বিদ্যুৎ সুবিধা থেকে বঞ্চিত হাতিয়া দ্বীপের ৫ লক্ষাধিক মানুষ

আগের সংবাদ

৬শ ৬০ মেট্রিক টন কয়লা নিয়ে কার্গো ডুবি

পরের সংবাদ

ভারতের নাগরিকত্ব আইনের দরকার ছিল না

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত হয়েছে: জানুয়ারি ১৯, ২০২০ , ৫:৩৭ অপরাহ্ণ

ভারতে সম্প্রতি পাস হওয়া নাগরিকত্ব আইনের উদ্দেশ্য নিয়ে সংশয় প্রকাশ করে এ আইনের দরকার ছিল না বলে মন্তব্য করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গতকাল সংযুক্ত আরব আমিরাতের রাজধানী আবুধাবিতে গল্ফ নিউজকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এ মন্তব্য করেন তিনি।

বাংলাদেশসহ অন্যান্য প্রতিবেশী দেশ থেকে মুসলিম ছাড়া সকল ধর্মের লোকদের নাগরিকত্ব দেয়ার জন্য গত বছরের ১১ ডিসেম্বর এ আইন পাস করা হয় ভারতের সংসদে। তবে ভারতে বাংলাদেশিদের নাগরিকত্ব নিয়ে কোন সমস্যার রেকর্ড নেই দাবি করে প্রধানমন্ত্রী বলেন বরং ভারতের জনগণ এ আইনে নানা সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছে।

অনেকে ধারণা করছে এ আইনের ফলে ভারতের মুসলিমদের বাংলাদেশে জোড় করে পাঠিয়ে দেয়া হতে পারে এমন প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন বাংলাদেশ সব সময় নাগরিকত্ব আইনকে ভারতের নিজেদের বিষয় বলে মনে করে এবং ভারতের সরকারের পক্ষ থেকেও বারবার বিষয়টিকে তাদের নিজেদের অভ্যন্তরীণ বিষয় বলা হয়েছে। তাছাড়া দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি নিজেও ব্যক্তিগতভাবে শেখ হাসিনাকে নাগরিকত্ব আইন নিয়ে আশ্বস্ত করেছেন বলে তিনি সংবাদমাধ্যমটিতে জানান।

বাংলাদেশ-ভারতের সম্পর্ককে সর্বোচ্চ পর্যায়ে আছে দাবি করে প্রধানমন্ত্রী রোহিঙ্গাদের নিয়ে উদ্বেগের কথা জানান। রোহিঙ্গাদের দ্রুত প্রত্যাবর্তন নিশ্চিত করতে না পারলে এ অঞ্চলের নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতা মারাত্মকভাবে প্রভাবিত হতে পারে বলে আশংকা প্রকাশ করেন প্রধানমন্ত্রী। এ সময় তিনি রোহিঙ্গা সমস্যার স্থায়ি কোন সমাধান না হওয়া পর্যন্ত আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সমর্থন জানানোর আহ্বান জানান।

নকি