৮২৩৮ ঋণখেলাপির তালিকা প্রকাশ

আগের সংবাদ

নির্বাচন নিয়ে বিকেলে বিএনপির বৈঠক

পরের সংবাদ

ফের ফাইনালে ফিলিস্তিন

কাগজ প্রতিবেদক

প্রকাশিত হয়েছে: জানুয়ারি ২৩, ২০২০ , ১০:২৭ পূর্বাহ্ণ

কষ্টার্জিত জয়ে ফাইনালে পা রেখেছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ফিলিস্তিন। শেষ দিকের গোলে সিসিলসকে হারিয়ে ফাইনালে উঠেছে দলটি। এর মাধ্যমে ফেভারিটের তকমা নিয়ে ঢাকায় পা রাখা মধ্যপ্রাচ্যের দলটি মাঠের পারফরমেন্সে তার প্রমাণ দিল। প্রথম দল হিসেবে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ আন্তর্জাতিক ফুটবল টুর্নামেন্টের শিরোপা ধরে রাখার পথে আরেক ধাপ এগিয়ে গেল ফিলিস্তিন। ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ে ১০৬ নম্বর অবস্থানে থাকা দেশটির কোচ দাগোব মাকরাম ফের চ্যাম্পিয়ন হতে আত্মবিশ্বাসী।

গ্রুপ পর্বে ২ দলের পারফরমেন্সে ছিল বিস্তর পার্থক্য। ফিলিস্তিন ২ ম্যাচ জিতে ‘এ’ গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হিসেবে শেষ চারে জায়গা করে নেয়। গতকাল বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে প্রথম সেমিফাইনালে ফিলিস্তিন ১-০ গোলে হারিয়েছে সিসিলসকে। এ নিয়ে টানা ৩ ম্যাচ জিতল দলটি। বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে ‘এ’ গ্রুপের সেরা হয়ে সেমিফাইনালে উঠেছিল তারা। আসরের উদ্বোধনী ম্যাচে বাংলাদেশকে ২-০ এবং দ্বিতীয় ম্যাচে শ্রীলঙ্কাকেও একই ব্যবধানে হারিয়ে শেষ চারের টিকেট কাটে তারা।

অন্যদিকে, ২০১১ সালে ভারত মহাসাগরের ৬ জাতির টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন সিসিলসের ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ে অবস্থান ২০০ স্থানে। তবে র‌্যাঙ্কিংয়ে পিছিয়ে থাকলেও চলতি আসরে প্রথম অংশ নিয়েই সেমিফাইনালে পৌঁছে যায় আফ্রিকার দেশটি। গোল পার্থক্যে এগিয়ে থাকা সিসিলস ‘বি’ গ্রুপের রানার্সআপ হয়ে সেমিফাইনালে ওঠে। মাত্র এক পয়েন্ট নিয়ে গোল পার্থক্যে পেছনে ফেলে ভারত মহাসাগরের আরেক দ্বীপদেশ মরিশাসকে। গতকাল বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত প্রথম সেমিতে নিজেদের রক্ষণভাগে দুর্ভেদ্য দেয়াল দিয়ে ফিলিস্তিনকে অনেকক্ষণ আটকে রাখে তারা। খেলার ৮০তম মিনিটে অনেকটা অপ্রত্যাশিতভাবে গোল পায় টুর্নামেন্টের শিরোপাধারীরা। সতীর্থের বাড়ানো বল আয়ত্বে নিয়ে ডান দিক থেকে লেইথ খারৌবের ক্রস বাঁক খেয়ে দ্বিতীয় পোস্ট দিয়ে বল জাল খুঁজে নেয়।

শুরু থেকে গোছাল ফুটবল খেলা সিসিলস সপ্তম মিনিটে গোলবঞ্চিত হয়। কার্ল হলের ফ্রি কিক ক্রসবার ঘেঁষে বেরিয়ে যায়। প্রথমার্ধের শেষ দিকে মারাবাহর শট ফিরিয়ে সিসিলসের ত্রাতা গোলরক্ষক ইয়ান আঁ-কঙ। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে সিসিলসের ফরোয়ার্ড পেরি মনিয়াই গোলরক্ষক বরাবর শট নিয়ে একটি ভালো সুযোগ নষ্ট করেন। ৫০ মিনিটে ব্রেন্ডন লাবরোজে দলের হতাশা আরো বাড়ান লক্ষ্যে শট নিতে না পারায়।

গোল পেতে মরিয়া ফিলিস্তিন ৭৪ মিনিটে ভালো সুযোগ পায়। কিন্তু অধিনায়ক সামেহ মারাবার হেড পোস্ট ঘেঁষে বেরিয়ে যায়। এর ৬ মিনিট পর লেইথ গোলখরা কাটান। বাকিটা সময় আর কোনো গোল না হলে স্বস্তির জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে ফিলিস্তিন। টুর্নামেন্টে এখন পর্যন্ত অজেয় থেকে শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচের টিকেট কাটল তারা। ২৫ জানুয়ারি ফাইনালে ফিলিস্তিনের প্রতিপক্ষ দ্বিতীয় সেমিফাইনালে বাংলাদেশ-বুরুন্ডি মধ্যকার ম্যাচের জয়ী দল।

এমএইচ