমার ৩২ বছরের চাকরি জীবনে এতবড় মাছ চোখে পড়েনি।

বিক্রেতা আড়তদার রাজু জানান, প্রতি কেজি ৩৫০ টাকা দরে মাছটি বিক্রি করলে ৩৫ হাজার টাকার মতো লাভ হবে। লেবার খরচ বাদে ১০ হাজার টাকার মতো লাভ থাকবে।

এনএম

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়