অসহায় বৃদ্ধার পাশে দাঁড়ালেন পুলিশ সুপার

আগের সংবাদ

ইরানী মিসাইলে সেনা আহতের কথা স্বীকার যুক্তরাষ্ট্রের

পরের সংবাদ

আলো ছড়াচ্ছে মুক্তিযোদ্ধা ধন মিয়ার কলেজ

বানিয়াচং (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি

প্রকাশিত হয়েছে: জানুয়ারি ১৭, ২০২০ , ৫:৫৯ অপরাহ্ণ

আশির দশকের আগের কথা। একসময়ের লাউড়ের রাজধানী হবিগঞ্জ জেলার বানিয়াচং গ্রামে এল আর সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় ছাড়া ছিলনা অন্য কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। তখনকার সময় রাস্তা-ঘাটের তেমন উন্নতি হয়নি। উত্তর বানিয়াচং অর্থাৎ মজলিশপুর, মাতাপুর, সৈদ্যাটুলা, আমিরখানী, তকবাজখানীসহ অত্রাঞ্চলের বিভিন্ন পাড়া মহল্লার শিক্ষার্থীরা পায়ে হেটে অতি কষ্টের বিনিময়ে বিদ্যাপিটে আসা যাওয়া করতে হতো। বর্ষাকালে যাতায়াতের বাহন ছিল একমাত্র নৌকা। ধীরে ধীরে গ্রামটিতে আরো শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠে। কিন্তু উত্তর বানিয়াচংয়ে একটি ভাল মানের বিদ্যাপিঠ সৃষ্টির কোন উদ্যোগ কেউ নিতে পারেননি। অবশেষে আলোর দিশারি হয়ে উদীয়মান হলেন বারবার নির্বাচিত ইউপি চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা হায়দারুজ্জামান খান ধন মিয়া।

তিনি কয়েকটি মহল্লার শিক্ষা পাগল মানুষের সহায়তায় ২০১১ সালে গড়ে তুলেন বানিয়াচং আইডিয়েল কলেজ। সম্পুর্ন রাজনীতিমুক্ত কলেজ ক্যাম্পাস। কলেজটি আদর্শ বাজার সংলগ্ন প্রাকৃতিক মনোরম পরিবেশে নির্মাণ করা হয়েছে। আর তাঁর অসামান্য অবদানের জন্য উত্তরাঞ্চলের শিক্ষার্থীরা বিশেষ করে নারী শিক্ষার্থীরা বাড়ির কাছে বিদ্যাপিঠ পেয়ে আইডিয়েল কলেজের শিক্ষার্থীরা আনন্দিত। কমে গেছে শিক্ষার্থীদের দূরের পদযাত্রা। এছাড়া আইডিয়েল কলেজ প্রতিষ্ঠা ও উন্নতিতে অসামান্ন অবদান রেখেছেন শিক্ষা বান্ধব এমপি আব্দুল মজিদ খান। তার প্রচেষ্ঠায় বিদ্যাপিঠে নির্মিত হয়েছে নতুন নতুন বহুতল ভবন। তিনি কলেজটিকে করেছেন এমপিওভূক্ত।

প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ হিসেবে ২০১৫ সাল থেকে দায়িত্বে আছেন স্বপন কুমার দাস। তাঁর অক্লান্ত পরিশ্রম ও বলিষ্ট তত্বাবধানে কলেজের শিক্ষার মান উন্নতি হওয়ায় শিক্ষার্থী ভর্তির হার বাড়ছে। শুধুমাত্র দ্বাদশ শ্রেণীতেই বর্তমানে শিক্ষার্থীর সংখ্যা ৩৭৫ জন। রয়েছেন এক ঝাক পরিশ্রমি শিক্ষক মন্ডলী। বর্তমানে ১৮ জন শিক্ষক কলেজে পাঠদান করান।
অধ্যক্ষ স্বপন কুমার দাস জানান কলেজের গভর্নিং বডির কর্ম তৎপরতা, শিক্ষক মন্ডলীর পরিশ্রম ও শিক্ষার্থীদের একাগ্রতা প্রতিষ্ঠানটির উন্নতি সাধন হয়েছে। তিনি বলেন প্রতিমাসে ২ টি ক্লাস পরীক্ষা নেয়া হয়। ফলে শিক্ষার্থীরা বইয়ের প্রতি খুবই মনুযোগী। তিনি কলেজের সার্বিক উন্নয়নে সকলের সহায়তা কামনা করেন।

এসএইচ